Class 6 - বিজ্ঞান

ষষ্ঠ শ্রেণির বিজ্ঞান ৬ষ্ঠ অধ্যায়: সংবেদি অঙ্গ (PDF)

1 min read

ষষ্ঠ শ্রেণির বিজ্ঞান ৬ষ্ঠ অধ্যায় সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর : আমাদের দেহ একটি আজব যন্ত্র। যন্ত্রটির গড়ন এমন নিখুঁত যে এর কথা ভাবতেই অবাক লাগে। যন্ত্রের প্রতিটি অংশ মাপে মাপে বানানো। একটুও কম-বেশি নেই। আর যন্ত্রটিকে ঠিক ঠিক চালানোর জন্য প্রতিটি অংশ নিজ নিজ কাজ করে চলে। কাউকে কিছু বলতে হয় না। কার কী কাজ সে আপনিই বুঝে নিচ্ছে। আমাদের কিছু বুঝার আগেই ঘটনা ঘটে যায়।

যেমন- চোখের দিকে সাঁই করে একটি মাছি উড়ে এল ওমনি চোখের পাতা গেল বন্ধ হয়ে। অসাবধানে গরম চুলায় হাত পড়লে, তুমি হাত সরিয়ে নেবে। পায়ে কাঁটা ফুটার সাথে সাথে “উঃ মাগো’ বলে কাতরাবে। সারা শরীর জেনে গেল কী একটা পায়ে বিধলো। আমরা এগুলো অনুভব করতে পারি পঞ্চ ইন্দ্রিয়ের সাহায্যে। এ অধ্যায়ে আমরা পঞ্চ ইন্দ্রিয়ের সম্পর্কে আলোচনা করব।

ষষ্ঠ শ্রেণির বিজ্ঞান ৬ষ্ঠ অধ্যায় সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর 

সৃজনশীল প্রশ্ন ১ : অক্ষিগোলক তিনটি স্তরে গঠিত। এগুলো হলো : ১. স্ক্লেরা, ২. কোরয়েড এবং ৩. রেটিনা।

ক. শ্রবণ ইন্দ্রিয় কী?
খ. জিহ্বার কাজ কী? ব্যাখ্যা করো।
গ. উদ্দীপকের ২য় স্তরটির গঠন ব্যাখ্যা করো।
ঘ. উদ্দীপকের ৩য় স্তরটির গুরুত্ব ব্যাখ্যা করো।

প্রশ্নের উত্তর

ক. শ্রবণ ইন্দ্রিয় হলো কান যার সাহায্যে আমরা শব্দ শুনতে পাই।

খ. জিহ্বা আমাদের স্বাদ ইন্দ্রিয়। জিহ্বা দিয়ে প্রধানত আমরা খাদ্যের স্বাদ গ্রহণ করি। এছাড়া জিহ্বার আমাদেরকে খাদ্যবস্তু চিবাতে, লালার সাথে মিশ্রিত করতে এবং গিলতে সাহায্য করে। জিহ্বা আমাদের কথা বলতেও সাহায্য করে।

গ. অক্ষিগোলকের ২য় স্তরটি হলো কোরয়েড। কোরয়েড স্তরটি স্ক্লেরা স্তরের নিচে অবস্থিত। এটা একটা ঘন রঞ্জিত পদার্থের স্তর। এখানে বহু রক্তনালি প্রবেশ করে। এ স্তরে আইরিশ নামক কালো গোলাকার পর্দা থাকে। আইরিশের মাঝখানে পিউপিল নামক ছোট ছিদ্র থাকে। আইরিশ পেশি দিয়ে তৈরি।

এ পেশিগুলো সংকুচিত ও প্রসারিত হতে পারে যার ফলে পিউপিল ছোট বড় হতে পারে। এর ফলে আলোকরশ্মি রেটিনায় প্রবেশ করে। পিউপিলের পেছনে একটি দ্বি-উত্তল লেন্স থাকে যার মাঝখানে প্রশস্ত আর দুই পার্শ্ব সরু। লেন্সটি বিশেষ এক ধরনের সিলিয়ারি পেশি দ্বারা আটকানো থাকে। এ পেশিগুলো সংকুচিত ও প্রসারিত হয়ে লেন্সের আকৃতি পরিবর্তন করতে পারে।

ঘ. উদ্দীপকের ৩য় স্তর অর্থাৎ অক্ষিগোলকের ৩য় স্তরটি হলো রেটিনা। রেটিনা আমাদের চোখের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এটি অক্ষিগোলকের সবচেয়ে ভিতরের স্তর। রেটি একটি আলোক সংবেদি স্তর। কোন বস্তু থেকে আসা আলোকরশ্মি রেটিনায় প্রবেশ করার ফলে বস্তুটির প্রতিবিম্ব তৈরি হয়। যার ফলে আমরা দেখতে পাই।

রেটিনায় বড় ও কোন নামে দুই ধরনের কোষ রয়েছে যা কম ও বেশি আলোতে কোন বস্তুকে দেখতে সাহায্য করে। চোখে কর্ণিয়ার মাধ্যমে যেকোনো বস্তু থেকে আসা আলোর চোখের ভিতর প্রবেশ করলেও রেটিনা না থাকলে সেই বস্তুটির প্রতিবিম্ব তৈরি হত না। ফলে আমরা দেখতে পেতাম না। তাই, আমাদের চোখের দর্শনের জন্য রেটিনার গুরুত্ব অপরিসীম ।

নিজে অনুশীলন করো

সৃজনশীল প্রশ্ন ২ : বিজ্ঞান ক্লাসে শিক্ষক ‘সংবেদি অঙ্গ’ অধ্যায়টি পড়াতে গিয়ে বোর্ডে ৩টি সংবেদি অঙ্গ অঙ্কন করে তাদেরকে A, B ও C দ্বারা চিহ্নিত করেছিলেন। তিনি প্রত্যেকটির ১টি করে প্রধান কাজ নিম্নলিখিতভাবে উল্লেখ করেছিলেন—
A : স্বাদ গ্রহণে সাহায্য করে।
B : দেখতে সাহায্য করে।
C : ঘ্রাণ নিতে সাহায্য করে।

ক. ত্বক কী?
খ. জিহ্বার মাঝখান দিয়ে আমরা কোনো জিনিসের স্বাদ অনুভব করি না কেন?
গ. A চিহ্নিত সংবেদি অঙ্গটির কাজ উল্লেখ করো।
ঘ. C চিহ্নিত সংবেদি অঙ্গ কীভাবে তার প্রধান কাজটি সম্পন্ন করে– বিশ্লেষণ করো।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৩ : ফরহাদ বেশ কিছুদিন ধরে কারও কথায় কোনো সাড়া দিচ্ছে না। চিন্তিত মা-বাবা তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যায়। ডাক্তার দেখেন তার শ্রবণ ইন্দ্রিয়ে পানি জমে ক্ষত সৃষ্টি হয়েছে। ডাক্তার প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেন এবং অঙ্গটির প্রতি যত্নশীল হতে বলেন।

ক. কোথায় রড এবং কোন নামক দুই ধরনের কোষ রয়েছে?
খ. আমরা কীভাবে চোখের সাহায্যে আলোকিত বস্তুকে দেখতে পাই?
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত অঙ্গটির অন্তঃগঠন অঙ্কন করে চিহ্নিত করো।
ঘ. আলোচিত ইন্দ্রিয়টির যত্ন নেওয়ার উপায় সম্পর্কে তোমার পরামর্শ তুলে ধর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৪ : রিনার খুব মিষ্টি পছন্দ। মিষ্টি দেখলে তার জিভে পানি আসে। কিছুদিন পূর্বে তার জ্বর হয়েছিল ফলে কোনো খাদ্য তার জিভে স্বাদ লাগে না।

ক. সংবেদি অঙ্গ কাকে বলে?
খ. জিহ্বার কাজগুলো লেখো।
গ. উদ্দীপকের সংবেদি অঙ্গটির গঠন ও স্বাদ অঞ্চল চিত্রসহ বর্ণনা করো।
ঘ. রিনার সংবেদি অঙ্গটির যত্ন কীভাবে নিবে তোমার মতামতের পক্ষে যুক্তি দাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৫ : একটি অঙ্গ আমাদের দেহের আবরণ হিসাবে কাজ করে। এতে অবস্থিত মেলানিনের তারতম্যের কারণে মানুষের গায়ের রং ভিন্ন হয়।

ক. আইরিশ কী?
খ. জিহ্বার ভিন্ন স্থানে ভিন্ন স্বাদ অনুভবের কারণ কী?
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত অঙ্গটি কেন এতো গুরুত্বপূর্ণ?
ঘ. উল্লিখিত অঙ্গটি কয়টি স্তরে বিভক্ত? চিত্রসহ বর্ণনা করো।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৬ : সামিরের দাদির চোখের নানাবিধ সমস্যার জন্য ভাল দেখতে পাচ্ছে না। ডাক্তার চক্ষু পরীক্ষার পরামর্শ দিলেন। পরীক্ষার মাধ্যমে জানা
গেল তার চোখে ছানি ও নেত্রনালি ব্লক হয়েছে।

ক. আইরিশ কী?
খ. ত্বক আমাদের কি কাজ করে?
গ. সামিরের দাদির প্রথম রোগটি কি সমস্যা হতে পারে?
ঘ. সামিরের দাদির চোখের ২য় রোগটি সম্পর্কে তোমার মতামত ব্যক্ত করো।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৭ : আমরা চোখ দিয়ে পৃথিবীর সকল জিনিস দেখতে পাই। কান দিয়ে শব্দ শুনি এবং উদ্দীপনায় সারা দেই। এভাবে আমাদের চোখ, কান, নাক, ত্বক ও জিহ্বা বাইরের সকল খবরাখবর যোগাড় করে মস্তিষ্কে জানিয়ে দেয়।

ক. পঞ্চইন্দ্রিয় কাকে বলে?
খ. জিহ্বাকে স্বাদ ইন্দ্রিয় বলা হয় না কেন?
গ. উদ্দীপকের ইন্দ্রিয়গুলোর কাজ বর্ণনা করো।
ঘ. উদ্দীপকের অঙ্গগুলোর প্রতি কীভাবে তুমি যত্নশীল হবে? নিজের ভাষায় লেখ।

ANSWER SHEET

উপরে ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করে এই প্রশ্নের উত্তরগুলো ডাউনলোড করে নাও।

Rate this post
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment