Recipe
1 min read

আমরা সাধারণত রেস্টুরেন্টে গিয়ে সবসময় খেতে পছন্দ করি এমন একটি খাবার হচ্ছে ফালুদা

ফালুদা তৈরি করার সহজ রেসিপি

 আমরা সাধারণত রেস্টুরেন্টে গিয়ে সবসময় খেতে পছন্দ করি এমন একটি খাবার হচ্ছে ফালুদা । ফালুদা তৈরিতে আইসক্রিম এবং বিভিন্ন ধরনের ফল এর মিশ্রণ দিয়ে তৈরি করতে হয় ।  ফালুদা মিষ্টি একটি খাবার আমরা কম-বেশি অনেকেই মিষ্টি খাবার খেতে পছন্দ করি ।

কিন্তু ফালুদা যদি ঘরে বসে তৈরি করা যায় ।  তাহলে আপনার কষ্ট করে কোন রেস্টুরেন্টে গিয়ে ফালুদা কিনে খেতে হবে না ।  আপনি ইচ্ছে করলে ঘরে বসেই তৈরি করতে পারেন মজাদার মিষ্টি ফালুদা ।

ফালুদা ডেজার্ট  একটি উন্নত মানের খাবার । ফালুদা ঠান্ডা জাতীয় খাবার ,  তবে আপনি যদি রমজান মাসে সারাদিনে রোজা রেখে ইফতারের সময় ফালুদা তৈরি করে খেতে পারেন তাহলে সারাদিনের ক্লান্তি দূর হয়ে যাবে ।  তাই ফালুদা রমজান মাসের জন্য তৈরি করে খেতে পারেন ।

তাহলে চলুন দেখে নেই কিভাবে ঘরে বসে ফালুদা তৈরি করা যায় ।  আজকে আপনাদের জন্য থাকবে মজাদার একটি খাবার মিষ্টি ফালুদা রেসিপি । তাহলে চলুন শুরু  করা যাক সহজ রেসিপি ফালুদা ।

 প্রয়োজনীয় উপকরণ

 তরল দুধ ——–  1 লিটার ।

সাবুদানা ——–  1 কাপ ।

চিনি ———–  স্বাদমতো ।

প্লেইন নুডুলস —–আধা কাপ  ।

কাজুবাদাম —  পরিমাণমতো ।

পেস্তা বাদাম ——  পরিমান মত।

কাঠবাদাম- ——- পরিমাণমতো।

রাইস নুডুলস কোন রকমের ফ্লেভার ছাড়া নিলে ভালো হবে । 

আপনার পছন্দ অনুযায়ী কিছু ফল কিউব করে কেটে নিন ।ফালুদার জন্য আপনি এর সঙ্গে আইসক্রিম পছন্দ অনুযায়ী নিতে পারেন ।

  তাহলে চলুন দেখে নেই  কিভাবে তৈরি করতে হয় মজাদার ফালুদা রেসিপি । 

 প্রস্তুত প্রণালীঃ

 প্রথম ধাপ

 প্রথমে আমরা জেলি প্রেপারেশন করে নেব ।  চুলায় একটি পাত্রে বসিয়ে , পাত্রের মধ্যে এক কাপ পানি দিয়ে ,  পানি ফুটিয়ে নিন ।  পানি গরম হয়ে যাওয়ার পর  এক প্যাকেট জেলি দিয়ে দিন ।

জলির  মিশ্রন কিছুক্ষণ নাড়তে থাকুন । এরপর একটু ঘন হয়ে গেলে একটি বড় পাত্রে বাপরে গিলে নেব।  জেলির মিশ্রণটা কে একদম ঠান্ডা করে নিতে হবে । ঠান্ডা হওয়ার পর এক ঘন্টার জন্য নরমাল ফ্রিজে রেখে দেবো ।  ঠিক একই রকম ভাবে অন্য জেলি তৈরি করে  নিব ।

দ্বিতীয় ধাপঃ

 চুলায় একটি পাত্রে বসিয়ে এর মধ্যে দিয়ে দেবো 1 লিটার পরিমাণের তরল দুধ । তরল দুধ কিছুক্ষণ জ্বাল করে ঘন করে নেব । দুধ গরম হয়ে যাওয়ার পর এক প্যাকেট ফালুদা মিশ্রণ দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়তে থাকবো ।  তবে কোনোভাবেই নারা বন্ধ করা যাবে না ।

 আপনি যদি ফালুদা  মিশ্রন দেওয়ার পর   নাড়াচাড়া বন্ধ করে দেন তাহলে ফালুদা নিচ থেকে পড়ে যাবে ।  তাই আপনাকে অনবরত নাড়তে হবে । সাবুদানা ও নুডুলস গুলো সিদ্ধ হয়ে গেলে ।  তখন চোলা বন্ধ করে  দেব ।  থেকে নামিয়ে মিশ্রণটিকে হালকা একটু ঠান্ডা করে নেব । ঠান্ডা হয়ে যাওয়ার পর এক ঘন্টার জন্য ফ্রিজে রেখে দেব ।

 তৃতীয় ধাপঃ

          তৈরি হয়ে গেল মজাদার ফালুদা রেসিপি  এখন আপনাদের পছন্দ অনুযায়ী পরিবেশন করে নিন । পরিবেশনের পালা  প্রথমে একটি বাটিতে নিয়ে ।  তারপর উপরের দুই ধরনের জেলি দিব ।   ফালুদার উপরে দেবো কিউব সাইজ আপেল  , কাজুবাদাম ,  পেস্তা বাদাম , কাঠবাদাম  চেরি ইত্যাদি ।

এসব দেওয়ার পর আবার কিছু পরিমাণে ফালুদা মিশ্রণ দিয়ে দেব । আপনার পছন্দ অনুযায়ী কিছু ফল দিয়ে উপরে আইসক্রিম দিতে পারেন । তবে এখানে একটি কথা রয়েছে পরিবর্তন হচ্ছে নিজেদের কাছে ।  যে যেভাবে পছন্দ করে ঠিক সে ভাবে সাজিয়ে নেবেন ।  তবে যেকোনো খাবার বা যে কোনো জিনিস যদি দেখতে সুন্দর হয় তবে সেটা খেতে বা ব্যবহার করতে খুব ভাল লাগে ।

  তাই আমরা সবসময় চেষ্টা করব সবকিছু সুন্দর করে করার জন্য তাহলে আমাদের কাছে ভালো লাগবে এবং মনে অনেক আনন্দ আসবে । আপনি যদি ইচ্ছা করেন তাহলে খুব সহজভাবে ঘরে বসে তৈরি করতে পারবেন ফালুদা রেসিপি ।

 তৈরি হয়ে গেল মজাদার একটি খাবার হচ্ছে ফালুদা রেসিপি। 

Rate this post