ভূপৃষ্ঠের শীত ও উষ্ণতার তারতম্য অনুসারে বিভিন্ন সময়ে ঋতুর পরিবর্তন ঘটে থাকে, একে ঋতু পরিবর্তন বলে। ঋতু পরিবর্তন অনুযায়ী সারা বছরকে প্রধানত চারটি ভাগে ভাগ করা যায়। যথাঃ গ্রীষ্ম, শরৎ, শীত ও বসন্ত।

ঋতু পরিবর্তনের কারণ কি?
পৃথিবীর বার্ষিক গতির জন্য ঋতু পরিবর্তন হয়। পৃথিবী সূর্যকে প্রদক্ষিণ করার সময় একপাশে একটু হেলে ঘোরে। পৃথিবীর এই হেলানো অবস্থাই ঋতু পরিবর্তনের জন্য দায়ী। উত্তর গোলার্ধ যখন সূর্যের দিকে ঝুঁকে থাকে তখন সূর্য রশ্মি অপেক্ষাকৃত খাড়াভাবে এসে এই এলাকায় পড়ে। এছাড়া হেলে থাকার জন্য উত্তর গোলার্ধ এলাকা বেশিক্ষণ ধরে সূর্যের দিকে মুখ করে থাকে। অর্থাৎ সে সময় উত্তর গোলার্ধে দিন বড় হয় এবং রাত্রি ছোট হয়। বেশিক্ষণ ধরে সূর্য রশ্মি পাওয়ার ফলে ঐ এলাকার তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায়। ফলে তখন ঐ উত্তর গোলার্ধে গ্রীষ্মকাল দেখা দেয়। এই সময় দক্ষিণ গোলার্ধে এর ঠিক উল্টো ব্যাপার ঘটে। তাই সেখানে হয় শীতকাল। এভাবে বার্ষিক গতির কারণে ঝতু পরিবর্তন ঘটে থাকে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x