প্রশ্ন-১। পরিবেশ দূষণের উৎস কী?

উত্তরঃ যেসব কারণ পরিবেশের ক্ষতি করে সেগুলোই পরিবেশ দূষণের উৎস। যেমন- বায়ুদূষণের উৎস শিল্পকারখানা, যানবাহন, ইটের ভাটা ইত্যাদি। পানি দূষণের উৎস রাসায়নিক সার, কীটনাশক, কলকারখানার বর্জ্য। আবার মাটি দূষণের উৎস পস্নাস্টিক, পলিথিন ইত্যাদি।

প্রশ্ন-২। মানুষের দ্বারা পরিবেশ ধ্বংসের দুটি উল্লেখযোগ্য কারণ লেখ।

উত্তরঃ মানুষের দ্বারা পরিবেশ ধ্বংসের দুটি উল্লেখযোগ্য কারণ হলো-

১। প্রয়োজনীয় খাদ্য উপাদান ও ২। প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণ।

প্রশ্ন-৩। মাটি দূষণের দু’টি কারণ লিখ।

উত্তরঃ মাটি দূষণের দু’টি কারণ নিচে দেওয়া হলো-

ক. মাটিতে বর্জ্য ও আবর্জনা অধিক পরিমাণে বেড়ে গেলে তা পচানোর ক্ষমতা থাকে না। এতে মাটি দূষিত হয়।

খ. প্লাস্টিক ও পলিথিনের ব্যাগ মাটিতে কখনও মিশে না ও পচেও না। এগুলা মাটির উর্বরতা নষ্ট করে।

প্রশ্ন-৪। বায়ুদূষণের প্রধান কারণ কী?

উত্তরঃ বায়ুদূষণের প্রধান কারণ হলো যানবাহন ও কলকারখানার ধোঁয়া।

প্রশ্ন-৫। দুটি জীবাশ্ম জ্বালানির নাম লেখ।

উত্তরঃ দুটি জীবাশ্ম জ্বালানির নাম হলো- ১। প্রাকৃতিক গ্যাস ও ২। কয়লা।

প্রশ্ন-৬। বায়ুদূষণের ফলে মানুষ কী রোগে আক্রান্ত হচ্ছে?

উত্তরঃ বায়ুদূষণের ফলে মানুষ ফুসফুসের ক্যান্সার, শ্বাসজনিত রোগসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।

প্রশ্ন-৭। দু’টি পানিবাহিত রোগের নাম লিখ।

উত্তরঃ দু’টি পানিবাহিত রোগের নাম হলো- কলেরা ও ডায়রিয়া।

প্রশ্ন-৮। মাটি দূষণের দুটি কারণ লেখ।

উত্তরঃ মাটি দূষণের দুটি কারণ হলো-

১। কৃষিকাজে ব্যবহৃত সার ও কীটনাশক।

২। গৃহস্থালি ও হাসপাতালের বর্জ্য।

প্রশ্ন-৯। বায়ুদূষণের তিনটি উৎসের নাম লিখ।

উত্তরঃ বায়ুদূষণের তিনটি উৎস হলো- যানবাহন, কলকারখানা, ইটভাটা।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x