বাস্তুতান্ত্রিক বৈচিত্র্য কাকে বলে? What is called Ecological diversity?)

পৃথিবীর বিভিন্ন বাস্তুতন্ত্রগুলির মধ্যে যে উদ্ভিদ ও প্রাণীগত বিভিন্নতা রয়েছে, তাকেই বাস্তুতান্ত্রিক বৈচিত্র্য বলে। উদাহরণ স্বরূপ বলা যায়– অরন্যের বাস্তুতন্ত্র, তৃনভূমির বাস্তুতন্ত্র, মরুভূমির বাস্তুতন্ত্র, জলাভূমির বাস্তুতন্ত্র।

বাস্তুতান্ত্রিক বৈচিত্র্যের বৈশিষ্ট্য

  • জৈব ও অজৈব পরিবেশের উপাদানের পার্থক্য ও আন্তঃপ্রক্রিয়ায় পৃথক পৃথক বাস্তুতান্ত্রিক বৈচিত্র্য গড়ে ওঠে।
  • বিভিন্ন বাস্তুতন্ত্রে ভিন্ন ভিন্ন প্রজাতি, প্রজাতির জিনগত পার্থক্য ও একই প্রজাতির অভিযোজন এবং অভিব্যক্তির ক্ষেত্রে পার্থক্য লক্ষ করা যায়।
  • প্রাকৃতিক পরিবেশের উপাদানের সরবরাহ বিভিন্ন মাত্রায় হওয়ায় একই ভৌগলিক অঞ্চলে অবস্থানকারী বিভিন্ন বাস্তুতন্ত্রের শক্তি অর্জন, স্থানান্তর ও ব্যবহার ভিন্ন মাত্রায় হয়ে থাকে।
  • কিছু কিছু প্রজাতির একটি নির্দিষ্ট বাসস্থলে বসবাস সত্ত্বেও তাদের বাস্তুতান্ত্রিক নিচ্ (Niche) পার্শ্ববর্তী বাস্তুতন্ত্রের ওপর অনেকাংশে নির্ভরশীল।
  • একই বাস্তুতন্ত্রে বসবাসকারী বিভিন্ন প্রজাতির মধ্যে ফিডব্যাক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বাস্তুতন্ত্রের ভারসাম্য বজায় থাকে ও নির্দিষ্ট প্রজাতি ধারাবাহিকভাবে ক্লাইমেক্স স্তরে অভিযোজিত বা স্থানান্তরিত হয়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x