Beauty Tips

খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়

1 min read
খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়

খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠক আপনারা নিশ্চয়ই ভাল আছেন। আজ আমি আপনাদের সাথে খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায় এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করব। আপনারা যদি এই বিষয়ে কোনো রকম ইনফরমেশন পেতে চান তাহলে অবশ্যই আমাদের আজকের টি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত পড়বেন। এবং আমাদের সাথেই থাকবেন। খুশকি দীর্ঘদিন মাথায় থাকলে প্রচুর চুলকানির সৃষ্টি হয় এবং এর থেকে চুল ঝরে পড়া এবং মাথার ক্ষতস্থান তৈরি সম্ভাবনা থাকে। তাই আমাদের সকলের জানা উচিত খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়। খুশকি দূর করতে হলে অবশ্যই আমাদের এই বিষয়ে বিভিন্ন ধরনের তথ্য জানতে হবে।

একটি ব্যক্তির জীবনে চুলে খুশকি অন্যতম বড় এবং বিরক্তিকর একটি সমস্যা। খুশকি হলে মাথায় প্রচন্ড চুলকানির সাথে সাথে চুল ঝরে পড়াও সম্ভাবনা রয়েছে। আর তাই জানতে হবে চিরতরে খুশকি দূর করার উপায়। মাথার ত্বকে অতিরিক্ত এক ধরনের ফাঙ্গাস হওয়ার কারণে খুশির সমস্যা হয়ে থাকে। তাই আমরা খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায় এই বিষয়ে আপনাদের সঠিক ধারণা দিতে চলেছি। প্রাকৃতিক নিয়ম অনুযায়ী আমাদের মাথার ত্বক বা কিছু নতুন কোষ উৎপন্ন হয় এবং পুরনো গুলো ঝরে যায়। এই প্রক্রিয়াটি সাধারণত চক্র হিসেবে চলতে থাকে।

আর এই পুরনো মৃত কোষগুলো যখন ত্বকের সাথে জমে যায় এবং সাদা আশের মতো অস্তিত্ব প্রকাশ করে, আমরা তখন একে খুশকি বলে থাকি। খুশকি দীর্ঘদিন মাথায় থাকলে প্রচন্ড চুলকানি সৃষ্টি হয় এবং এর থেকে চুল ঝরে পড়া এবং মাথায় ক্ষতস্থান তৈরির সম্ভাবনা থাকে।  তাই আমাদের উচিত যথা শীঘ্র খুশকি দূর করার উপায় খুঁজে বের করা এবং সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া।

খুশকি দূর করার উপায়

খুশকি দূর করার উপায় হিসেবে বাজারে প্রচলিত প্রচুর প্রোডাক্ট থাকলেও প্রাকৃতিক কিছু নিয়ম অনুসরণ করেও আপনি কার্যকারী ফলাফল পেতে পারেন। এর ফলে আপনাকে কোন প্রকার  পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্মুখীন হতে হবে না। তাই খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায় বিভিন্ন ধরনের প্রাকৃতিক উপাদানের মধ্যে খুশকি দূর করা যায় কিছু মুহূর্তের মাধ্যমে।

নারিকেল তেল ব্যবহার করুন

একাধিক স্বাস্থ্য সুবিধার জন্য সুপরিচিত নারকেল তেল খুশকির জন্য দারুন একটি প্রাকৃতিক প্রতিক্রিয়া হিসেবে ব্যবহৃত হয়। নারকেল তেল ত্বকের হাইড্রেশন উন্নত করে এবং শুষ্কতার রোধে স্বাধীনতা করতে পারে যা খুশকি দূর করতে সহায়তা করে। ন্যাশনাল লিভারী অফ মেডিসিন এর একটি গবেষণায় দেখা গেছে নারকেল তেল ত্বকের হাইড্রেশন উন্নত করতে খনিজ তেলের মতো কার্যকর ভূমিকা রাখে। অন্যান্য গবেষণায়ও নারকেল তেলের  একজিমার চিকিৎসা সহায়তা খুঁজে পাওয়া যায়। এটি ত্বকের এমন একটি অবস্থা যা খুশকি দমনের অবদান রাখতে পারে।

অ্যালোভেরা ব্যবহার করুন

ত্বকের সুরক্ষায় অ্যালোভেরার ব্যবহার প্রাচীনকাল থেকেই হয়ে আসছে। এলোভেরা এমন একটি প্রাকৃতিক উপাদান যা আপনার রুক্ষ শুষ্ক ত্বকে সর্বোচ্চ সুবিধা দিতে পারে। এটি পুরা ,া ঘা, এবং শরিয়াসিসের মতো সমস্যাও সফলভাবে কাজ করে। আমরা আগেই জেনেছি মেসেজজিয়ান নামের এক ধরনের ফাঙ্গাস আমাদের মাথায় খুশকির উদ্ভব ঘটায়। অ্যালোভেরা এর সকল  ব্যাকটেরিয়াল এবং এন্টি ফাঙ্গাস বৈশিষ্ট্য গুলো খুশকি থেকে রক্ষা করতে পারে। একইভাবে, একটি টেস্টটিউব সমীক্ষায় দেখা গেছে যে অ্যালোভেরা বেশ কয়েকটি প্রজাতির ছাত্রীর বিরুদ্ধে কার্যকর ছিল এবং মাথার ত্বকের চুলকানির কারণ ছত্রাকের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ সহায়তা করতে পারে।

মানসিক চাপ

মানসিক চাপ স্বাস্থ্য এবং সুস্থতাকে নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত করে। এটি দীর্ঘস্থায়ী ক্রমান্বয়ে দীর্ঘ স্থায়ী হলে মানসিক স্বাস্থ্য বিপর্যস্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। খুশকি  তৈরির ক্ষেত্রে মানসিক চাপ বাট টেস্টের প্রত্যক্ষ ভূমিকা নেই। তবে এটি শুষ্কতা এবং চুলকানির মত লক্ষণগুলো বাড়িয়ে তুলতে পারে যা পরবর্তীতে খুশিতে রূপ দেখা দেয়। দীর্ঘমেয়াদী উচ্চ পর্যায়ের স্টেজ ব্যক্তির রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে দুর্বল করে।। এর ফলে আপনার শরীরে কিছু ছত্রাকের সংক্রমণ এবং ত্বকের অবস্থার সাথে লড়াইয়ের ক্ষমতা হ্রাস পায়, যা পরে খুশকির সৃষ্টি করতে পারে। আর মানসিক চাপকে খুশকির অন্যতম একটি সম্ভাব্য কারণ হিসেবে বিবেচনা করা যায়।

চা গাছের তেল ব্যবহার করুন

ঐতিহাসিক ভাবে চা গাছের তেল ব্রণ থেকে শরীর সরিয়াসিস পর্যন্ত সুস্থতার চিকিৎসার জন্য ব্যবহার হয়। এটি শক্তিশালী এন্টি মাইক্রোবিয়াল এবং এন্টি ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্যমন্ডিত। যা খুশকি লক্ষণ গুলো হ্রাস করতে সহায়তা করতে পারে । গবেষণায় বলেছে, চা গাছের তেল ছত্রাকের নির্দিষ্ট স্টেনের বিরুদ্ধে লড়াই করতে কার্যকর ভূমিকা রাখে। একটি গবেষণাকারী দল তার সপ্তাহের পরীক্ষায় চা গাছের তেল প্রতিদিন ১২৬ জনের মাথায় প্রয়োগ করে এর প্রভাব লক্ষ্য করে। দেখা যায়, চা গাছের তেল খুশকি লক্ষণ গুলো তীব্রতা 41 শতাংশ হেরাস করে এবং চুলকানি কমিয়ে দেয়। খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়  আমরা চা গাছের তেল ব্যবহার করতে পারি।

রুটিনে অ্যাপল ফিডার ভিনেগার নিন

apple সিডার ভিনেগার বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্য সুবিধার জন্য অনেক পরিচিত। এর মধ্যে রয়েছে  ইনসুলিন সংবেদনশীলতা উন্নতিকরণ এবং ওজন হেরাস বৃদ্ধি করা। অ্যাপল সিডার ভিনেগার প্রায়ই খুশকি থেকে মুক্তি পেতে প্রাকৃতিক প্রতিকার হিসেবে কাজ করে। তাই আমরা খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায় অ্যাপেল ফিডার ভিনেগার ব্যবহার করতে পারি। একটি টেস্টটিউব সমীক্ষায় দেখা গেছে যে অ্যাপল সিডার ভিনেগার এবং এর যৌগগুলো নির্দিষ্ট ধরনের ছত্রাকের বৃদ্ধি প্রতিরোধ করতে পারে।

ভিনেগারের অলমতা মাথার ত্বকের মৃত ত্বকের কোষ গুলো দ্রুত ঝরে পড়তে সহায়তা করে। এটি ছত্রাকের বৃদ্ধি কমাতে ত্বকের পি এইচ বজায় রাখে এবং এভাবে খুশকির সাথে লড়াই করে। ভিনেগার ব্যবহার করে দেখতে চান তাহলে আপনার শ্যাম্পুতে কয়েক টেবিল চামচ যুক্ত করতে পারেন। অথবা এটি অন্যান্য প্রয়োজনীয় তেলের সাথে একত্রিত করে বা সরাসরি চুলে স্প্রে করতে পারেন।

খুশকি দূর করার আরো কিছু উপায়

* যাদের প্রায়ই খুশকি হয় তারা নিয়মিত চুলে পরিণিত শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন।

* বাইরে বের হলে ধুলোবালি থেকে রক্ষার জন্য মাথায় স্ক্রাব বা ওড়না ব্যবহার করতে পারেন।

* চুলের খুশকি নিয়ন্ত্রণে খাদ্যাভাসের পরিবর্তন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এজন্য মাথার ত্বক ভালো রাখতে চুল পরিমাণে শাকসবজি খাওয়াসহ অতিরিক্ত চর্বি জাতীয় খাবার পরিহার করতে হবে।

* চুল অপরিষ্কার থাকলে খুশকি বেশি হয়। তাই নিয়মিত চুল পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।

*  গোসলের পর যত দ্রুত সম্ভব চুল ভালো করে মুছে নিতে হবে। তবে চুল শুকানোর জন্য হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার না করে ফ্যানের বাতাসে শুকিয়ে নেওয়া ভালো।

মাথায় খুশকি হওয়ার কারণ কি

খুশকি অনেকের কাছে দুধ চিন্তার বিষয় হলেও এটি কোন রোগ বা রোগের লক্ষণ নয়। মাথার ত্বকের পুরনো মৃত কোষগুলো জমে এবং ছত্রাক এর প্রভাবে খুশকি হয়ে থাকে। এছাড়াও মাথায় খুশকি হওয়ার আরো বেশি কিছু কারণ রয়েছে।

রুক্ষ শুষ্ক ত্বক

শীতে আবহাওয়ার আদ্রতা কমে যাওয়ায় দেহের ত্বকের পাশাপাশি মাথার ত্বকের রুক্ষ শুষ্ক হয়ে যায়। এর ফলে শীতের সময়টিতে মাথায় খুশকি বেশি হয়ে থাকে। এছাড়াও এর সময় বাইরের ঠান্ডা বাতাস ও ঘরের তুলনামূলক গরম বাতাসের ফলে তাপমাত্রার যে সমাদর্শহীনতা দেখা যায় সেটিও খুশকি হওয়ার অন্যতম কারণ।

অতিরিক্ত তেল ব্যবহার

একটি গবেষণায় দেখা গেছে মাথায় অতিরিক্ত তেল ব্যবহার করেন তাদের খুশকি সংক্রমণের ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় বেশি হয়ে থাকে। মাত্র অতিরিক্ত তেল ব্যবহারের ফলে তেল স্তূপ আকারে চুলের গোড়ায় জমা হয়ে পরবর্তীতে সেখানে ছত্রাকের প্রাদুর্ভাব ঘটায়। এর ফলে মাথায় খুশকির পরিমাণ বৃদ্ধি পায়।

চুলে যথেষ্ট যত্ন না নেওয়া

অনেকেই নিয়মিত চুল আশ্রায় না। যদি চুল কম আঁচড়ানো হয় তাহলে মাথার ত্বকের মৃত কোষ গুলো ঝরে যাওয়ার প্রবণতা অনেক কমে যায়। ফলে এগুলো ধরে না পরে বরং চুলের গোড়ায় জমা হয়ে থাকে। এর ফলে খুশকির তৈরি হয়। অন্যদিকে চুলে পর্যাপ্ত পরিমাণে শ্যাম্পু না করলে মাথার ত্বক অপরিসকৃত থাকে। এর ফলেও মাথায় খুশকি উৎপন্ন হতে পারে।

শেষ কথা

আমরা আপনাদের সাথে খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়  এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করলাম এতক্ষন। আপনারা আমাদের আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়লে এতক্ষন অবশ্যই বুঝে ফেলেছেন যে  খুশকি দূর করার উপায় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায় এই বিষয়ে। খুশকি হলে দ্রুত তার প্রতিকার করা জরুরী। নইলে এই সমস্যা থেকে চুল পড়া সহ নানা সমস্যা তৈরি হতে পারে।। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনারা আপনাদের খুশকি দূর করার জন্য প্রাকৃতিক উপায় ব্যবহার করতে পারেন। ধন্যবাদ।

Rate this post
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment