পড়াশোনা
1 min read

পঞ্চম অধ্যায় : কৃষিজ উৎপাদন, অষ্টম শ্রেণির কৃষি শিক্ষা

প্রশ্ন-১। মিঠা ও লোনা পানিতে কত প্রজাতির চিংড়ি পাওয়া যায়?
উত্তরঃ মিঠা ও লোনা পানিতে ৬৭ প্রজাতির চিংড়ি পাওয়া যায়।

প্রশ্ন-২। গরু পালন পদ্ধতি কয়টি?
উত্তরঃ গরু পালন পদ্ধতি হচ্ছে ৩ টি।

প্রশ্ন-৩। একটি রাক্ষুসে মাছের নাম লেখো।
উত্তরঃ একটি রাক্ষুসে মাছ হলো শোল।

প্রশ্ন-৪। গরু কোন জাতের খাদ্য বেশি পরিমাণ খায়?
উত্তরঃ গরু জাবরকাটা প্রাণী হওয়ায় আঁশ জাতীয় খাদ্য বেশি পরিমাণ খায়।

প্রশ্ন-৫। তড়কা রোগ কি?
উত্তরঃ তড়কা রোগ হলো গবাদিপশুর ব্যাকটেরিয়াজনিত একটি সংক্রামক রোগ।

প্রশ্ন-৬। মিশ্র চাষ কাকে বলে?
উত্তরঃ রাক্ষুসে স্বভাবের নয়, খাদ্য নিয়ে প্রতিযোগিতা করে না, জলাশয়ের বিভিন্ন স্তরে বাস করে এবং বিভিন্ন স্তরের খাবার গ্রহণ করে- এসব গুণের কয়েক প্রজাতির মাছ একই পুকুরে একত্রে করাকেই মিশ্র চাষ বলে।

প্রশ্ন-৭। উদ্যান ফসল কী?
উত্তরঃ যে সকল ফসল সাধারণত কম বা ছোট জমিতে অর্থাৎ উদ্যানে বা বাগানে স্বল্প পরিসরে বন্যামুক্ত উঁচু এলাকায় চাষ করা হয় সেগুলোই হলো উদ্যান ফসল।

প্রশ্ন-৮। সংক্রামক রোগ কী?
উত্তরঃ যে সকল রোগ রোগাক্রান্ত পশু হতে সুস্থ পশুর দেহে সংক্রমিত হয় তাই সংক্রামক রোগ।

প্রশ্ন-৯। মাশরুম কি?
উত্তরঃ মাশরুম এক ধরনের মৃতজীবী ছত্রাকের ফলন্ত অঙ্গ যা মানুষের খাওয়ার উপযোগী। এটি অত্যন্ত পুষ্টিকর, সুস্বাদু ও ঔষধিগুণসম্পন্ন। মাশরুম চাষে কম পুঁজি, কম শ্রম দরকার হয় বলে ব্যবসায়িকভাবে লাভজনক।

প্রশ্ন-১০। গম আবাদের স্বল্প চাষ কী?
উত্তরঃ ধান কাটার পর জমিতে জো আসার সাথে সাথে দেশি লাঙল দিয়ে দুটি চাষ দেওয়ার পর গম বীজ বপন করে আবাদ করার পদ্ধতিকে স্বল্প চাষে গম আবাদ বলে।

প্রশ্ন-১১। বিদেশি কার্প কী?
উত্তরঃ কর্মবর্ধমান মাছের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে অধিক উৎপাদনের পুকুর, নালা, খালবিল ও জলাশয়ে চাষযোগ্য ভিন্ন দেশ থেকে নিয়ে আসা কার্প জাতীয় মাছকে বিদেশি কার্প বলে।

প্রশ্ন-১২। রাক্ষুসে মাছ কাকে বলে?
উত্তরঃ পুকুরে যে সকল মাছ অন্য মাছকে খেয়ে ফেলে তাদেরকে রাক্ষুসে মাছ বলে ।

প্রশ্ন-১৩। মৎস্য ও মৎস্যজাত পণ্যের রপ্তানি আয়ের শতকরা কত ভাগ আসে হিমায়িত চিংড়ি থেকে?
উত্তরঃ মৎস্য ও মৎস্যজাত পণ্যের রপ্তানি আয়ের শতকরা প্রায় ৮০ ভাগ আসে হিমায়িত চিংড়ি থেকে।

প্রশ্ন-১৪। সুষম খাদ্য কাকে বলে?
উত্তরঃ যে খাদ্য পশুর প্রয়োজনীয় খাদ্য উপাদানসমূহ সঠিক পরিমাণে তাকে সুষম খাদ্য বলে।

প্রশ্ন-১৫। পরজীবী কাকে বলে?
উত্তরঃ যেসব ক্ষুদ্রপ্রাণী বড় প্রানীর দেহে আশ্রয় নেয় তাদেরকে পরজীবী বলে।

প্রশ্ন-১৬। আশঁ জাতীয় ফসল কাকে বলে?
উত্তরঃ যেসব উদ্ভিদ থেকে আশঁ উৎপাদন করা হয় তাকে আশঁ জাতীয় ফসল বলে।

প্রশ্ন-১৭। খুরা রোগ কী?
উত্তরঃ খুরা রোগ ভাইরাজনিত সংক্রামক রোগ যাতে আক্রান্ত পশুর খুরায়, মুখে ও জিহ্বায় ফোস্কার মতো দেখা যায় এবং লাল, খাদ্যদ্রব্য ও বাতাসের মাধ্যমে সুস্থ প্রাণীরা এ রোগে সংক্রামিত হয়।

প্রশ্ন-১৮। জলাতঙ্ক কি?
উত্তরঃ জলাতঙ্ক হলো গবাদিপশুর ভাইরাসজনিত একটি  রোগ।

প্রশ্ন-১৯। গুদাম ঘর কাকে বলে?
উত্তরঃ যে ঘর বা কক্ষে সংগৃহীত ফসল রাখা হয় তাকে গুদাম ঘর বলে।

মাছের মিশ্র চাষের একটি সুবিধা ব্যাখ্যা করো।
উত্তরঃ মিশ্র চাষের একটি সুবিধা হলো মাছ পুকুরের বিভিন্ন স্তরে থাকে ও বিভিন্ন স্তরের খাবার খায়। যেমন- কাতলা পুকুরের উপরের স্তরের, রুই মধ্য স্তরের ও মৃগেল নিচের স্তরের খাবার খায়। ফলে সব স্তরের খাবারের সদ্ব্যবহার হয় এবং খাবার পচে পুকুরের পরিবেশ নষ্ট হয় না।

গলদা চিংড়ি ও বাগদা চিংড়ির মধ্যে পার্থক্য লেখো।
উত্তরঃ গলদা চিংড়ি ও বাগদা চিংড়ির মধ্যে পার্থক্য নিচে দেওয়া হলো—
গলদা চিংড়ি
১। মিঠা পানির চিংড়ি প্রজাতি হচ্ছে গলদা।
২। গলদা চিংড়ির মাথা ও দেহ প্রায় সমান।
৩। গলদা অন্য মাছের সাথে মিশ্রচাষ করা যায়।

বাগদা চিংড়ি
১। লোনাপানির প্রজাতি হচ্ছে বাগদা।
২। বাগদা চিংড়ির মাথার তুলনায় দেহ ছোট।
৩। বাগদা অন্য মাছের সাথে মিশ্রচাষ করা যায় না।

4.7/5 - (13 votes)