পড়াশোনা
1 min read

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক প্রশ্ন ও উত্তর (পর্ব-১৫)

প্রশ্ন-১। বিশ্বগ্রামের মেরুদণ্ড কোনটি?

উত্তরঃ নেটওয়ার্ক বা কানেক্টিভিটি।

প্রশ্ন-২। ফটোডিটেক্টর এর কাজ কি?

উত্তরঃ বিদ্যুৎ শক্তিকে আলোক শক্তিতে রূপান্তরিত করা।

প্রশ্ন-৩। ভার্চুয়াল রিয়েলিটিতে কি ধরনের ইমেজ তৈরি হয়?

উত্তরঃ ত্রিমাত্রিক।

প্রশ্ন-৪। রেজিস্টার কি দিয়ে তৈরি করা হয়?

উত্তরঃ ফ্লিপ ফ্লপ।

প্রশ্ন-৫। মোবাইল ফোন টেকনোলজিতে এন্টেনাসহ ছোট অফিসকে কী বলে?

উত্তরঃ বেস স্টেশন।

প্রশ্ন-৬। কোন উপাদানটি Global village এর ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ?

উত্তরঃ ইন্টারনেট।

প্রশ্ন-৭। মডেম কোন ধরনের ডিভাইস?

উত্তরঃ মডেম একটি ইনপুট ডিভাইস।

প্রশ্ন-৮। তৃতীয় প্রজন্মের মোবাইল ফোনের বৈশিষ্ট্য কি কি?

উত্তরঃ তৃতীয় প্রজন্মের মোবাইল ফোনের বৈশিষ্ট্যগুলো হলো–

i) ডেটা রূপান্তরের কাজে প্যাকেট সুইচিং ও সার্কিট সুইচিং উভয় পদ্ধতির ব্যবহার।

ii) উচ্চগতিসম্পন্ন ডেটা ট্রান্সমিশন। ফলে অধিক পরিমাণ ডেটা স্থানান্তর সম্ভব হয়।

iii) নেটওয়ার্কে EDGE, GPRS এর অধিক ব্যবহার।

iv) ডেটা রেট 2 Mbps এর অধিক।

v) FOMA (Freedom of Multimedia Access) ব্যবহার করে মোবাইল ব্যাংকিং, ই-কমার্স সেবা কার্যক্রম এবং অন্যান্য ইন্টারনেটভিত্তিক সেবা চালু সম্ভব হয়।

vi) রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি W-CDMA বা UMTS স্ট্যান্ডার্ড।

vii) চ্যানেল অ্যাকসেস বা সেল সিগন্যাল এনকোডিং পদ্ধতি হলো TD-SCDMA এবং TD-CDMA।

viii) ভিডিও কলের ব্যবহার শুরু।

ix) ব্যাপক আন্তর্জাতিক রোমিং সুবিধা।

প্রশ্ন-৯। ভিডিও কনফারেন্সিং এর সুবিধা কি কি?

উত্তরঃ ভিডিও কনফারেন্সিং এর সুবিধাগুলো হচ্ছে–

  • একই জায়াগায় না এসে বিভিন্ন স্থানের একদল মানুষ সভায় অংশগ্রহণ করতে পারে।
  • ভিডিও কনফারেন্সিং-এর সাহায্যে দূর-দূরান্তে একে অপরের সাথে ছবি দেখে কথােপকথন করা যায়।
  • ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের সাহায্যে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে যেখানে যাতায়াত করা কষ্টকর সেখানে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের চিকিৎসাসেবা পৌছে দেওয়া যায়।
  • দেশে বসে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে বিদেশের বিভিন্ন উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করা যায়।
  • গবেষকদের গবেষণা সংক্রান্ত তথ্য আদান-প্রদানে বা মতবিনিময়ে ভিডিও কনফারেন্সিং ব্যবহৃত হয়।
  • ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে দেশে-বিদেশে বিভিন্ন লােকজনের সাথে বিভিন্ন ধরনের চুক্তি, মতবিনিময় ইত্যাদি কাজ ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের সাহায্যে সম্পন্ন করা যায়।

প্রশ্ন-১০। কম্পিউটার নেটওয়ার্ক এর সুবিধা কি?

উত্তরঃ কম্পিউটার নেটওয়ার্ক ব্যবহারের একটি বড় সুবিধা হলো রিসোর্স শেয়ারিং। অর্থাৎ নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত প্রিন্টার বা স্ক্যানারগুলো নেটওয়ার্কভুক্ত প্রতিটি কম্পিউটার ব্যবহার করতে পারে। এক্ষেত্রে প্রতিটি কম্পিউটারের জন্য আলাদা স্ক্যানার বা প্রিন্টারের প্রয়োজন হয় না।

প্রশ্ন-১১। বাংলাদেশের প্রথম ইন্টারনেট সার্চ ইঞ্জিন কোনটি?

উত্তরঃ বাংলাদেশের প্রথম ইন্টারনেট সার্চ ইঞ্জিন পিপীলিকা।

প্রশ্ন-১২। কম্পিউটারে ডেটা সংরক্ষণে কোন সংখ্যা পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়?

উত্তরঃ কম্পিউটারে ডেটা সংরক্ষণে বাইনারি সংখ্যা পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়।

প্রশ্ন-১৩। LTC এর মানে কি?

উত্তরঃ LTC হলো একটি ভার্চুয়াল মুদ্রা। যাকে বলা হয় Litecoin।

প্রশ্ন-১৪। অক্টাল সংখ্যা পদ্ধতির জনক কে?

উত্তরঃ অক্টাল সংখ্যা পদ্ধতির জনক সপ্তম চার্লস।

প্রশ্ন-১৫। রিলেশনাল ডেটাবেইস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম কী?

উত্তরঃ রিলেশনাল ডাটাবেজ ম্যানেজম্যান্ট সিস্টেম) RDBMS হচ্ছে পরস্পর সম্পর্কযুক্ত তথ্য এবং তথ্যগুলো পর্যালোচনা করার জন্য প্রয়োজনীয় প্রোগ্রামের সমষ্টি।

প্রশ্ন-১৬। জিগবি কি?

উত্তরঃ জিগবি হলো উচ্চস্তরের যোগাযোগ প্রটোকলগুলোর জন্য IEEE ৮০২.১৫.৫ ভিত্তিক আদর্শমানের একটি প্রযুক্তি যা কম বিদ্যুৎ শক্তির বেতার ডিভাসগুলোর মধ্যে পার্সোনাল এরিয়া নেটওয়ার্ক (PAN) তৈরিতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

প্রশ্ন-১৭। মেট্টোপলিটন এরিয়া নেটওয়ার্ক কাকে বলে?

উত্তরঃ কোনো বড় শহরের বিভিন্ন এলাকার মধ্যে বিস্তৃত কম্পিউটার সমৃহের মধ্যে স্হাপিত নেটওয়াককে মেট্টোপলিটন এরিয়া নেটওয়ার্ক বলা হয়।

প্রশ্ন-১৮। ডাটা এন্ট্রি কাকে বলে?

উত্তরঃ কোন পিডিএফ ফাইলকে ওয়ার্ড ফাইলে কনভার্ট করা, ভিডিও দেখে কোন কিছু টাইপ করা, হাতের কোন লেখা টাইপ করে পিডিএফ ও ওয়ার্ড ফাইলে কনভার্ট করা এবং কোন ওয়েবসাইটের জন্য আর্টিকেল লিখে দেওয়া ইত্যাদি কাজকে ডাটা এন্ট্রি বলে।

প্রশ্ন-১৯। IPV4 ও IPV6 এর মধ্যে পার্থক্য লিখ।

উত্তরঃ IPV4 ও IPV6 এর মধ্যে পার্থক্য নিচে উল্লেখ করা হলোঃ

  • আইপিভি 4 হল 32-বিট আইপি ঠিকানা অপরদিকে, আইপিভি 6 একটি 128-বিট আইপি ঠিকানা।
  • আইপিভি 4 একটি সংখ্যাসঙ্গিক ঠিকানা পদ্ধতি কিন্তু আইপিভি 6 একটি বর্ণানুক্রমিক ঠিকানা পদ্ধতি।
  • আইপিভি 4 বাইনারি বিটগুলি একটি বিন্দু (।) দ্বারা পৃথক করা হয় অপরদিকে, আইপিভি 6 বাইনারি বিটগুলি কোলন (:) দ্বারা পৃথক করা হয়।

প্রশ্ন-২০। ফরমেটেড রিপোর্টের অংশগুলো কী কী?

উত্তরঃ ফরমেটেড রিপোর্টের বিভিন্ন অংশ। যেমন-

  • Report Header
  • Page Header
  • Detail
  • Page Footer
  • Report Footer
Rate this post