পড়াশোনা

একবিংশ অধ্যায় : ওয়্যারিং টেস্টিং

1 min read

প্রশ্ন-১. সুইচ ফেজ তারে লাগানো হয়েছে কীনা তা কোন পরীক্ষার মাধ্যমে জানা যাবে?

উত্তর : পোলারিটি পরীক্ষার মাধ্যমে।

প্রশ্ন-২. ফেজ তার কীভাবে সনাক্ত করা যায়?

উত্তর : ফেজ তার টেস্ট ল্যাম্পের বা নিয়ন টেস্টার এর সাহায্যে সনাক্ত করা যায়।

প্রশ্ন-৩. আর্থ টেস্ট করার যন্ত্রের নাম কী?

উত্তর : মেগার অথবা মাল্টিমিটার।

প্রশ্ন-৪. ওয়্যারিং এর ইনসুলেশন টেস্টে লোড খোলা থাকে, না লাগানো থাকে?

উত্তর : ওয়্যারিং এর ইনসুলেশন টেস্টে লোড খোলা থাকে।

প্রশ্ন-৫. বৈদ্যুতিক রেগুলেশন অনুযায়ী সর্বোচ্চ আর্থ রেজিস্ট্যান্স কত হয়?

উত্তর : বাসা বাড়ির জন্য সর্বোচ্চ 5Ω এবং পাহাড়ি এলাকার জন্য সর্বোচ্চ 5-8Ω পর্যন্ত গ্রহণযোগ্য।

প্রশ্ন-৬. প্রচলিত রেগুলেশন অনুযায়ী নিম্নতম ইনসুলেশন রেজিস্ট্যান্স কত হয়?

উত্তর : 0.5 MΩ এর কম হতে পারবে না।

প্রশ্ন-৭. আর্থিং ভালো অর্থ রেজিস্ট্যান্স কম না বেশি?

উত্তর :  আর্থিং রেজিস্ট্যান্স কম হওয়া ভালো।

প্রশ্ন-৮. কন্ডুইট ওয়্যারিং (Conduit wiring) কাকে বলে?

উত্তর : যে ওয়্যারিং কন্ডুইট-এর ভিতর দিয়ে টানা হয় তাকে কন্ডুইট ওয়্যারিং (Conduit wiring) বলে। সমস্ত মাঝারি ভোল্টেজ (400/440) ইন্সটলেশনে, সর্বসাধারণের জমায়েত স্থান (যেমন: সিনেমা হল, অডিটোরিয়াম), মিল, ওয়ার্কশপ প্রভৃতি স্থানে কন্ডুইট ওয়্যারিং করা বাধ্যতামূলক। এছাড়া স্যাঁতস্যাঁতে জায়গা, কামারশালা, কোল্ডস্টোরেজ- যেখানে আগুন লাগার সম্ভাবনা সেখানে কন্ডুইট ওয়্যারিং করা হয়

Rate this post
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment