আইন
1 min read

মৌলিক অধিকার কি?

মৌলিক অধিকার সাধারণত নাগরিকের মর্যাদা এবং সমতা রক্ষা করার জন্য তৈরি করা হয় এবং যা প্রতিটি নাগরিককে তার ব্যক্তিত্বকে পূর্ণ মাত্রায় বিকাশ করতে সহায়তা করে। অধিকাংশ দেশে, মৌলিক অধিকারসমূহকে সাংবিধানিকভাবে বলবৎ অযোগ্য করে তৈরি করা হয়। তবে, কিছু শর্তসাপেক্ষ এটি পরিবর্তন করা যায়। নিম্মে মৌলিক অধিকার কি? এর সংজ্ঞা এবং বিভিন্ন মৌলিক অধিকার সমূহের বর্ণনা করা হল।
 

মৌলিক অধিকার কি?

মৌলিক অধিকার হলো সেসব অধিকার যা কোন দেশের সংবিধান কর্তৃক স্বীকৃত এবং যা বাস্তবায়নের ব্যাপারে সাংবিধানিক নিশ্চয়তা দেওয়া হয়।
মৌলিক অধিকার হলো সংবিধানে বিধিবদ্ধ মৌলিক মানবাধিকার যা সকল নাগরিকের জন্য নিশ্চিত করা হয়েছে। এগুলো জাতি, ধর্ম, লিঙ্গ ইত্যাদির ভিত্তিতে বৈষম্য ছাড়াই প্রয়োগ করা হয়।
যখন নাগকের নির্দিষ্ট অধিকার সংবিধানে লিখিত থাকে এবং সাংবিধানিক গ্যারান্টি দ্বারা সুরক্ষিত থাকে, তখন সেগুলোকে মৌলিক অধিকার বলা হয়। এগুলোকে মৌলিক অধিকার বলা হয় এই অর্থে যে, এটি রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ বা মৌলিক আইনে স্থাপন করা হয় যা অন্যান্য সকল আইনের উপর প্রাধান্য পায়।
১৭৮৯ সালের ‘‘ফরাসি ডিক্লারেশন অফ রাইটস অফ ম্যান অ্যান্ড সিটিজেন’’, এবং ১৭৯১ সালে মার্কিন সংবিধানে অন্তর্ভুক্ত‘‘বিল অফ রাইটস’’, লিখিত সংবিধান সহ বেশিরভাগ গণতান্ত্রিক দেশে সংবিধানে মৌলিক অধিকারের জন্য একটি অধ্যায় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।
ব্রিটেনে মৌলিক অধিকারের কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা বা বিধিবদ্ধ আইন নেই। কিন্তু এর মানে এই নয় যে, ব্রিটেনে জনগণের অধিকার কম নিশ্চিত করা হয়েছে। সেখানে অধিকার এবং স্বাধীনতার সুরক্ষা সাংবিধানিক গ্যারান্টির উপর নির্ভর নয় বরং আইনের শাসন, জনমত এবং শক্তিশালী সাধারণ আইন ঐতিহ্যের উপর নির্ভর করে গড়ে ওঠেছে।
কয়েকটি মৌলিক অধিকার যেমন- সাম্যের অধিকার, স্বাধীনতার অধিকার, শোষণের বিরুদ্ধে অধিকার, ধর্মের স্বাধীনতার অধিকার, স্বাধীনভাবে চলাফেরার অধিকার, সাংস্কৃতিক ও শিক্ষার অধিকার, সম্পত্তির অধিকার এবং সাংবিধানিক প্রতিকারের অধিকার ইত্যাদি।

বাংলাদেশের সংবিধানে মৌলিক অধিকার

বাংলাদেশের সংবিধানের তৃতীয় ভাগে মৌলিক অধিকার সমূহ লিপিবদ্ধ রয়েছে। ২৬ নং অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, মৌলিক অধিকারের সঙ্গে অসামঞ্জস্যপূর্ণ কোনো আইন করা যাবে না।
আর যদি করা হয়, তবে তা স্বতঃসিদ্ধভাবে বাতিল হয়ে যাবে। এই অনুচ্ছেদ অনুসারে, মৌলিক অধিকারের পরিপন্থী পূর্বেকার সকল আইন সাংবিধানিকভাবে অবৈধ হয়ে যায়।
সংবিধানের ১০২ অনুচ্ছেদ শুধুমাত্র হাইকোর্ট বিভাগকে মৌলিক অধিকার বলবৎ করার এখতিয়ার দিয়েছে। নিম্মে বাংলাদেশ সংবিধান কর্তৃক নির্ধারিত মৌলিক অধিকারসমূহ যেমন,
  • আইনের দৃষ্টিতে সমতা
  • বৈষম্য করা যাবে না
  • সরকারী নিয়োগ-লাভে সুযোগের সমতা
  • আইনের আশ্রয়লাভের অধিকার
  • জীবন ও ব্যক্তিস্বাধীনতার অধিকার
  • গ্রেপ্তার ও আটকে রক্ষাকবচ বা সীমা
  • জবরদস্তিমূলক শ্রম নিষিদ্ধ
  • বিচার ও দন্ড সম্পর্কে রক্ষণ
  • চলাফেরার স্বাধীনতা
  • সমাবেশের স্বাধীনতা
  • সমিতি বা সংগঠনের স্বাধীনতা
  • চিন্তা, বিবেক ও বাকস্বাধীনতা
  • পেশা বা বৃত্তির স্বাধীনতা
  • ধর্মীয় স্বাধীনতা
  • সম্পত্তির অধিকার
  • গৃহ ও যোগাযোগের অধিকার
  • মৌলিক অধিকারবঞ্চিত হলে উচ্চ আদালতে রিট করার অধিকার
5/5 - (12 votes)