Lifestyle

কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় তার ৯ টি উপায় । রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় জেনে নিন

1 min read
9 টি উপায়ে কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় /  রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় জেনে নিন

9 টি উপায়ে কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় /  রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় জেনে নিন

রাতারাতি সুন্দর ফর্সা হওয়ার উপায় ,  কি উপায় ফর্সা ও সুন্দর হতে পারে তা জেনে নিন । এই পোস্টটি আপনি ফলো করলে দুই থেকে তিন  দিনে আপনি ফর্সা হওয়ার উপায় খুঁজে পাবেন ।  আপনার ত্বকের ভেতর থেকে ফর্সা করে ,  কি খেলে শরীরের রং ফর্সা হবে, ফর্সা বা সুন্দর হওয়ার জন্য নাইট ক্রিম, চেহারা সুন্দর করার উপায়, চেহারা নষ্ট হয়ে যাওয়ার কারণ, চেহারা সুন্দর করার দোয়া, চেহারা ইত্যাদি এসব আজকে আলোচনা ।  তবে চলুন আমরা আজ দেখে নিই কিভাবে আমরা রাতারাতি ফর্সা বাসন এর উপায় জেনে নেই ।  কিভাবে সুন্দর  হওয়া যায় রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় আজকের এই আলোচনার মাধ্যমে আমরা জেনে নেব ।

রাতারাতি ফর্সা বা সুন্দর হতে চান তাহলে প্রত্যেকদিন পরিমাণ মতো মধুর সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে ব্যবহার করুন ,  রিস্কলস বলিরেখা প্রতিদিন ব্যবহার করে থাকেন তাহলে এগুলো হবে না ,

যেমনঃ  কয়েক ফোঁটা লেবুর রস 1 চা চামচ দুধ 1 চা চামচ গোলাপ জল ভাল করে মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে নিন ।  এই মিশ্রণটি ব্যবহার করার পর আপনার মুখে সৌন্দর্য বা উজ্জলতা রাতারাতি উপায় খুঁজে পাবেন ।

 কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় তা জেনে নিন

এখন বর্তমান যুগের মানুষ সময় কে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে জানেন ।  তবে মানুষ যখন বুঝতে পারেন যে সারা জীবন-জীবিকার তাগিদে কাজ করা যতটা জরুরি হয়ে থাকে , ঠিক তেমনি শারীরিক সৌন্দর্য  রক্ষা করা জীবিকার তাগিদে এর মতই জরুরি হয়ে পড়ে ।  এর অর্থ হলো আমাদের যতটুকু সম্মান বা শক্তি প্রদানের সাহায্য করে ,  তেমন যেমন ভাবে মানুষ সুন্দর সম্মান বা শক্তি প্রমাণ করে দেন চেহারা সুন্দর ও ফর্সা নিয়ে ।  এর অর্থ হলো মানুষের জীবনের সৌন্দর্য নিয়ে একজন মানুষের পরিপূর্ণ ব্যক্তিত্বের অধিকারী করে তোলে সুন্দর চেহারাকে ,  আপনি যদি সুস্থ ও  সুন্দর শরীরের মালিক বা মানুষ হতে চান তাহলে নিয়মিত শরীরচর্চা করতে হবে অবশ্যই , জগিং  বা  ফ্রি হ্যান্ড ব্যায়াম সুস্থ ও সুন্দর রাখার জন্য আপনি শরীরচর্চা  করতে পারেন ,

আপনার সুন্দর শরীর রাখার জন্য একটি বড় মাধ্যম হচ্ছে রোগ ব্যাধি মুক্ত শরীর , আপনার শরীর সুস্থ ও সুন্দর রাখার জন্য অন্তত আপনাকে শরীরচর্চা রাখতে হবে ,  তাহলে আপনি রাতারাতি সুন্দর ও ফর্সা হওয়ার উপায় দুটি খুঁজে পাবেন ,

 

  •  চেহারা সুন্দর রাখার দোয়া জেনে নিন ।
  • ফজরের নামাজ ছেড়ে দিলে চেহারা  সুন্দর্য নষ্ট হয়ে যায় ।
  •  জোহরের নামাজ ছেড়ে দিলে আয়-রোজগারের বরকত কমে যায় ।
  •  আসরের নামাজ ছেড়ে দিলে স্বাস্থ্য নষ্ট হয়ে যায়।
  •  মাগরিবের নামাজ ছেড়ে দিলে সন্তান বিপথগামী হয়ে যায় ।
  •  এশার নামাজ ছেড়ে দিলে ঘুমের পরিতৃপ্তি তা নষ্ট হয়ে যায় ।

মহান আল্লাহতালা মানুষকে সুন্দর গঠনাকৃতি  দিয়ে মানুষকে সৃষ্টি করেছেন ।  একথা আল্লাহ পবিত্র কোরআনের বলে রেখেছে ।  তবে  সৌন্দর্যের কিছু  তারতম্য রেখেছেন। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আয়না দেখার দোয়া শিখিয়েছেন এভাবে ।اَللَّهُمَّ حَسَّنْتَ خَلْقِيْ فَاَحْسِنْ خُلُقِيْ

অর্থ হে আল্লাহ আপনি যেভাবে আমার সৃষ্টিতগত গঠনাকৃতি কি সুন্দর করেছেন কিভাবে আমার চরিত্রটি সুন্দর করে দেন ।  ইতহাফুল ইয়ারাহো  হাদিস 5200 ।  তবে আপনি চেহারা কি আরো সুন্দর করার জন্য প্রাকৃতিক ও চিকিৎসাগত উপায় গ্রহণ করতে  পারেন ।  সাথে আল্লাহ নিকট দোয়া করতে পারে ।  নিজেকে সর্বদিক দিয়ে একজন ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারেন ।   চেহারা এমন কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় আপনি ভাবতেও পারবেন না ।

 চেহারা সুন্দর করার আমল জেনে নিন ।

সূরা নূর 35 নং আয়াত প্রত্যেকদিন পাঠ করে দুই হাতে ফুল দিয়ে মুখে ও অন্যান্য স্থানে মারবেন ।  এটি অন্তত পরীক্ষিত আমল , ভুল তেলাওয়াত করা যাবে না ।  যে ব্যক্তি সব সময় এক গুণবাচক নাম আল্ল খালিকুল এর জিকির করবে ,  এনামের জিকির করতে আল্লাহতালা তার অন্তর ও চেহারা উজ্জ্বল করে দেন ।  এর মাধ্যমে আপনি কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় ,  তা সঠিক মাধ্যম পেয়ে যাবেন ।

ভেতর থেকে ফর্সা হওয়ার উপায় জেনে নিন

রূপচর্চা ও সুন্দর হওয়া এবং ভেতর থেকে ফর্সা করার জন্য যুগ যুগ ধরে চলে এসেছে দুধ ও কাঁচা হলুদের মিশ্রণ ।  এই মিশ্রণটি আপনার মুখের ত্বকের  ভেতর থেকে ফর্সা করে তুলবে , ভেতর থেকে ফর্সা করার জন্য আপনাকে প্রতিদিন এক গ্লাস উষ্ণ গরম দুধে পরিমান মত কাঁচা হলুদ বেটে মিশিয়ে পান করতে পারেন, এর ফলে আপনার ত্বকের ভেতর থেকে ফর্সা করতে সাহায্য করবেন ।  আপনি যদি এই মিশ্রণটি খেতে না পারেন তাহলে একসঙ্গে আপনি কয়েকটা চামচ মধু মিশিয়ে নিতে পারেন । যদি এই মিশ্রণটি নিয়মিত খেতে পারেন তাহলে আপনার শরীরের রং ভেতর থেকে ফর্সা করে নেবে ।  এর পরিবর্তে আপনি পেয়ে যাবেন রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় । দুধে কাঁচা হলুদ বাটা মিশিয়ে পান করলে ও ভেতর থেকে ফর্সা হওয়া যায় ।  আপনি যদি এভাবে এর পরিবর্তে আপনি আরেকটি কাজ করতে পারেন সেটা হচ্ছে  । দেড় ইঞ্চি সাইজের এক টুকরো হলুদ নিয়ে  ছোট টুকরো করে কেটে নিন ।  এর পর একগ্লাস দুধ কেটে রাখা কাঁচা  হলুদের  টুকরোগুলো ভালো করে ফুটিয়ে নিন । দুধের রং গরম হয়ে গেলে এরপর খেয়ে নিন  । নিয়ম মেনে আপনি যদি প্রতিদিন একবার করে খেতে পারেন তাহলে আপনার ত্বকের ভেতর থেকে ফর্সা করে নিবে ।

দুই দিনে ফর্সা হওয়ার উপায় জেনে নিন

কয়েক ফোঁটা লেবুর রস ও পরিমাণমতো মধু এবং পরিমাণমতো দই এই তিনটি উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে নিন ।  এরপর এই মিশ্রণটি 15 মিনিট মুখে মাখিয়ে রাখুন । 15 মিনিট পর মুখ ভালো করে ধুয়ে নিন ।  এই নিয়মটি আপনি সঠিকভাবে করতে পারলে আপনার  ত্বক 2 দিনে ফর্সা হয়ে যাবে ।

এর কারণগুলো হচ্ছে , মধু আপনার ত্বককে ভেতর থেকে সুন্দর করে দেবে ,  লেবুর রস ও  দয়ের মিশ্রণে উপস্থিত ভিটামিন সি ত্বককে ফর্সা ও উজ্জল করতে সাহায্য করবে দুইদিনের । এই মিশ্রণ এর মাধ্যমে প্রকৃতিক উপায়ে আপনি দুই দিনে ফর্সা মুখের রাতারাতি ফর্সা হওয়ার  ও পায়েল অধিকারী হতে পারবেন ।

ফর্সা হওয়ার উপায় 1 মাসে

আপনি যদি ত্বক ভেতর থেকে সুন্দর ব্যবসা করতে চান তাহলে প্রতিদিন সকালে কিছু নিয়ম মেনে চললে আপনার ত্বক হবে সুন্দর ও ফর্সা ।  এই নিয়মগুলো ভালো করে এবং সঠিকভাবে পালন করতে হবে । আপনি চাইলে মাত্র 7 দিনে এর লক্ষ্য বুঝতে পারবে । আপনার ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি পাবে ।  তবে নিয়ে অনুযায়ী টানা একমাস মেনে চলতে হবে ।  তাহলে আপনি ফর্সা ও উজ্জ্বল চেহারা করতে পারবেন । কিন্তু আপনি এখনো জানেন না কিভাবে 1 মাসে ফর্সা হওয়া যায় ।  তাই চলুন আর দেরি না করে আমরা এখনি দেখে নিন কিভাবে 1 মাসে ফর্সা হওয়া যায় ।

আপনি সকালে ভোরে ঘুম থেকে উঠে এক  গ্লাস হালকা গরম পানি খালি পেটে খেয়ে নিন । পানির সঙ্গে আপনি চাইলে অল্প পরিমাণে মধু মিশিয়ে নিন । এক গ্লাস হালকা গরম পানি শুধু আপনার ত্বকের জন্য উপকারী নয় ,  আপনার শরীরের জন্য খালি পেটে পানি খাওয়া খুব ভালো একটি কাজ এবং আপনার শরীরের অনেক রোগ দূর হয়ে যাবে । আপনার পরবর্তী রূপচর্চার জন্য ত্বককে প্রস্তুত করবেন এক মাসে ফর্সা হয়ে হতে সাহায্য করবেন ।

এর পরে আপনি আরেকটি কাজ করতে পারেন সেটা হচ্ছে একটি হাড়িতে গরম পানি নিয়ে সেই বাষ্প মুখে লাগান কয়েক মিনিটের জন্য ।  বেশি কাছ থেকে বাষ্প  লাগাবেন না । বেশি যেন পার না লাগে । মুখে ভাব নেওয়ার পর পরিষ্কার   গামছা দিয়ে মুখ মুছে নিন ।

এবার ফেইস ম্যাসাজের পালা ।  প্রথমে একটি টমেটো নিন । মাঝখান থেকে কেটে টমেটোর দুই ভাগ করে নিন । এরপর মিশ্রণ তৈরী করে নিন।   টমেটোর রস পরিমাণমতো ,  লেবুর রস পরিমাণমতো ,  কাঁচা দুধ ও সামান্য মধু ,  এবং শসার রস , এসব দিয়ে আপনার ত্বককে করবে সুন্দর ফর্সা ,  এর ফলে আপনি উপকার পেয়ে যাবেন একমাসের ফর্সা হওয়ার তালিকা রাতারাতি ফর্সা হতে পারবেন ।

ফর্সা হওয়ার জন্য নাইট ক্রিম ব্যবহার করুন

বর্তমান যুগে বিশ্বের একটি জনপ্রিয় পন্ডস নাইট ক্রিম  হিসেবে পরিচিত ।  এই ক্রিমটি নাইট ক্রিম হিসেবে বর্তমানে পরিচিত  হলেও ক্রিমটি একটি নাইট ক্রিম হিসেবে কাজ করে  না তা কিন্তু নয়  ।  আপনার ত্বককে মেসেজ রিপেয়ার করার পাশাপাশি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করেন ।  এই নিয়ম মেনে ব্যবহার করলে ফলে আপনার ত্বকের রং ফর্সা হয়ে যাবে এবং কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় সেই বিষয়ে আপনি জানতে পারবে ।

কি খাবার খেলে গায়ের রং সুন্দর  ও ফর্সা হবে  তা জেনে নিন

চেহারা সুন্দর রাখার জন্য আপনি বিভিন্ন ধরনের সবজি খেতে পারেন যেমন :  টমেটো ,  মিষ্টি  আলু ,   পালং শাক ,     করলা ,  ইত্যাদি  আপনার গায়ের রং ফর্সা হয়ে যাবে ।  এতে রয়েছে লাইকোপিন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ।  ডেইরি প্রোডাক্টের  টক দই  দুধ, ডিম, মাছ, মাংস ইত্যাদি এসব খেলে আপনার চেহারা সুন্দর ফর্সা হয়ে যাবে ।

সালাদ|9 টি উপায়ে কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় /  রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় জেনে নিন

রাতারাতি সুন্দর ফর্সা হওয়ার উপায় ,  কি উপায় ফর্সা ও সুন্দর হতে পারে তা জেনে নিন । এই পোস্টটি আপনি ফলো করলে দুই থেকে তিন  দিনে আপনি ফর্সা হওয়ার উপায় খুঁজে পাবেন ।  আপনার ত্বকের ভেতর থেকে ফর্সা করে ,  কি খেলে শরীরের রং ফর্সা হবে, ফর্সা বা সুন্দর হওয়ার জন্য নাইট ক্রিম, চেহারা সুন্দর করার উপায়, চেহারা নষ্ট হয়ে যাওয়ার কারণ, চেহারা সুন্দর করার দোয়া, চেহারা ইত্যাদি এসব আজকে আলোচনা ।  তবে চলুন আমরা আজ দেখে নিই কিভাবে আমরা রাতারাতি ফর্সা বাসন এর উপায় জেনে নেই ।  কিভাবে সুন্দর  হওয়া যায় রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় আজকের এই আলোচনার মাধ্যমে আমরা জেনে নেব

 7 দিনে চুল ঘন করার উপায় জেনে নিন

 চেহারা সুন্দর করা ও চেহারা ফর্সা করার উপায় জেনে নিন ।

 

  •  রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায়
  •  চেহারা সুন্দর করার দোয়া
  •  চেহারা সুন্দর করার আমল
  •  কি খেলে গায়ের রং হবে ফর্সা
  •  দুই থেকে তিন দিনে ফর্সা হওয়ার উপায়
  •  ভেতর থেকে  সুন্দর করার উপায়
  •  সুন্দর হওয়ার জন্য নাইট ক্রিম
  • কিভাবে সুন্দর হওয়া যায়
  •  চেহারা নষ্ট হওয়ার কারণ জেনে নিন
  •  রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় জেনে নিন

 

রাতারাতি ফর্সা বা সুন্দর হতে চান তাহলে প্রত্যেকদিন পরিমাণ মতো মধুর সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে ব্যবহার করুন ,  রিস্কলস বলিরেখা প্রতিদিন ব্যবহার করে থাকেন তাহলে এগুলো হবে না ,

যেমন ;  কয়েক ফোঁটা লেবুর রস 1 চা চামচ দুধ 1 চা চামচ গোলাপ জল ভাল করে মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে নিন ।  এই মিশ্রণটি ব্যবহার করার পর আপনার মুখে সৌন্দর্য বা উজ্জলতা রাতারাতি উপায় খুঁজে পাবেন ।

 কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় তা জেনে নিন

এখন বর্তমান যুগের মানুষ সময় কে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে জানেন ।  তবে মানুষ যখন বুঝতে পারেন যে সারা জীবন-জীবিকার তাগিদে কাজ করা যতটা জরুরি হয়ে থাকে , ঠিক তেমনি শারীরিক সৌন্দর্য  রক্ষা করা জীবিকার তাগিদে এর মতই জরুরি হয়ে পড়ে ।  এর অর্থ হলো আমাদের যতটুকু সম্মান বা শক্তি প্রদানের সাহায্য করে ,  তেমন যেমন ভাবে মানুষ সুন্দর সম্মান বা শক্তি প্রমাণ করে দেন চেহারা সুন্দর ও ফর্সা নিয়ে ।  এর অর্থ হলো মানুষের জীবনের সৌন্দর্য নিয়ে একজন মানুষের পরিপূর্ণ ব্যক্তিত্বের অধিকারী করে তোলে সুন্দর চেহারাকে ,  আপনি যদি সুস্থ ও  সুন্দর শরীরের মালিক বা মানুষ হতে চান তাহলে নিয়মিত শরীরচর্চা করতে হবে অবশ্যই , জগিং  বা  ফ্রি হ্যান্ড ব্যায়াম সুস্থ ও সুন্দর রাখার জন্য আপনি শরীরচর্চা  করতে পারেন ,

আপনার সুন্দর শরীর রাখার জন্য একটি বড় মাধ্যম হচ্ছে রোগ ব্যাধি মুক্ত শরীর , আপনার শরীর সুস্থ ও সুন্দর রাখার জন্য অন্তত আপনাকে শরীরচর্চা রাখতে হবে ,  তাহলে আপনি রাতারাতি সুন্দর ও ফর্সা হওয়ার উপায় দুটি খুঁজে পাবেন ,

 চেহারা সুন্দর রাখার দোয়া জেনে নিন ।

 

  • ফজরের নামাজ ছেড়ে দিলে চেহারা  সুন্দর্য নষ্ট হয়ে যায় ।
  •  জোহরের নামাজ ছেড়ে দিলে আয়-রোজগারের বরকত কমে যায় ।
  •  আসরের নামাজ ছেড়ে দিলে স্বাস্থ্য নষ্ট হয়ে যায়।
  •  মাগরিবের নামাজ ছেড়ে দিলে সন্তান বিপথগামী হয়ে যায় ।
  •  এশার নামাজ ছেড়ে দিলে ঘুমের পরিতৃপ্তি তা নষ্ট হয়ে যায় ।

 

মহান আল্লাহতালা মানুষকে সুন্দর গঠনাকৃতি  দিয়ে মানুষকে সৃষ্টি করেছেন ।  একথা আল্লাহ পবিত্র কোরআনের বলে রেখেছে ।  তবে  সৌন্দর্যের কিছু  তারতম্য রেখেছেন। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আয়না দেখার দোয়া শিখিয়েছেন এভাবে ।اَللَّهُمَّ حَسَّنْتَ خَلْقِيْ فَاَحْسِنْ خُلُقِيْ

অর্থ হে আল্লাহ আপনি যেভাবে আমার সৃষ্টিতগত গঠনাকৃতি কি সুন্দর করেছেন কিভাবে আমার চরিত্রটি সুন্দর করে দেন ।  ইতহাফুল ইয়ারাহো  হাদিস 5200 ।  তবে আপনি চেহারা কি আরো সুন্দর করার জন্য প্রাকৃতিক ও চিকিৎসাগত উপায় গ্রহণ করতে  পারেন ।  সাথে আল্লাহ নিকট দোয়া করতে পারে ।  নিজেকে সর্বদিক দিয়ে একজন ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারেন ।   চেহারা এমন কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় আপনি ভাবতেও পারবেন না ।

 চেহারা সুন্দর করার আমল জেনে নিন ।

সূরা নূর 35 নং আয়াত প্রত্যেকদিন পাঠ করে দুই হাতে ফুল দিয়ে মুখে ও অন্যান্য স্থানে মারবেন ।  এটি অন্তত পরীক্ষিত আমল , ভুল তেলাওয়াত করা যাবে না ।  যে ব্যক্তি সব সময় এক গুণবাচক নাম আল্ল খালিকুল এর জিকির করবে ,  এনামের জিকির করতে আল্লাহতালা তার অন্তর ও চেহারা উজ্জ্বল করে দেন ।  এর মাধ্যমে আপনি কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় ,  তা সঠিক মাধ্যম পেয়ে যাবেন ।

ভেতর থেকে ফর্সা হওয়ার উপায় জেনে নিন

রূপচর্চা ও সুন্দর হওয়া এবং ভেতর থেকে ফর্সা করার জন্য যুগ যুগ ধরে চলে এসেছে দুধ ও কাঁচা হলুদের মিশ্রণ ।  এই মিশ্রণটি আপনার মুখের ত্বকের  ভেতর থেকে ফর্সা করে তুলবে , ভেতর থেকে ফর্সা করার জন্য আপনাকে প্রতিদিন এক গ্লাস উষ্ণ গরম দুধে পরিমান মত কাঁচা হলুদ বেটে মিশিয়ে পান করতে পারেন ,  এর ফলে আপনার ত্বকের ভেতর থেকে ফর্সা করতে সাহায্য করবেন ।  আপনি যদি এই মিশ্রণটি খেতে না পারেন তাহলে একসঙ্গে আপনি কয়েকটা চামচ মধু মিশিয়ে নিতে পারেন । যদি এই মিশ্রণটি নিয়মিত খেতে পারেন তাহলে আপনার শরীরের রং ভেতর থেকে ফর্সা করে নেবে ।  এর পরিবর্তে আপনি পেয়ে যাবেন রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় । দুধে কাঁচা হলুদ বাটা মিশিয়ে পান করলে ও ভেতর থেকে ফর্সা হওয়া যায় ।  আপনি যদি এভাবে এর পরিবর্তে আপনি আরেকটি কাজ করতে পারেন সেটা হচ্ছে  । দেড় ইঞ্চি সাইজের এক টুকরো হলুদ নিয়ে  ছোট টুকরো করে কেটে নিন ।  এর পর একগ্লাস দুধ কেটে রাখা কাঁচা  হলুদের  টুকরোগুলো ভালো করে ফুটিয়ে নিন । দুধের রং গরম হয়ে গেলে এরপর খেয়ে নিন  । নিয়ম মেনে আপনি যদি প্রতিদিন একবার করে খেতে পারেন তাহলে আপনার ত্বকের ভেতর থেকে ফর্সা করে নিবে ।

দুই দিনে ফর্সা হওয়ার উপায় জেনে নিন

কয়েক ফোঁটা লেবুর রস ও পরিমাণমতো মধু এবং পরিমাণমতো দই এই তিনটি উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে নিন ।  এরপর এই মিশ্রণটি 15 মিনিট মুখে মাখিয়ে রাখুন । 15 মিনিট পর মুখ ভালো করে ধুয়ে নিন ।  এই নিয়মটি আপনি সঠিকভাবে করতে পারলে আপনার  ত্বক 2 দিনে ফর্সা হয়ে যাবে ।

এর কারণগুলো হচ্ছে , মধু আপনার ত্বককে ভেতর থেকে সুন্দর করে দেবে ,  লেবুর রস ও  দয়ের মিশ্রণে উপস্থিত ভিটামিন সি ত্বককে ফর্সা ও উজ্জল করতে সাহায্য করবে দুইদিনের । এই মিশ্রণ এর মাধ্যমে প্রকৃতিক উপায়ে আপনি দুই দিনে ফর্সা মুখের রাতারাতি ফর্সা হওয়ার  ও পায়েল অধিকারী হতে পারবেন ।

ফর্সা হওয়ার উপায় 1 মাসে

আপনি যদি ত্বক ভেতর থেকে সুন্দর ব্যবসা করতে চান তাহলে প্রতিদিন সকালে কিছু নিয়ম মেনে চললে আপনার ত্বক হবে সুন্দর ও ফর্সা ।  এই নিয়মগুলো ভালো করে এবং সঠিকভাবে পালন করতে হবে । আপনি চাইলে মাত্র 7 দিনে এর লক্ষ্য বুঝতে পারবে । আপনার ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি পাবে ।  তবে নিয়ে অনুযায়ী টানা একমাস মেনে চলতে হবে ।  তাহলে আপনি ফর্সা ও উজ্জ্বল চেহারা করতে পারবেন । কিন্তু আপনি এখনো জানেন না কিভাবে 1 মাসে ফর্সা হওয়া যায় ।  তাই চলুন আর দেরি না করে আমরা এখনি দেখে নিন কিভাবে 1 মাসে ফর্সা হওয়া যায় ।

আপনি সকালে ভোরে ঘুম থেকে উঠে এক  গ্লাস হালকা গরম পানি খালি পেটে খেয়ে নিন । পানির সঙ্গে আপনি চাইলে অল্প পরিমাণে মধু মিশিয়ে নিন । এক গ্লাস হালকা গরম পানি শুধু আপনার ত্বকের জন্য উপকারী নয় ,  আপনার শরীরের জন্য খালি পেটে পানি খাওয়া খুব ভালো একটি কাজ এবং আপনার শরীরের অনেক রোগ দূর হয়ে যাবে । আপনার পরবর্তী রূপচর্চার জন্য ত্বককে প্রস্তুত করবেন এক মাসে ফর্সা হয়ে হতে সাহায্য করবেন ।

এর পরে আপনি আরেকটি কাজ করতে পারেন সেটা হচ্ছে একটি হাড়িতে গরম পানি নিয়ে সেই বাষ্প মুখে লাগান কয়েক মিনিটের জন্য ।  বেশি কাছ থেকে বাষ্প  লাগাবেন না । বেশি যেন পার না লাগে । মুখে ভাব নেওয়ার পর পরিষ্কার   গামছা দিয়ে মুখ মুছে নিন ।

এবার ফেইস ম্যাসাজের পালা ।  প্রথমে একটি টমেটো নিন । মাঝখান থেকে কেটে টমেটোর দুই ভাগ করে নিন । এরপর মিশ্রণ তৈরী করে নিন।   টমেটোর রস পরিমাণমতো ,  লেবুর রস পরিমাণমতো ,  কাঁচা দুধ ও সামান্য মধু ,  এবং শসার রস , এসব দিয়ে আপনার ত্বককে করবে সুন্দর ফর্সা ,  এর ফলে আপনি উপকার পেয়ে যাবেন একমাসের ফর্সা হওয়ার তালিকা রাতারাতি ফর্সা হতে পারবেন ।

ফর্সা হওয়ার জন্য নাইট ক্রিম ব্যবহার করুন

বর্তমান যুগে বিশ্বের একটি জনপ্রিয় পন্ডস নাইট ক্রিম  হিসেবে পরিচিত ।  এই ক্রিমটি নাইট ক্রিম হিসেবে বর্তমানে পরিচিত  হলেও ক্রিমটি একটি নাইট ক্রিম হিসেবে কাজ করে  না তা কিন্তু নয়  ।  আপনার ত্বককে মেসেজ রিপেয়ার করার পাশাপাশি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করেন ।  এই নিয়ম মেনে ব্যবহার করলে ফলে আপনার ত্বকের রং ফর্সা হয়ে যাবে এবং কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় সেই বিষয়ে আপনি জানতে পারবে ।

কি খাবার খেলে গায়ের রং সুন্দর  ও ফর্সা হবে  তা জেনে নিন

চেহারা সুন্দর রাখার জন্য আপনি বিভিন্ন ধরনের সবজি খেতে পারেন যেমন :  টমেটো ,  মিষ্টি  আলু ,   পালং শাক ,     করলা ,  ইত্যাদি  আপনার গায়ের রং ফর্সা হয়ে যাবে ।  এতে রয়েছে লাইকোপিন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ।  ডেইরি প্রোডাক্টের  টক দই  দুধ, ডিম, মাছ, মাংস ইত্যাদি এসব খেলে আপনার চেহারা সুন্দর ফর্সা হয়ে যাবে ।

সালাদ ঃ  আমাদের ত্বককে সতেজতা ও স্বাস্থ্য উজ্জ্বল রাখতে ফাইবার ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এর প্রয়োজন হয় ।  তাই এই ফাইবারের চাহিদা মেটানোর জন্য আপনি সালাদ ব্যবহার করতে পারেন । সারাদিন থাকে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা আপনার চেহারা কি সতেজ রাখবে ।  লক্ষ রাখবেন এমনি এমনি কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় এই উপায়ে তৈরি হয়ে যাবে আপনার ত্বকের উজ্জলতা ।

ডিম ঃ আমরা সকলেই ডিমের অনেক গুন জানি ।  কিন্তু অনেক হয়তো অনেক কিছু ডিমের সম্পর্কে জানা নেই ।  ডিম খেলে হাড় ভালো থাকেন ,  ডিম খাওয়ার ফলে যৌন  ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় ,  এসবের মধ্যে আরেকটি জিনিস আমাদের জানার দরকার সেটা হচ্ছে ডিম দিয়ে ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করেন ।  তাই প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় আপনি চাইলে ডিম রাখতে পারেন । কিভাবে গায়ের রং সুন্দর ফর্সা করা যায় ।

 কিউট ঃ বিদেশি ফল  কিউট  ।  কিন্তু বাংলাদেশ এই ফল পাওয়া যায় ।   এই ফলে ভিটামিন সি আপনার ত্বককে কোষ  হেল্প করে চেহারার কালচে কালচে দাগ দূর করতে সাহায্য করে ।  যারা কিউট ফল পাবে না ,  ঝামেলায় যেতে চান না তারা পেঁপে ডিম খেতে পারেন ।  তাহলে আপনি রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় খুঁজে পাবেন ।

 পেঁপে ঃ পেপের উপকারিতা গুনে বেশি ।  লিভারের যত্নে পেঁপে  খাওয়া কথা বলা হয়েছে ,

আপনার চেহারাকে উজ্জ্বল করবে ও ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করবে ।  পেঁপেতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ থাকে ।  পেঁপে  আপনার   চেহারার জন্য খুব উপকারী ।  ত্বকের মৃত কোষ দূর করে থাকেন ।  এবং মুখে কালচে দাগ সরে যেতে সাহায্য করেন ।

গ্রীন টি ঃ গ্রিন টি কে অনেকেই শরীরের জন্য খেতে বলা হয়েছে বা অনেকেই শুনেছেন ।  কিন্তু গ্রিন টি চেহারা সুন্দর করতে সাহায্য করেন ।   সালাতের  গ্রীন টিতে আপনি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাবেন ।  আপনার চেহারা বলিরেখা বা কাল দাগ দূর করেন । আচ্ছা রাখি ভেতর থেকে উজ্জ্বল করে রাখেন ।

চিনি ও লেবুর রস ঃ

পরিমাণমতো লেবুর রসের সঙ্গে  1 চা চামচ চিনি মিশিয়ে মিশ্রন তৈরী করে নিন ।  এরপর মিশ্রণটি আপনার হাত পায়ে লাগিয়ে নিন ।  2 থেকে তিন মিনিট অপেক্ষা করুন ।  2 থেকে তিন মিনিট পর ভালো

করে ধুয়ে ফেলুন ।  এর ব্যবহার হচ্ছে সপ্তাহে একদিন এতেই যথেষ্ট ।

চেহারা নষ্ট হওয়ার কারণ জেনে নিন ।

আমরা  জীবনে বিভিন্ন ধরনের কাজে ব্যস্ত হয়ে   থাকি ।  ব্যস্ততার কারণে আমাদের  শরীর ও ত্বকের নিতে আমরা ভুলে যাই ।  আমাদের নানান ধরনের কাজে ব্যস্ত থাকার কারণে চেহারা সুন্দর ও সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায় ।   এবং   বিভিন্ন অভ্যাসের  কারনে আমাদের চেহারা নষ্ট হয়ে যায় ,  তাই আমরা আজ জেনে নেব কি কি কারনে চেহারা নষ্ট হয়ে যায় ।

পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবে ঃ  আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকারী তা বর্ণনা করে শেষ করা যাবেনা ।  আমাদের যদি একদিন ঠিক হবে নাহলে চোখের নিচে  ফোলা ফোলা ভাব দেখা যায় ,  চেহারা ক্লান্তির ছাপ পড়ে ,  এরকম বিভিন্ন ধরনের সমস্যার কারণে আমাদের চেহারা নষ্ট হয়ে যায় ।  এবং আমাদের যদি ভাল হয় তাহলে ঘুম থেকে ওঠার পর শরীর চেহারা মন সবকিছুতেই ভালো লাগেনা । আমাদের ঘুমের কারণে শরীরে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে এজন্য আমাদেরকে পরিমাণ মতো সঠিক সময়ে ঘুমাতে হবে ।  তাই আমাদের চেহারা মন শরীর ভালো রাখার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম দেহে ক্লান্তি দূর করে শরীরকে সুন্দর রাখে ,  তাই আমরা জানতে পারলাম কিভাবে সুন্দর হওয়া যায়।

তামাক ও অ্যালকোহল গ্রহণ ঃ  আপনি যদি বেশি পরিমাণে অ্যালকোহল ও বেশি পরিমাণে তামাক এসব দ্রব্য গ্রহণ করে থাকেন তাহলে আপনার চেহারা অল্পতেই নষ্ট হয়ে যায় ।  এর ত্বকে নষ্ট আপনার শরীরের তরুণ হারিয়ে যায় ।  আপনার সিতামা গ্রহণ করলে কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় বলেন বা রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় এর কথা বলেন যাই বলুন না কেন কিছুই কাজে আসবে না ।

তাপমাত্রায় তারতম্য ঃ  তাপমাত্রার তারতম্য চেহারা নষ্ট হয়ে যাওয়ার অন্তত একটি কারণ হচ্ছে ।  শীতে খুব অনেক ঠান্ডা বা রুম হিটার ব্যবহার ও একই ভাবে গরমে এসির মধ্যে খুব বেশি ঠান্ডা অনেকক্ষণ থাকা আমাদের ত্বকের জন্য খুব ক্ষতিকারক ।  ক্ষতিকর এতে ত্বকের তাপমাত্রা নষ্ট হতে সাহায্য করে ।  ত্বকের সৌন্দর্য লোপ পায় এটা কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় এ প্রশ্নের একটি বড় সমাধান

অতিরিক্ত উদ্বেগ ও   দুশ্চিন্তা করা ঃ দির জীবনে বিভিন্ন জনের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা থেকে থাকে ।  এসব নিয়ে অনেক চিন্তা  ভাবনা নিয়ে  আমরা খুব টেনশন করে থাকি এজন্য আমাদের চেহারা নষ্ট হয়ে যায় ।  যারা অতিরিক্ত  চিন্তাভাবনা টেনশন করে থাকেন তাদের অল্প সময়ের মধ্যে চেহারা নষ্ট হয়ে যায় ।  এবং   ত্বকের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয় ।  এর  পরবর্তী আপনার চেহারা নষ্ট  হতে বেশি মহি লাগেনা ।  অল্প  সময়   মধ্যে আপনি  চেহারা নষ্ট হয়ে যাবে । কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় ও রাতারাতি ফর্সা  হওয়ার উপায় দুটি এই  বাধাপ্রাপ্ত হয় ।

আমাদের ত্বককে সতেজতা ও স্বাস্থ্য উজ্জ্বল রাখতে ফাইবার ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এর প্রয়োজন হয় ।  তাই এই ফাইবারের চাহিদা মেটানোর জন্য আপনি সালাদ ব্যবহার করতে পারেন । সারাদিন থাকে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা আপনার চেহারা কি সতেজ রাখবে ।  লক্ষ রাখবেন এমনি এমনি কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় এই উপায়ে তৈরি হয়ে যাবে আপনার ত্বকের উজ্জলতা ।

ডিম ঃ আমরা সকলেই ডিমের অনেক গুন জানি ।  কিন্তু অনেক হয়তো অনেক কিছু ডিমের সম্পর্কে জানা নেই ।  ডিম খেলে হাড় ভালো থাকেন ,  ডিম খাওয়ার ফলে যৌন  ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় ,  এসবের মধ্যে আরেকটি জিনিস আমাদের জানার দরকার সেটা হচ্ছে ডিম দিয়ে ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করেন ।  তাই প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় আপনি চাইলে ডিম রাখতে পারেন । কিভাবে গায়ের রং সুন্দর ফর্সা করা যায় ।

কিউট ঃ বিদেশি ফল  কিউট  ।  কিন্তু বাংলাদেশ এই ফল পাওয়া যায় ।   এই ফলে ভিটামিন সি আপনার ত্বককে কোষ  হেল্প করে চেহারার কালচে কালচে দাগ দূর করতে সাহায্য করে ।  যারা কিউট ফল পাবে না ,  ঝামেলায় যেতে চান না তারা পেঁপে ডিম খেতে পারেন ।  তাহলে আপনি রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় খুঁজে পাবেন ।

পেঁপে ঃ পেপের উপকারিতা গুনে বেশি ।  লিভারের যত্নে পেঁপে  খাওয়া কথা বলা হয়েছে ,

আপনার চেহারাকে উজ্জ্বল করবে ও ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করবে ।  পেঁপেতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ থাকে ।  পেঁপে  আপনার   চেহারার জন্য খুব উপকারী ।  ত্বকের মৃত কোষ দূর করে থাকেন ।  এবং মুখে কালচে দাগ সরে যেতে সাহায্য করেন ।

গ্রীন টি ঃ গ্রিন টি কে অনেকেই শরীরের জন্য খেতে বলা হয়েছে বা অনেকেই শুনেছেন ।  কিন্তু গ্রিন টি চেহারা সুন্দর করতে সাহায্য করেন ।   সালাতের  গ্রীন টিতে আপনি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাবেন ।  আপনার চেহারা বলিরেখা বা কাল দাগ দূর করেন । আচ্ছা রাখি ভেতর থেকে উজ্জ্বল করে রাখেন ।

চিনি ও লেবুর রস ঃ

পরিমাণমতো লেবুর রসের সঙ্গে  1 চা চামচ চিনি মিশিয়ে মিশ্রন তৈরী করে নিন ।  এরপর মিশ্রণটি আপনার হাত পায়ে লাগিয়ে নিন ।  2 থেকে তিন মিনিট অপেক্ষা করুন ।  2 থেকে তিন মিনিট পর ভালো

করে ধুয়ে ফেলুন ।  এর ব্যবহার হচ্ছে সপ্তাহে একদিন এতেই যথেষ্ট ।

চেহারা নষ্ট হওয়ার কারণ জেনে নিন ।

আমরা  জীবনে বিভিন্ন ধরনের কাজে ব্যস্ত হয়ে   থাকি ।  ব্যস্ততার কারণে আমাদের  শরীর ও ত্বকের নিতে আমরা ভুলে যাই ।  আমাদের নানান ধরনের কাজে ব্যস্ত থাকার কারণে চেহারা সুন্দর ও সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায় ।   এবং   বিভিন্ন অভ্যাসের  কারনে আমাদের চেহারা নষ্ট হয়ে যায় ,  তাই আমরা আজ জেনে নেব কি কি কারনে চেহারা নষ্ট হয়ে যায় ।

 পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবে ঃ  আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকারী তা বর্ণনা করে শেষ করা যাবেনা ।  আমাদের যদি একদিন ঠিক হবে নাহলে চোখের নিচে  ফোলা ফোলা ভাব দেখা যায় ,  চেহারা ক্লান্তির ছাপ পড়ে ,  এরকম বিভিন্ন ধরনের সমস্যার কারণে আমাদের চেহারা নষ্ট হয়ে যায় ।  এবং আমাদের যদি ভাল হয় তাহলে ঘুম থেকে ওঠার পর শরীর চেহারা মন সবকিছুতেই ভালো লাগেনা । আমাদের ঘুমের কারণে শরীরে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে এজন্য আমাদেরকে পরিমাণ মতো সঠিক সময়ে ঘুমাতে হবে ।  তাই আমাদের চেহারা মন শরীর ভালো রাখার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম দেহে ক্লান্তি দূর করে শরীরকে সুন্দর রাখে ,  তাই আমরা জানতে পারলাম কিভাবে সুন্দর হওয়া যায়।

তামাক ও অ্যালকোহল গ্রহণ ঃ  আপনি যদি বেশি পরিমাণে অ্যালকোহল ও বেশি পরিমাণে তামাক এসব দ্রব্য গ্রহণ করে থাকেন তাহলে আপনার চেহারা অল্পতেই নষ্ট হয়ে যায় ।  এর ত্বকে নষ্ট আপনার শরীরের তরুণ হারিয়ে যায় ।  আপনার সিতামা গ্রহণ করলে কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় বলেন বা রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায় এর কথা বলেন যাই বলুন না কেন কিছুই কাজে আসবে না ।

তাপমাত্রায় তারতম্য ঃ  তাপমাত্রার তারতম্য চেহারা নষ্ট হয়ে যাওয়ার অন্তত একটি কারণ হচ্ছে ।  শীতে খুব অনেক ঠান্ডা বা রুম হিটার ব্যবহার ও একই ভাবে গরমে এসির মধ্যে খুব বেশি ঠান্ডা অনেকক্ষণ থাকা আমাদের ত্বকের জন্য খুব ক্ষতিকারক ।  ক্ষতিকর এতে ত্বকের তাপমাত্রা নষ্ট হতে সাহায্য করে ।  ত্বকের সৌন্দর্য লোপ পায় এটা কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় এ প্রশ্নের একটি বড় সমাধান

 অতিরিক্ত উদ্বেগ ও   দুশ্চিন্তা করা ঃ দির জীবনে বিভিন্ন জনের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা থেকে থাকে ।  এসব নিয়ে অনেক চিন্তা  ভাবনা নিয়ে  আমরা খুব টেনশন করে থাকি এজন্য আমাদের চেহারা নষ্ট হয়ে যায় ।  যারা অতিরিক্ত  চিন্তাভাবনা টেনশন করে থাকেন তাদের অল্প সময়ের মধ্যে চেহারা নষ্ট হয়ে যায় ।  এবং   ত্বকের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয় ।  এর  পরবর্তী আপনার চেহারা নষ্ট  হতে বেশি মহি লাগেনা ।  অল্প  সময়   মধ্যে আপনি  চেহারা নষ্ট হয়ে যাবে । কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় ও রাতারাতি ফর্সা  হওয়ার উপায় দুটি এই  বাধাপ্রাপ্ত হয় ।

Rate this post
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment