সমাজ বলতে মূলত এমন এক দল লোককে বোঝায় যারা একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের মাঝে বসবাস করে এবং সবাই একই সংস্কৃতি মেনে চলে। এক কথায় বলা যায়, পরস্পর নির্ভরশীল জনগোষ্ঠীকে সমাজ বলে।

অর্থাৎ, সমাজ এমন গ্রুপের লোকদের বর্ণনা করে যারা একটি নির্দিষ্ট অঞ্চলে থাকে এবং একে অপরের সাথে যোগাযোগ করে এবং একই সংস্কৃতি মেনে চলে।

সমাজ সম্পর্কে বিভিন্ন মনীষীগণ বিভিন্ন কথা বলেছেন। এর কয়েকটি নিম্নে দেওয়া হলো–
সমাজবিজ্ঞানী ম্যাকাইভার বলেন, “সামাজিক সম্পর্কের পূর্ণাঙ্গ রূপই হলো সমাজ।”

সমাজবিজ্ঞানী জিসবার্ট বলেছেন, “সমাজ হলো সামাজিক সম্পর্কের একটি জটিল জাল- যে সম্পর্কের মাধ্যমে প্রত্যেক মানুষ তার সঙ্গীদের সাথে সম্পর্কযুক্ত থাকে।”

গিডিংস বলেন, “সমাজ হলো স্বাভাবিকভাবে বিকশিত একটি সচেতন মানবগোষ্ঠী যেখানে তাদের পারস্পরিক সচেতন আলোচনা একটি সুনির্দিষ্ট সম্পর্কে পর্যবসিত হয় এবং কালক্রমে উহা একটি স্থায়ী ও জটিল সংগঠনে দৃঢ়বদ্ধ হয়।”

সমাজবিজ্ঞানী ম্যাকাইভার এবং পেইজ তাদের Society নামক গ্রন্থে বলেছেন, ” Society is a system of social relationships in and through which we live.”

সমাজবিজ্ঞানী কিম্বল ইয়ং বলেছেন, “সমাজ হলো সামাজিক সম্পর্কের নিয়ন্ত্রণে ব্যক্তিবর্গের সাধারণ পরিচিতি।”

এছাড়াও আরও বিভিন্ন সমাজবিজ্ঞানী সমাজ নিয়ে বিভিন্নভাবে সংজ্ঞা দিয়েছেন।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x