Blog
1 min read

নিজেকে শান্ত রাখুন ৫ টি উপায়

নিজেকে শান্ত রাখুন ৫ টি উপায়

নিজেকে শান্ত রাখুন ৫ টি উপায়

আসসালামুয়ালিকুম আজকে আলোচনা করব নিজেকে শান্ত রাখুন ৫ টি উপায় সমূহ। মানুষের জীবনে সমস্যা গুলো হচ্ছে জীবনের একটি অংশ। এইযে অনেক সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য আপনাকে জেনে রাখতে হবে। আপনি আপনাকে কিভাবে শান্ত রাখবেন সে বিষয়টা জেনে নিন।

দুঃখ কষ্ট নিয়ে মানুষের জীবন এর ভিতর আপনাকে অবশ্যই শান্ত থাকতে হবে।  নিজেকে শান্ত রাখার জন্য আপনাকে অবশ্যই কিছু নিয়ম অবলম্বন করতে হবে নিজেকে শান্ত রাখুন ৫ টি উপায় আজকে আলোচনা করব।

চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক নিজেকে নিজেকে শান্ত রাখুন ৫ টি উপায়

গভীরভাবে শ্বাস নিনঃ মানসিক সুস্থতার জন্য আপনাকে অবশ্যই গভীরভাবে শ্বাস নিতে হবে যার ফলে আপনি মানসিক চাপ বা সুস্থতার প্রভাব পাবেন। কারণ এতে মস্তিষ্ক ও শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ গুলোতে অক্সিজেনের ভালোভাবে পৌঁছায়।

প্রত্যেকটি মানুষের বেঁচে থাকার জন্য অক্সিজেনের প্রয়োজন রয়েছে তাই আপনি গভীরভাবে শ্বাস নিন যার ফলে আপনার অক্সিজেনের কাজ করবে। বেঁচে থাকার জন্য আপনাকে অবশ্যই অক্সিজেনের কতটা জরুরি তা জেনে রাখা ভাল অনেকেই অক্সিজেন কতটা জরুরি সে ব্যাপারে কিছু জানেন না।

গভীরভাবে শ্বাস নেওয়ার আরও একটি কারণ রয়েছে সেটা হচ্ছে আপনি যদি গভীরভাবে শ্বাস নিতে পারেন আপনার শরীরের সমস্ত বিষাক্ত পদার্থ দূর হতে সাহায্য করবে। মনে মনে এক থেকে চার গণনা করতে করতে আস্তে আস্তে দম নিন। কিছুক্ষণ ধরে রাখুন।

  • তারপর আস্তে আস্তে মুখ দিয়ে দম ছাড়তে থাকুন
  •  এরপর দুইবার স্বাভাবিক ভাবে শ্বাস নিতে থাকুন
  •  আবার গভীরভাবে দম নেওয়ার পদ্ধতি অনুসরণ করুন

জায়গাটি থেকে সরে যানঃ আপনাকে বুঝতে হবে কী কারণে আপনি অল্পতে রাগান্বিত এবং বিরক্ত হয়ে যাচ্ছেন সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। তারপর থেকে আপনাকে অবশ্যই সে ধরনের সমস্যা থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করতে হবে আপনাকেই নিজেই। এজন্যই এখানে বলা হয়েছে জায়গাটি থেকে সরে যান। এ ধরনের সমস্যা হলে আপনাকে অবশ্যই ওই জায়গা থেকে সরে যেতে হবে এবং আপনি চাইলে একটু এদিক-সেদিক হেঁটে আসুন যার ফলে আপনার মন অনেক শান্ত হয়ে যাবে।

 চোখ বন্ধ  করাঃ উত্তেজিত ও অস্থির লাগলে আপনি সেই মুহূর্ত আপনার চোখদুটো বন্ধ করে রাখুন।এই মুহূর্তে আপনি যদি চোখ বন্ধ করে রাখুন এর ফলে আপনার  ভারসাম্য ধরে রাখতে খুব সহজ হবে ।এই চোখ বন্ধ করা আপনি কখনো হাঁটাহাঁটি করলে বা গাড়ি চলাচলের মাধ্যমে এ কাজটি করতে যাবেন না যার ফলে আপনার ভীষণ মারাত্মক একটি দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

বাহিরে যাওয়াঃ সাধারণত আমাদের মন খারাপ থাকলে বা কোন অসুস্থ কর কাজ হলে বা কোন টেনশন হলে আমরা বাহিরে ঘুরতে যাই যার ফলে আমাদের মন অনেক ভাল হয়ে যায়। যে দিনগুলোতে আপনি খুব অস্থির বা টেনশন ফিল করছেন সেই দিনগুলো আপনি অবশ্যই বাহির থেকে ঘুরে আসুন। সেটা যদি হয় কোন পার্ক বা জিলে ইত্যাদি যেখানে গেলে আপনার মন অনেক ভালো হতে সাহায্য করবে আপনি সেখান থেকে ঘুরে আসুন।

ইসলামী গান শুনুনঃ আপনার যখন মন খারাপ থাকবে তখন আপনি চাইলে গান শুনে আপনার মনকে ভালো রাখতে পারেন এবং শান্ত রাখতে পারবেন।  জাতীয় সংগীত শুনুন আপনার মন অবশ্যই ভালো হবে। বর্তমান যুগে এমন পরিস্থিতি হয়েছে যে মন খারাপ থাকলে বা কোন টেনশন হলে ইত্যাদি ।

এসব যদি হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে ইউটিউব দেখার চেষ্টা করে ফেসবুক দেখার চেষ্টা করে বর্তমান যুগে লোকেরা এটাই ভাবে যে কাজগুলো করলে আমার মন ভালো হয়ে যাবে গান শুনতে পছন্দ করে হেডফোনে গান শুনতে পছন্দ করে এই রকম ইত্যাদি বিষয়ে তারা মনে করেন যে আমার মন ভালো থাকবে এবং আমি শান্ত থাকব একাজগুলো করে এজন্য তারা এ কাজগুলো করে থাকেন আপনি চাইলে এই কাজগুলো করতে পারেন কোন সমস্যা নেই।

আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী আপনি যে কাজ করবেন সে কাজটি যেন আনন্দের সহিত হয় এবং এই কাজটি করার ফলে আপনি যেন আপনার মনকে শান্ত এবং সুস্থ সবল আনন্দময় রাখতে পারেন সেদিকে খেয়াল রেখে এমন কিছু কাজ করা আপনাকে অবশ্যই জরুরি যে কাজে আপনি আনন্দ পাবেন।

আজকের আলোচনা হয়েছিল আপনার মন কিভাবে আপনি শান্ত রাখবেন সেই বিষয়ে বিস্তারিত উপরে উল্লেখ করা হয়েছে মনোযোগ দিয়ে আমাদের এই পোস্টের সঙ্গে থেকে পড়ে নিন এবং জেনেনিন। আপনি আপনাকে এবং নিজেকে কিভাবে শান্ত মনে রাখতে পারবেন।

Rate this post