পড়াশোনা
1 min read

বিয়োজন ধ্রুবক কাকে বলে? বিয়োজন মাত্রা (alpha) ও বিয়োজন ধ্রুবক(k)-এর মধ্যে পার্থক্য কী? ফ্লোরিনের ইলেকট্রন আসক্তি ক্লোরিন অপেক্ষা কম কেন?

Updated On :

বিয়োজন ধ্রুবক কি?

প্রতি লিটার জলীয় দ্রবণে উপস্থিত কোনো ক্ষারক বা অম্লের মোল সংখ্যার যে ভগ্নাংশ বিয়োজিত অবস্থায় থাকে তাকে ঐ ক্ষারক বা অম্লের বিয়োজন ধ্রুবক বলে।

 

বিয়োজন মাত্রা (alpha) ও বিয়োজন ধ্রুবক(k)-এর মধ্যে পার্থক্য কী?

কোন বিক্রিয়া শুরু হওয়ার কিছুক্ষন পরে দেখা যায় আর কোন উৎপন্ন হচ্ছে না। আপাতদৃষ্টিতে বিক্রিয়াটি বন্ধ মনের হলেও বিক্রিয়া চালু আছে। কিন্তু যে পরিমান উৎপন্ন হচ্ছে সেটাই পূর্বাবস্থায় ফিরে যাচ্ছে, অর্থাৎ বিক্রিয়াটি উভমুখী বা reversible হয়ে গেছে। এইরূপ অবস্থাকে equilibrium বলে। বিয়োজন র ক্ষেত্রে এই অবস্থায় যে পরিমান আয়ন উৎপন্ন হয়ে আছে সেটাকে বিয়োজন মাত্রা বলে। যে concentration ছিল তার 10% বিয়োজন হলে degree of ionization α = 0.1

বিয়োজন ধ্রুবক বা dissociation constant হচ্ছে productant ও reactant র অনুপাত।

CH3COOH + H2O ⇌ CHCOO^- + H3O^+

বিয়োজন ধ্রুবক Ka =

[ CH3COO^-] * [ H3O^+] / [ CH3COOH]*[ H2O]

অনুপাত থেকেবোঝা যায় Ka র মান যত বেশি হবে তত বেশি বিয়োজিত হবে।

উদাহরণ:

হাইড্রোজেন আয়োডাইড র 450°C

তাপমাত্রায় বিয়োজন ধ্রুবক 0.263. এর বিয়োজন মাত্রা নির্ণয় কর।

উঃ মনে করি হাইড্রোজেন আয়োডাইড র প্রাথমিক মোল সংখ্যা 1, আয়তন V এবং বিয়োজন মাত্রা বা degree of dissociation α ব্যালেন্স বিক্রিয়া

2HI ⇌ H2 + I2

প্রথমে মোল সংখ্যা 1 0 0

Equilibrium এ মোল 1–2α α α

Kdc = [ H2]*[I2]/ [ HI]^2

= (α/V*α/V)/ ( 1–2α/V)^2

= α^2/(1–2α)^2 বা

α^2/(1–2α)^2 = 0.263,

বা, α/(1–2α) =

√0.263 = 0.5128

বা, α = 0.5123 — 1.0256α,

বা, 2.0256α = 0.5128

বা, α = 0.5128/2.0256 = 0.253

 

ফ্লোরিনের ইলেকট্রন আসক্তি ক্লোরিন অপেক্ষা কম কেন?

F এর ইলেকট্রন আসক্তি Cl অপেক্ষা কম। এর কারণ ফ্লোরিন পরমাণুর আকার ক্ষুদ্র। ফ্লোরিনের ইলেকট্রন বিন্যাসের সর্বশেষ শক্তিস্তর হলো দ্বিতীয় শক্তিস্তর এবং ক্লোরিনের ইলেকট্রন বিন্যাসের ক্ষেত্রে সর্বশেষ শক্তিস্তর হলো তৃতীয় শক্তিস্তর। তৃতীয় শক্তিস্তরের তুলনায় দ্বিতীয় শক্তিস্তরের আকার ছোট হওয়ায় এবং ক্ষুদ্র পরিসরে সাতটি ইলেকট্রন থাকায় তাতে ইলেকট্রন মেঘের ঘনত্ব তুলনামূলকভাবে অনেক বেশি। ফলে আগমনকারী ইলেকট্রনের প্রতি দ্বিতীয় শক্তিস্তরের ইলেকট্রনসমূহের পাস্পারিক বিকর্ষণ বেশি হওয়ায় সামগ্রিকভাবে F এর ইলেকট্রন আসক্তির মান Cl অপেক্ষা কম হয়।

 

 

 

শেষ কথা:

আশা করি আপনাদের এই আর্টিকেলটি পছন্দ হয়েছে। আমি সর্বদা চেষ্টা করি যেন আপনারা সঠিক তথ্যটি খুজে পান। যদি আপনাদের এই “বিয়োজন ধ্রুবক কাকে বলে? ফ্লোরিনের ইলেকট্রন আসক্তি ক্লোরিন অপেক্ষা কম কেন?” আর্টিকেলটি পছন্দ হয়ে থাকলে, অবশ্যই ৫ স্টার রেটিং দিবেন।

5/5 - (34 votes)