Class 7 - ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান

৭ম শ্রেণির ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুসন্ধানি কাজ ৩ pdf

1 min read

৭ম শ্রেণির ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুসন্ধানি কাজ ৩ : দাঁত পড়া নিয়ে আমরা বিভিন্ন এলাকার বিভিন্ন প্রচলিত রীতি-নীতি অনুসন্ধান করেছি। এছাড়া অন্যান্য বিষয়েও বিভিন্ন সমাজে নানা ধরনের রীতি-নীতি প্রচলিত আছে। আমরা সেগুলোও অনসন্ধান করতে পারি। দেখতে পারি -কোনো একটি সময়কালে, নির্দিষ্ট সমাজে এগুলো কেন তৈরি হয়েছে? অনুসন্ধানের ধাপ অনুসরণ করে আমরা প্রশ্ন তৈরি করি ও উত্তর খুঁজি। বয়সে যারা বড় তারা হয়তো এগুলো অনুসন্ধানে তথ্য দিয়ে আমাদের সাহায্য করতে পারে।

৭ম শ্রেণির ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুসন্ধানি কাজ ৩

বিষয়বস্তু: বাংলাদেশ ও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে প্রচলিত রীতি-নীতি

কিছু অনুসন্ধানের প্রশ্ন:
● শ্রেণিকক্ষে শিক্ষক প্রবেশ করলে আমরা কেন দাঁড়াই?
উত্তর: শিক্ষককে সম্মান প্রদর্শনের জন্য আমরা শ্রেণিকক্ষে শিক্ষক প্রবেশ করলে দাঁড়াই।

● কবে থেকে এই প্রচলন এসেছে?
উত্তর: সুদূর অতীত থেকেই এ নিয়মটি আমাদের দেশে প্রচলন এসেছে।

● কেন এই রীতির প্রচলন হলো?
উত্তর: শিক্ষকরা সমাজের সম্মানীয় ব্যক্তি। তাঁরা আমাদের শিক্ষাদান করেন। যা আমাদের মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে সাহায্য করে। এ বিষয়গুলো বিবেচনা করে শিক্ষকের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্য এ রীতির প্রচলন করা হয়েছে।

● আর কোন কোন দেশে এ ধরনের প্রচলন আছে? কোন কোন দেশে নেই?
উত্তর: উপমহাদেশের বিভিন্ন দেশ যেমন- ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান ইত্যাদি দেশে এ নিয়ম প্রচলিত আছে।
প্রশ্নে যে মূল বিষয়বস্তুগুলো রয়েছে:-

● তথ্য উৎস: বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা, ম্যাগাজিন, ইন্টারনেট, কোর্সটিকা ওয়েবসাইট এবং শ্রেণিশিক্ষক।
● তথ্য সংগ্রহের পদ্ধতি: ইন্টারনেটে কোর্সটিকা ওয়েবসাইট ভিজিট করব এবং শ্রেণিশিক্ষকের সহায়তা নেব।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: শিক্ষার্থীরা, বিশেষ কিছু সমস্যার কারণে আমরা ওয়েবসাইটে ছকটি তৈরি করতে পারছি না। তবে আমাদের পিডিএফ উত্তরমালায় তোমরা এই উত্তরটি ছক আকারেই পাবে।

– তথ্য সংগ্রহের ছক –

দেশ
রীতি-নীতি
কারণ

১. বাংলাদেশ
গর্ভাবস্থায় জোড়া কলা খাওয়া নিষিদ্ধ
বাংলাদেশের কিছু কিছু অঞ্চলের মানুষ বিশ্বাস করেন যে, গর্ভাবস্থায় কোন নারী যদি জোড়া কলা খায়, তাহলে তার জমজ সন্তান হবে।

২. জাপান
জাপানে বিয়ের সময় বর ও কনে তিনটি কাপের পানীয় থেকে তিনবার চুমুক দেন। এরপর তাঁদের বাবা-মা একইভাবে সেই কাপগুলোতে চুমুক দেন।
জাপানিদের বিশ্বাস, এতে পরিবারের মধ্যে বন্ধন পাকাপোক্ত হয়।

৩. থাইল্যান্ড
থাইল্যান্ডে একে অপরের গায়ে পানি ছিটিয়ে নববর্ষের উৎসব পালন করা হয়।
তারা মনে করে নববর্ষের দিনে গায়ে পানি ছেটালে বিগত বছরের পাপ শরীর থেকে ধুয়ে যাবে।

৪. চীন
চীনে শিশুর প্রথম জন্মদিনে বাবা-মা শিশুকে একটি কয়েন, একটি পুতুল আর একটি বইয়ের মাঝখানে রাখেন।
কয়েন, পুতুল আর বইয়ের মধ্যে শিশু যেটা আগে ধরবে, বুঝতে হবে সেদিক থেকেই সমৃদ্ধি অর্জন করবে সে।

● তথ্য বিশ্লেষণ: আমি বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা, ম্যাগাজিন এবং ইন্টারনেটের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে প্রচলিত রীতি-নীতি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করেছি। এ তথ্যগুলো একত্রিত করে একটি ছকে সাজিয়েছি এবং এটা উপলব্ধি করতে পেরেছি যে, বাংলাদেশ এবং বিশ্বের অন্যান্য দেশসমূহে অদ্ভুত কিছু রীতি-নীতি অনুসরণ করা হয়। এ রীতি-নীতিগুলো বংশ পরম্পরায় প্রচলিত থাকায় এখনও মানুষ এগুলো অনুসরণ করছে।

● ফলাফল বা সিদ্ধান্ত:  উক্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে আমরা বেশ কিছু সিদ্ধান্তে পৌঁছেছি। তা হল—
১. বিভিন্ন দেশের জনগোষ্ঠীর মাঝে গুরুত্বপূর্ণ সব রীতি-নীতি রয়েছে।
২. এসকল রীতি-নীতিগুলো বিভিন্ন জাতি-গোষ্ঠীর সংস্কৃতির গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ।
৩. এসকল রীতি-নীতি মান্য করা বাধ্যতামূলক না হলেও মানুষ কল্যাণের কথা চিন্তা করে এগুলো অনুসরণ করে।

● উপস্থাপন: শিক্ষার্থীরা নিজেদের মত করে স্বতস্ফূর্তভাবে উপস্থাপন করবে।

উত্তরমালা

5/5 - (1 vote)
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment