Tips
1 min read

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

অনেকে অনলাইনে জিডি করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। আপনার যদি কোনো কিছু হারিয়ে যায় বা কেউ জীবননাশের হুমকি দেয় তাহলে আপনি ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে জিডি করতে পারবেন।

বর্তমান অনলাইনের যুগ। তাছাড়া বর্তমানের প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে মানুষের জীবনযাত্রা অনেক দুর পর্যন্ত এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

বর্তমানে আপনি অনলাইনের মাধ্যমে ঘরে বসে প্রায় সব ধরনের কাজ গুলো করতে পারবেন। আগে আপনার যদি কোনো কিছু হারিয়ে গেলে সেটা খুঁজে বের করার জন্য নিকটস্থ থানায় গিয়ে একটি জিডি করতো হতো।

তাছাড়া, থানায় ডিজির আবেদন করার জন্য আপনাকে নানা ভাবে হয়রানির শিকার হতে হয়। তাই সাধারণ মানুষকে এই হয়রানির হাত থেকে বাঁচার জন্য বাংলাদেশ সরকার অনলাইনে জিডি করার উপায় চালু করে দিয়েছে।

আপনি যদি অনলাইনে জিডি করতে চান তাহলে এর সঠিক নিয়ম সম্পর্কে জানতে হবে। আমি নিচে অনলাইনে জিডি করার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

জিডি কি? (What is GD in bangla)

জিডি বা সাধারণ ডায়রী হচ্ছে এক ধরনের আইনের সহায়তা গ্রহন করা। মনে করুন, আপনার কোনো মূল্যবান জিনিস চুরি বা হারিয়ে গেছে।

যেমন – মোবাইল, ল্যাপটপ, পাসপোর্ট, সার্টিফিকেট, দলিল, চেক বই, টাকা, এটিএম কার্ড ইত্যাদি। আপনার চুরি বা হারানো জিনিস ফিরে পাবার জন্য একটি ফরম পূরণের মাধ্যমে আইনের সহায়তা গ্রহণ করাকে জিডি বা সাধারণ ডায়রী বলে।

অনলাইনে জিডির আবেদন করার জন্য কি কি প্রয়োজন?

দেখুন অনলাইনের মাধ্যমে থানার জিডি করার উপায় খুবই সহজ। তবে, এর জন্য আপনার কিছু জিনিস বা ডকুমেন্টের প্রয়োজন হবে।

নিচে ডকুমেন্ট গুলোর নাম উল্লেখ করা হলো –

  1. আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের (NID) নাম্বার।
  2. আপনার জন্ম তারিখ।
  3. আপনার মোবাইল নাম্বার।

আপনার কাছে যদি এই তিনটি ডকুমেন্ট থাকে তাহলে আপনি ঘরে বসে অনলাইনে জিডি করতে পারবেন।

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম (Online GD Application)

ঘরে বসে অনলাইনে থানায় জিডি করার জন্য প্রথমে আপনাকে Http://gd.police.gov.bd/ এই লিংকে যেতে হবে।

এখানে গিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করতে হবে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র (NID), জন্ম এবং মোবাইল নাম্বার দিয়ে।

আমি আপনাকে পরামর্শ দিবো গুগল প্লেস্টোর থেকে Online GD অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করে রেজিষ্ট্রেশন করার জন্য। তাহলে খুব সহজে রেজিষ্ট্রেশন সম্পূর্ণ করতে পারবেন।

কিভাবে রেজিষ্ট্রেশন করবেন?

জিডি অনলাইন আবেদন রেজিষ্ট্রেশন করার জন্য আপনি কয়েকটি মাধ্যমে রেজিষ্ট্রেশন করতে পারবেন। যেমন

  • জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার দিয়ে।
  • জন্ম নিবন্ধন নাম্বার দিয়ে।
  • দেশী পাসপোর্ট দিয়ে।
  • বিদেশী পাসপোর্ট দিয়ে।

আপনি এই ৪টি মাধ্যম থেকে যে কোনো একটি মাধ্যম ব্যবহার করে রেজিষ্ট্রেশন করতে পারবেন।

  • প্রথমে Online GD অ্যাপে প্রবেশ করুন।
  • আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার এবং জন্ম তারিখ দিন।
  • এবার আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের সকল তথ্য গুলো দেখতে পাবেন।
  • এরপর আপনার ছবি এবং সাক্ষর আপলোড করতে হবে।
  • এরপর আপনার মোবাইল নাম্বার, ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনাকে দুইটি সিকিউরিটি প্রশ্নের উত্তর সেটআপ করতে হবে।
  • এরপর আপনার মোবাইল নাম্বারে চার ডিজিটের একটি কোড আসবে সেটা দিয়ে ভেরিফাই করে নিতে হবে।
  • এবার আপনার অনলাইন জিডি রেজিষ্ট্রেশন সম্পূর্ণ হয়ে গেছে।

মনে রাখবেন, আপনার জীবনে একবার মাত্র অনলাইন জিডি রেজিষ্ট্রেশন করতে পারবেন। তাই Username এবং Password কোথাও লিখে রাখবেন।

এবার আপনার চুরি বা হারানো জিনিসের বিষয় অ্যাপ থেকে সিলেক্ট করতে হবে। মনে করুন আপনার জিনিস চুরি হয়ে গেছে। তাহলে আপনি চুরি অপশনে ক্লিক করবেন।

এবার আপনার বলা হবে কি চুরি হয়ে যানবাহন বা অন্যান্য। আপনার যদি যানবাহন চুরি হয় তাহলে যানবাহনে ক্লিক করবেন। আর যদি অন্য কিছু চুরি হয় তাহলে অন্যান্য অপশনে ক্লিক করবেন।

যেহেতু আপনার মোবাইল চুরি হয়েছে, সেহেতু অন্যান্য অপশনে ক্লিক করবেন। এবার আপনাকে অনেক গুলো অপশন দেখানো হবে। সেখানে থেকে আপনার চুরি হওয়া জিনিস অপশন সিলেক্ট করুন।

এবার আপনাকে মোবাইলে বিষয় বিস্তারিত তথ্য ফরম অনুযায়ী পূরণ করতে হবে। এবার আপনি যে জিডি করছেন সেটা নিজের জন্য নাকি অন্য কারও জন্য সেটা সিলেক্ট করতে হবে।

এবার আপনার মোবাইলের বিষয় দেওয়া সকল তথ্য গুলো দেখতে পাবেন। আপনার যদি মনে হয় তথ্য এডিট (Edit) করার প্রয়োজন তাহলে উপর থেকে করতে পারবেন।

সব তথ্য সঠিক থাকলে সাবমিট অপশনে ক্লিক করলে অনলাইন জিডি সাবমিট হয়ে যাবে। এবার আপনাকে এমন একটি জিডি কোড (GYP5Y9) দেওয়া হবে। এই কোডটি সংরক্ষণ করুন।

এই জিডি কোড ব্যবহার করে আপনি অ্যাপের ড্যাশবোর্ড থেকে জিডির প্রেসেসিং গুলো দেখতে পারবেন।

কিভাবে অনলাইনে জিডি কপি ডাউনলোড করবেন?

আপনার যখন অনলাইনে জিডি করার প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়ে যাবে তখন তখন আপনি জিডি কপি পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

এই পিডিএফ ফাইল আপনি কম্পিউটার থেকে প্রিন্ট করে বের করে নিতে পারবেন। তাছাড়া Username এবং password দিয়ে অ্যাপ বা ওয়েবসাইটে লগইন করে মোবাইল নাম্বার ভেরিফাই করে অনলাইনে জিডি কপি ডাউনলোড করুন

জিডি ফরম PDF ফাইল কোথায় পাবেন

অনলাইনে জিডি করার জন্য ফরম পেতে হলে আপনাকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://dmp.gov.bd এই লিংকে যেতে হবে।

এই ওয়েবসাইটের উপরে ডান পাশে important forms বলে একটি অপশন দেখতে পাবেন। সেখানে ক্লিক করলে জিডি ফরম PDF পেয়ে যাবেন।

তাছাড়া, আপনি যদি থানায় জিডি করার ফরম নিতে চান তাহলে যে থানায় জিডি করবেন সেই থানা থেকে সংগ্রহ করতে হবে।

কিভাবে অনলাইনে জিডির বর্তমান অবস্থা যাচাই করবেন?

আপনার মনে প্রশ্ন তৈরি হতে পারে, অনলাইনে জিডি করার পরে জিডি কি অবস্থায় আছে, তদন্ত হচ্ছে কি না সেটা কিভাবে যাচাই করবেন?

আপনি যখন অনলাইনে জিডি করেছিলেন তখন আপনাকে এমন একটি কোড নাম্বার বা আইডি নাম্বার (GYP5Y9) দেওয়া হয়েছিলো।

আপনি জিডির অ্যাপ বা ওয়েবসাইটে আপনার Username এবং Password দিয়ে লগইন করে উক্ত কোড নাম্বার দিয়ে সার্চ করলে জিডির বর্তমান অবস্থা দেখতে পাবেন।

অনলাইনে জিডি করার খরচ কত?

মনে রাখবেন, অনলাইনে জিডি করতে কোনো খরচ হয় না। কিভাবে অনলাইনে জিডি করতে হয় সেই প্রক্রিয়া আমি উপরে বলে দিয়েছি।

আপনার যদি কোনো প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র হারিয়ে যায় বা কেউ যদি আপনাকে হুমকি দেয় তাহলে সম্পূর্ণ ফ্রিতে জিডি করতে পারবেন।

অনলাইনে বাদে আপনি নিকটস্থ নিজের থানায় জিডি করতে ও কোনো টাকা খরচ হয় না।

কি কি কারণে জিডি করা যায়?

  • মোবাইল, কম্পিউটার চুরি / চিনতাই / হারিয়ে গেলে।
  • গুরুত্বপূর্ণ দলিল দস্তাবেজ হারিয়ে গেলে।
  • জাতীয় পরিচয় পত্র (NID) হারিয়ে গেলে।
  • ব্যাংকের চেক বা চেকবই হারিয়ে গেলে।
  • পাসপোর্ট চুরি বা হারিয়ে গেলে।
  • সার্টিফিকেট হারিয়ে গেলে।
  • আত্মীয় স্বজনরা কেউ হারিয়ে বা নির্যাতনের শিকার হলে।
  • টাকা পয়সা, স্বর্ণ অলংকার হারিয়ে বা ছিনতাই হলে।
  • আপনাকে কেউ মেরে ফেলার হুমকি দিলে।

জিডি (GD) করার সুবিধা বা উপকারীতা

আমাদের দৈনন্দিন জীবন নানা কারণে জিডি করার প্রয়োজন পড়ে। অবশ্যই জিডি করার বিশেষ সুবিধা৷ রয়েছে। সেগুলো নিচে উল্লেখ করা হয়েছে।

  • আপনার জান-মালের সুরক্ষা নিশ্চিত করা।
  • যেকোনো সমস্যা সমাধানের জন্য পুলিশের সাহায্য পাওয়া যায়।
  • কেউ হারিয়ে বা নিখোঁজ হলে তাকে খুঁজে বের করা যায়।
  • কোনো গুরুত্বপূর্ণ কাগজ হারিয়ে গেলে খুঁজে পাওয়া বা নতুন করে তোলা যায়।
  • নাগরিকদের সেবা নিশ্চিত করা হয়।

অনলাইনে জিডি প্রত্যাহার করার উপায়

অনলাইনে জিডি করার পরে যদি জিডি প্রত্যাহার করতে চান তাহলে কিছু নিয়ম মেনে প্রত্যাহার করতে হবে।

আপনার বাদী পক্ষের সাথে যদি আপনার আপস হয়ে যায় তাহলে জিডি অবশ্যই প্রত্যাহার করে নিবেন। মামলা আপসের ক্ষেত্রে প্রত্যাহারের সুযোগ রয়েছে।

শেষ কথা

আকজে আমরা জানলাম অনলাইনে জিডি করার নিয়ম সম্পর্কে। আমি উপরে অনলাইনে জিডি করার পদ্ধতি বলেছি সেই পদ্ধতিতে জিডি করুন ঘরে বসে কোনো খরচ ছাড়ায়।

5/5 - (32 votes)