প্রোগ্রামিং হলো নির্দিষ্ট উপায়ে কিছু সংকেত লিখা। আর এর কাজ হলো কম্পিউটারকে কোন কমান্ড বা আদেশ দেওয়া। এর জন্য বিভিন্ন ভাষা ব্যবহার করা হয়। কেন বিভিন্ন ভাষা ব্যবহার করা হয় তা জানার আগে চলুন জেনে নেই প্রোগ্রামিং কি।

প্রোগ্রামিং কি?

কম্পিউটারকে আপনি যদি বাংলায় বা ইংলিশে কোন কমান্ড দেন, কম্পিউটার কিন্তু তা বুঝতে পারবে না। কম্পিউটার শুধু দুটো জিনিসই বুঝে। তা হলো 0 এবং 1। অর্থাৎ বাইনারি ভাষা। এ কারণে কম্পিউটারকে কোন কমান্ড দিতে হলে 0 এবং 1 ব্যবহার করেই দিতে হবে।

এখন সকলের মনে প্রশ্ন হতে পারে, সেটা কীভাবে দিবেন?

সকল কমান্ড যদি 0 আর 1 দিয়ে দিতে চাই তাহলে পাগল হওয়া ছাড়া আমাদের আর পথ থাকবে না!

আর এ কারণেই তৈরি হয়েছে প্রোগ্রামিং ভাষা। যা কম্পিউটার এবং মানুষের ভাষার মাঝামাঝি ভাষা হিসেবে কাজ করে। এ ভাষায় কোন কমান্ড দিলে কম্পাইলারের মাধ্যমে কম্পিউটার সেটাকে প্রথমে বাইনারি ভাষায় অনুবাদ করে। তারপর সেটাকে পড়ে এবং সে অনুযায়ী কমান্ড পালন করে।

খেয়াল রাখবেন, সব ভাষা ব্যবহার করেই কিন্তু সব ধরণের কমান্ড দেওয়া যায় না। কাজের ধরণ অনুযায়ী বিভিন্ন ধরণের প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যবহার করা হয়। যাতে কঠিন সব আদেশগুলোও খুব সহজে আমরা কম্পিউটারকে বোঝাতে পারি।

জনপ্রিয় কয়েকটি প্রোগ্রামিং ভাষা

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রামিং ভাষা চালু হয়েছে। দিন দিন এর সংখ্যাও বাড়ছে। যার মাঝে কিছু এখনও চালু আছে বা কিছু বিলুপ্ত হয়ে গিয়েছে। আবার কিছুর ব্যবহার নেই বললেই চলে। বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় কয়েকটি প্রোগ্রামিং ভাষা হলো –

ভাষার নাম বছর উদ্ভাবক প্রয়োগক্ষেত্র
FORTRAN 1957 IBM বিজ্ঞান / প্রকৌশল
ALGOL 1958 ইন্টারন্যাশনাল গ্রুপ বিজ্ঞান / প্রকৌশল
APL 1960 MIT, USA কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা
BASIC 1964 থার্টমথ কলেজ বিজ্ঞান / প্রকৌশল / ব্যবসায় / শিক্ষা
C 1973 বেল ল্যাবরেটরি সাধারণ

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x