Tips
1 min read

মেট্রো রেলের টিকিট কাটার নিয়ম

মেট্রো রেলের টিকিট কাটার উপায় সম্পর্কে আজকে বিস্তারিত  জানব। মেট্রো রেলের টিকিট কাটার নিয়ম আমরা অনেকেই জানিনা আজকে আপনাদের দেখাব কিভাবে আপনারা খুব সহজেই মেট্রো রেলের টিকিট কাটতে পারেন কোন প্রকার সমস্যা ছাড়াই ।

আজকে আপনাদের দেখাব কিভাবে আপনারা খুব সহজেই মেট্রো রেলের টিকিট কাটতে পারেন কোন প্রকার সমস্যা ছাড়াই ।

বাংলাদেশের মেট্রোরেল চালু হয় 28 ডিসেম্বর 2022 রোজ রবিবার মেট্রো রেলে প্রথম যাত্রী হিসেবে টিকিট কাটেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা সাধারণ যাত্রীরা 29 ডিসেম্বর থেকে সর্বোচ্চ আগারগাঁও পর্যন্ত যাতায়াত করতে পারবে তবে অনেকেই জানেনা মেট্রো রেলের টিকিট  কাটার নিয়ম তো চলুন আজকে আপনাদের শেখাবো মেট্রোরেলে কিভাবে আপনারা সহজ উপায়ে টিকিট কাটতে পারেন

মেট্রোরেলের টিকিট কাটার নিয়ম

মেট্রোরেলের টিকিট কাটার নিয়ম
  • ১। প্রতিটি স্টেশনে দুই ধরনের টিকিট কাটা যাবে । টিকিট বিক্রির মেশিনের মাধ্যমে এই টিকিট খুব সহজে পাওয়া যাবে । আপনি স্টেশন কর্মীদের মাধ্যমে  মেট্রোরেলের টিকিট কাটতে পারেন ।
  • ২। মেশিনের সাধারণত দুই ধরনের ভাষা রয়েছে আপনার সুবিধামতো বাংলা কিংবা ইংরেজি ভাষা নির্বাচন করতে হবে ।
  • ৩। এরপর আপনাকে  নির্বাচন করতে হবে পার্মানেন্ট  অথবা সিঙ্গেল অপশনটি ।
  • ৪। এরপর আসবে আপনি কোথায় যেতে চাচ্ছেন স্টেশন থেকে আপনার গন্তব্যের কত ভাড়া সেটি ডিসপ্লেতে দেখাবে এবং আপনাকে সেই স্টেশন নির্বাচন করতে হবে ।
  • ৫।  ওকে বাটনে চাপ দিলেই মেশিন আপনার কাছে টাকা চাইবে এবং টাকা দিলেই সেখান থেকে আপনার কাংখিত টিকিট বেরিয়ে আসবে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় মেশিনে কিন্তু সর্বোচ্চ এক হাজার টাকা এবং সর্বনিম্ন 20 টাকা প্রবেশ করানো যায় ।
  • ৬। এরপর সেই টিকিট নিয়ে আপনাকে লাইনে দাঁড়াতে হবে এবং যখন মেট্রোরেল আসবে তখন আপনাকে লাইন থেকে সে কার্ড পাঞ্চ করে ট্রেনে উঠতে হবে ।
  • ৭। এবার আপনার গন্তব্য স্থানে আসলে আপনি টিকেটটি জমা দিয়ে বেরিয়ে আসবেন খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় টিকিট ছাড়া কোনভাবেই বের হওয়া যাবে না সেটাতে জরিমানা ভুগতে হবে

মেট্রোরেলের কয় ধরনের টিকিট পাওয়া যাবে ?

মেট্রোরেলের সাধারণত দুই ধরনের টিকিট পাওয়া যায় একটি হচ্ছে সিঙ্গেল আরেকটি হচ্ছে পার্মানেন্ট । আপনি যদি সিঙ্গেল টিকেট কেটে  থাকেন তাহলে আপনাকে আপনার নির্দিষ্ট গন্তব্যে গিয়ে টিকিট পাঞ্চ করে আপনাকে গেট থেকে বের হতে হবে । তা না হলে রেলস্টেশন থেকে বের হতে পারবেন না  ।

আর পার্মানেন্ট রয়েছে সেটি দিয়ে আপনি রিচার্জ করবেন এবং সেই রিচার্জ এর মাধ্যমে আপনি আপনার যেকোন গন্তব্যে যেতে পারেন এবং যখন রিচার্জ শেষ হয়ে যাবে তখন আপনাকে নতুন করে আবার রিচার্জ করতে হবে । এই কার্ডের জন্য  আপনার ২০০ টাকা লাগবে এবং পরে ২০০ টাকা থেকে ২,০০০ টাকা পর্যন্ত কার্ডে রিচার্জ করা যাবে ।

মেট্রোরেলের ভাড়ার তালিকা

মেট্রো রেলের টিকিট কাটার নিয়ম জেনে নিলেন এবার চলুন জেনে নেয়া যাক মেট্রোরেলের ভাড়ার তালিকা । মেট্রোরেলের প্রতি কিলোমিটার ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৫ টাকা এবং সর্বনিম্ন ভাড়া রাখা হয়েছে 20 টাকা । উত্তরা দিয়াবাড়ি (উত্তরা নর্থ স্টেশন) থেকে আগারগাঁও স্টেশন পর্যন্ত ভাড়া ঠিক করা হয়েছে ৬০ টাকা। উত্তরা নর্থ স্টেশন থেকে উত্তরা সেন্টার ও উত্তরা সাউথ স্টেশনে যেতে সর্বনিম্ন ভাড়া ওই ২০ টাকা ।

তারপর উত্তরা নর্থ থেকে পল্লবী ও মিরপুর-১১ স্টেশনের ভাড়া ৩০ টাকা, মিরপুর-১০ ও কাজীপাড়া স্টেশনের ভাড়া ৪০ টাকা , এবং শেওড়াপাড়া স্টেশনের ভাড়া ৫০ টাকা। আর পল্লবী থেকে মিরপুর-১১, মিরপুর-১০ ও কাজীপাড়া স্টেশনের ভাড়া একই, ২০ টাকা। পল্লবী থেকে শেওড়াপাড়া ও আগারগাঁও স্টেশনের ভাড়া ৩০ টাকা।

তো সবশেষে আমরা জানলাম মেট্রো রেলের টিকিট কাটার নিয়ম মেট্রো রেলের টিকিট কয় প্রকার এবং মেট্রোরেলের যাবতীয় আপডেট । এতক্ষণ পর্যন্ত আমাদের সাথে থাকার জন্য

5/5 - (46 votes)