আমাদের দৈনন্দিন জীবনের জন্য স্পাইসি বিফ কাবাব জানা আবশ্যক।  প্রিয় পাঠক, আমাদের আজকের  আলোচনায় আপনাকে স্বাগতম। আপনি যদি এই বিষয়টি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে চান, তাহলে খুব সহজেই আমাদের আজকের এই পোস্ট থেকে জানতে পারবেন। আপনাদের সুবিধার কথা চিন্তা করে বিস্তারিত তথ্য এখানে তুলে ধরেছি। আশা করছি এটি আপনাকে খুব ভালোভাবে সাহায্য করবে। তাই অবশ্যই আর্টিকেল টি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়বেন।

বিশেষ কোনো অকেশনে খাবারের মেন্যুটা হতে হয় একদম স্পেশাল, তাই না? উৎসব মানেই তো পোলাও, মাংস ভুনা, কোফতা, দই আরও কত মজার মজার খাবার! কিন্তু সাথে কাবাব না থাকলে কিন্তু মেন্যুটা ইনকমপ্লিট থেকে যায়। বিফ টিকিয়া বা বিফ কাবাব আমার খুবই পছন্দের। অল্প সময়ে হাতের কাছে থাকা উপকরণ দিয়েই মজাদার কাবাব বানিয়ে নেওয়া যায়। স্পাইসি বিফ কাবাব তৈরি করতে কী কী লাগছে, চলুন জেনে নেই।

কী কী উপকরণ লাগবে?

  • গরুর মাংস- ৫০০ গ্রাম (হাড় ছাড়া)
  • ছোলার ডাল বা বুটের ডাল- ২ কাপ
  • আদা বাটা- ১ টেবিল চামচ
  • রসুন বাটা- ১ টেবিল চামচ
  • শুকনো মরিচ- ৪টি
  • লবণ- পরিমাণমতো
  • পেঁয়াজ কুঁচি- ২ টেবিল চামচ
  • কাঁচা মরিচ কুঁচি- ২ টেবিল চামচ
  • গোল মরিচের গুঁড়ো- হাফ চা চামচ
  • গরম মশলার গুঁড়ো- হাফ চা চামচ
  • ডিম– ১টি
  • তেল- কাবাব ভাজার জন্য

কীভাবে তৈরি করবেন স্পাইসি বিফ কাবাব?

১) হাড় বাদে শুধুমাত্র সলিড মাংসের পিস নিতে হবে। প্রথমেই মাংসের পিসগুলো কিমা করে নিন।

২) এবার প্রেশার কুকারে ২ কাপ পানিতে স্বাদ অনুযায়ী লবণ, আদা-রসুন বাটা, শুকনো মরিচ, গরম মশলার গুঁড়ো, ছোলার ডাল ও মাংসের কিমা একসাথে দিয়ে সেদ্ধ করে নিন।

৩) পানি শুকিয়ে মাংস ও ডাল নরম হয়ে গেলে ব্লেন্ডার বা শিলপাটায় ভালোভাবে বেটে নিতে হবে।

৪) এবার পেঁয়াজ কুঁচি, কাঁচা মরিচ কুঁচি, গোল মরিচের গুঁড়ো, ডিম ও সামান্য লবণ দিয়ে ভালোভাবে কাবাবের মিশ্রণ বানিয়ে নিন। ডিম দিলে খুব ভালোভাবে বাইন্ডিং হয়।

৫) এবার পছন্দমতো শেইপে কাবাব বানিয়ে নিন। একটু বেশি ঝাল ঝাল কাবাব খেতে চাইলে চিলি ফ্লেক্স বা বোম্বাই মরিচ অ্যাড করতে পারেন।

৬) ফ্রায়িং প্যানে তেল গরম করতে দিন। ডুবো তেলে কাবাবগুলো ভাজতে হবে। তেল ভালোভাবে গরম হয়ে গেলে কাবাব এপিঠ ওপিঠ করে ভেজে নিন। খুব বেশি জোরে তাপ দিবেন না, এতে কাবাবগুলো পুড়ে যাবে।

বোনাস টিপস

মাংস ও ডালের অনুপাতটা ঠিক রাখবেন এবং পানি ভালোভাবে শুকিয়ে গেলে তারপর বাটবেন। এতে কাবাব ভেঙে যাবে না, খেতেও টেস্টি হবে। অনেকে কাঁচা পেঁয়াজ কাবাবে পছন্দ করেন না, তারা পেঁয়াজ ভেজে দিতে পারেন।

ব্যস, স্পাইসি বিফ কাবাব বা বিফ টিকিয়া রেডি টু সার্ভ। বিরিয়ানি, পোলাও, খিচুড়ি সবকিছুর সাথেই বেশ ভালো মানিয়ে যায় এটি। বাচ্চাদের টিফিনেও দিতে পারবেন এই কাবাবটি। সেইম রেসিপি ফলো করে মাটন দিয়ে কাবাব বানানো যাবে। যারা অ্যালার্জি বা অন্য কারণে গরুর মাংস খান না, তারা মাটন দিয়ে ট্রাই করে দেখুন। আজ তাহলে এ পর্যন্তই, ভালো থাকবেন।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x