পড়াশোনা

Biology (বায়োলজি) Question and Answer in Bengali for Examination (2022)

1 min read

প্রশ্ন-১. নিউক্লিয়ার ঝিল্লি কী? এটি কি কি নিয়ে গঠিত?

উত্তর : নিউক্লিয়াসকে ঘিরে রাখে যে ঝিল্লি, তাকে নিউক্লিয়ার ঝিল্লি বা কেন্দ্রিকা ঝিল্লি বলে। এটি দুই স্তর বিশিষ্ট। এই ঝিল্লি লিপিড ও প্রােটিনের সমন্বয়ে তৈরি হয়। এই ঝিল্লিতে মাঝে মাঝে কিছু ছিদ্র থাকে, যেগুলােকে নিউক্লিয়ার রন্দ্র বলে। এই ছিদ্রের ভিতর দিয়ে নিউক্লিয়াস এবং সাইটোপ্লাজমের মধ্যে কিছু বস্তু চলাচল করে। নিউক্লিয়ার ঝিল্লি সাইটোপ্লাজম থেকে নিউক্লিয়াসের অন্যান্য বস্তুকে পৃথক রাখে এবং বিভিন্ন বস্তুর চলাচল নিয়ন্ত্রণ করে।

প্রশ্ন-২. নিউক্লিয়াস কাকে বলে?

উত্তর : কোষের সাইটোপ্লাজমে আবরণবেষ্টিত এবং ক্রোমোজম সমন্বিত গোলাকার বড় অংশটিকে নিউক্লিয়াস বলে।

প্রশ্ন-৪. রাইবোজোম কি?
উত্তর : রাইবোজোম হলো ঝিল্লিবিহীন একটি কোষীয় অঙ্গাণু যা প্রোটিন তৈরি করে এবং কোষের প্রয়োজনে বিভিন্ন এনজাইম সরবরাহ করে।

প্রশ্ন-৫. প্রকৃত কোষ কত প্রকার? ব্যাখ্যা কর।
উত্তর : যে সকল কোষে সুগঠিত নিউক্লিয়াস থাকে তাকে প্রকৃত কোষ বলে। প্রকৃত কোষ দুই প্রকার।
দেহ কোষ : এরা বহুকোষী জীবের দেহ গঠন করে।
জনন কোষ : যৌন জনন সম্পর্কিত কাজ সম্পন্ন করে থাকে।

প্রশ্ন-৬. প্লাজমােডেসমা কী?
উত্তর : পাশাপাশি অবস্থিত কোষগুলাে কোষপ্রাচীরের সূক্ষ ছিদ্রের ভেতর দিয়ে প্রােটোপ্লাজমের সুতার মতাে যে অংশ দিয়ে যুক্ত থাকে তার নাম প্লাজমােডেসমা।

প্রশ্ন-৭. মাইক্রোভিলাই কী?
উত্তর : কোন কোন প্রাণিকোষের মুক্ত প্রান্ত থেকে সূক্ষ্ম আঙ্গুলের মতাে যে অভিক্ষেপ বের হয় তাদের নাম মাইক্রোভিলাই। এরা শােষণ ও ক্ষরণতলের বৃদ্ধি ঘটায়।

প্রশ্ন-৮. টোনােপ্লাস্ট কী?
উত্তর : উদ্ভিদকোষের কোষগহ্বর বেষ্টনকারী ঝিল্লি। এর গঠন কোষঝিল্লির অনুরূপ।

প্রশ্ন-৯. RNA কী?
উত্তর : জীবকোষের একধরনের নিউক্লিক এসিডঃ রাইবাে-নিউক্লিক এসিড। RNA অণু একতন্ত্রী (DNA – অণু দ্বিতন্ত্রী) এবং এর শর্করা রাইবােজ জাতীয় (DNA – তে ডিঅক্সিরাইবােজ)।

প্রশ্ন-১০. অধরক্ষণশীল রেপ্লিকেশন বলতে কী বোঝায়?
উত্তর : যখন রেপ্লিকেশনে সৃষ্ট দুটি DNA – এর প্রতিটিতেই একটি করে পুরনাে সূত্র এবং একটি করে নতুন সূত্র সংশ্লেষিত হয় তখন তাতে অর্ধরক্ষণশীল রেপ্লিকেশন বলে।

প্রশ্ন-১১. ট্রান্সক্রিপশন কাকে বলে?
উত্তর : প্রােটিন সংশ্লেষের আগে কোষের নিউক্লিয়াসের ভেতর DNA অণুর একটি সূত্রককে ছাঁচ হিসেবে কাজে লাগিয়ে যে প্রক্রিয়ায় mRNA সূত্রের অণুলিপিকরণ ঘটে তাকে ট্রান্সক্রিপশন বলে।

প্রশ্ন-১২. DNA কি?
উত্তর : ক্রোমোজোমের প্রধান উপাদান হল DNA বা ডিঅক্সিরাইবোনিউক্লিক এসিড (Deoxyribonucleic acid)। DNA ক্রোমোজোমের একটি স্থায়ী পদার্থ।
প্রশ্ন-১৩. ToMV কি?
উত্তর : ToMV হচ্ছে টমেটো মোজাইক ভাইরাস যা টমেটো উদ্ভিদে মোজাইক রোগ সৃষ্টি করে।
প্রশ্ন-১৪. স্ব-পরাগায়ন কাকে বলে?
উত্তর : একই ফুলে বা একই গাছের ভিন্ন দুটি ফুলের মধ্যে যখন পরাগায়ন ঘটে তখন তাকে স্ব-পরাগায়ন বলে। যেমন : সরিষা, কুমড়া, ধুতুরা ইত্যাদি উদ্ভিদে স্ব-পরাগায়ন ঘটে।
প্রশ্ন-১৫. অক্সিন (Auxin) কি?
উত্তর : অক্সিন একটি ফাইটোহরমোন। এর প্রয়োগে শাখা কলমে মূল গজায়, ফলের অকাল ঝরে পড়া রোধ হয়।
প্রশ্ন-১৬. নীশ কী?
উত্তর : কোন নির্দিষ্ট বাস্তুতন্ত্রে কোন জীবের নির্দিষ্ট সম্পরক বা ভূমিকাকে নীশ বলে।
প্রশ্ন-১৭. কঙ্কালতন্ত্র কী?
উত্তর : যে অঙ্গতন্ত্র দেহের মূল কাঠামো তৈরি করে, নরম অঙ্গগুলো সংরক্ষণ করে, রক্তকণিকা উৎপন্ন করে এবং পেশি সংযোজনের জন্য উপযুক্ত স্থান তৈরি করে তারই নাম কঙ্কালতন্ত্র।
প্রশ্ন-১৮. বিবর্তন বা জৈব অভিব্যক্তি কাকে বলে?
উত্তর : মন্থর ও প্রতিনিয়ত পরিবর্তনের মাধ্যমে সরলদেহী জীব থেকে জটিল জীবের আত্মপ্রকাশকে বিবর্তন বলে।
প্রশ্ন-১৯. সেন্ট্রাম বা ভার্টিব্রাল বডি কি?
উত্তর : সেন্ট্রাম বা ভার্টিব্রাল বডি কশেরুকার বৃহত্তম ও সম্মুখস্থ স্থুল অংশ যা দেখতে ডিম্বাকার রডের একটি খন্ডের মতো। সেন্ট্রাম শক্ত, পুরু ও স্পঞ্জি অস্থিতে গঠিত।
প্রশ্ন-২০. ফটোলাইসিস কি?
উত্তর : সালোকসংশ্লেষণের আলোক পর্যায়ে সূর্যালোক ও ক্লোরোফিলের সহায়তায় পানি বিয়োজিত হয়ে অক্সিজেন, হাইড্রোজেন ও ইলেকট্রন উৎপন্ন হয়। এই প্রক্রিয়াই হলো ফটোলাইসিস।
প্রশ্ন-২১. কয় ধরনের পেশি নিয়ে পেশিতন্ত্র গঠিত এবং এগুলো কী কী?
উত্তর : তিন ধরনের পেশির সমন্বয়ে পেশিতন্ত্র গঠিত, সেগুলো হল ঐচ্ছিক পেশি, অনৈচ্ছিক পেশি, হৃদপেশি।
প্রশ্ন-২২. অগ্ন্যাশয় কী?
উত্তর : অগ্ন্যাশয় হলো মেরুদণ্ডী প্রাণীদের পরিপাক ও অন্তঃক্ষরা তন্ত্রের অন্তর্গত একটি মিশ্র গ্রন্থি।
প্রশ্ন-২৩. প্রজনন কাকে বলে?
উত্তর : যে প্রক্রিয়ায় কোনো জীব তার বংশধর সৃষ্টি করে তাকে প্রজনন বলে।
প্রশ্ন-২৪. পতঙ্গ পরাগী উদ্ভিদ কাকে বলে?
উত্তর : পতঙ্গের মাধ্যমে যেসব উদ্ভিদে পরাগায়ন ঘটে তাদের পতঙ্গ পরাগী উদ্ভিদ বলে। এ উদ্ভিদের ফুলগুলো আকারে বড় হয়।
প্রশ্ন-২৫. স্ত্রীস্তবকের কাজ কী?
উত্তর : স্ত্রীস্তবকের গর্ভাশয়ের অভ্যন্তরে ডিম্বক থাকে। এই ডিম্বকের মধ্যে স্ত্রী প্রজননকোষ বা ডিম্বাণু সৃষ্টি হয়। অর্থাৎ ডিম্বাণু উৎপন্ন করাই স্ত্রীস্তবকের প্রধান কাজ।
প্রশ্ন-২৭. আবরণী টিস্যু কী?
উত্তর : যে টিস্যুর কোষগুলো ঘন সন্নিবেশিত এবং একটি ভিত্তি পর্দার উপর বিন্যস্ত থাকে তাকে আবরণী টিস্যু বলে। অন্যভাবে বলা যায়, যে টিস্যু বিভিন্ন অঙ্গের আবরণ হিসেবে কাজ করে তাকে আবরণী টিস্যু বলে।
প্রশ্ন-২৮. রেচনতন্ত্র কাকে বলে?
উত্তর : যে তন্ত্র রেচন কাজে সাহায্য করে তাকে রেচনতন্ত্র বলে।

প্রশ্ন-২৯. লোমকূপ কাকে বলে?
উত্তর : মানবদেহের বহিরাবরণ বা ত্বকে অসংখ্য ক্ষুদ্র ছিদ্র থাকে। এগুলোকে লোমকূপ বলে।

প্রশ্ন-৩০. রেচন বলতে কী বুঝ?
উত্তর : রেচন বলতে দেহের বর্জ্য পদার্থ নিষ্কাশন ব্যবস্থাকে বোঝায়।

প্রশ্ন-৩১. জু-প্লাংকটন কাকে বলে?
উত্তর : একটি জলজ বাস্তুসংস্থানের ভাসমান ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অণুবীক্ষণিক প্রাণীকে জু-প্লাংকটন বলে।
প্রশ্ন-৩২. কৈশিক জালিকা বলতে কি বুঝায়?
উত্তর : কৈশিক জালিকা বলতে পেশিতন্তুতে চুলের মতো অতি সূক্ষ্ম রক্তনালিকে বোঝায়।
প্রশ্ন-৩৩. পেশির কাজ কী কী?
উত্তর : ১. অঙ্গপ্রত্যঙ্গ সঞ্চালন ও চলাফেরায় সহায়তা করা।
২. দেহের নির্দিষ্ট আকার গঠন করা।
৩. শক্তির সংরক্ষণ করা।
৪. হৃদপেশি হৃৎপিণ্ডের স্পন্দন ও রক্ত সঞ্চালিত করা।
Rate this post
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment