Blog

আর্টিকেল লিখে ১ থেকে ২০ ডলার পর্যন্ত আয় করুন।

1 min read

এ পর্বে আমরা শিখব আর্টিকল লিখে কীভাবে আয় করা যায়। একটি আর্টিকল লিখে ১ থেকে ২০ ডলার পর্যন্ত আয় করা সম্ভব যদি সঠিকভাবে সঠিক জায়গায় কাজ করেন। নানা বিষয়ে আর্টিকল লেখার প্রয়োজন হয়ে থাকে। আর্টিকল লেখার জন্য আপনাকে সাহিত্যিক হতে হবে না। আপনার প্রয়োজন হবে কিছু সফটওয়্যার ও কৌশল। এগুলো থাকলে যেকোনো বিষয়ে আর্টিকল লিখতে পারবেন। বিষয়গুলো হলো যদি আপনার ক্লায়েন্টের জন্য যথেষ্ট পরিমাণ বিষয়বস্ত্ত লিখতে অপারগ হন, তাহলে ভিজিট করুন www.ezine.com সাইটে। এখান থেকে আপনার ওয়েবসাইটের বিষয়বস্ত্ত অনুযায়ী আর্টিকল খুঁজে বের করুন।

আপনার ব্রাউজার থেকে www.ezine.com-এ প্রবেশ করুন। এটি একটি আর্টিকল সাইট। এই সাইটে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর প্রচুর আর্টিকল রয়েছে। আর্টিকল যে বিষয়ের ওপর হোক না কেন, এখান থেকে প্রয়োজনীয় আর্টিকলটি খুঁজে বের করতে সার্চ বক্সে বিষয় লিখে সার্চ দিলে আপনার সার্চ সংক্রান্ত অনেকগুলো আর্টিকল চলে আসবে।

এবার যেকোনো একটি আর্টিকল নির্বাচন করুন। আর্টিকলটি আপনার কম্পিউটারে নোটপ্যাড বা এমএস ওয়ার্ডে কপি করে সেভ করুন। এই আর্টিকলটি সরাসরি আপনার ক্লায়েন্টকে দেবেন না। আর্টিকলটির অর্থ ঠিক রেখে বাক্যগুলোকে পরিবর্তন করে কম্পিউটারে সেভ করলে আপনার জন্য একটি আর্টিকল তৈরি হবে।

এবার আর্টিকলটির গ্রামার ও স্পেলিং মিসটেক চেক করে বা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঠিক করার জন্য জিনজার সফটওয়্যারটি ব্যবহার করুন। জিনজার সফটওয়্যারটি ইনস্টল করে দুইভাবে ব্যবহার করা যায়। জিনজার সফটওয়্যারটি ইনস্টল হয়ে গেলে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড চালু করলেই কাজ হবে। এবার আর্টিকলটির গ্রামার ও স্পেলিং মিসটেক চেক করতে পালক চিহ্নিত আইকনে ক্লিক করুন। ফলে প্রতিটি লাইন চেক করতে থাকবে।
এবার স্বয়ংক্রিয়ভাবে গ্রামার ও স্পেলিং মিসটেক সংশোধন করতে Approve-এ ক্লিক করুন। মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ছাড়াও আপনি জিনজার সফটওয়্যারটি ব্যবহার করতে পারেন। এটিকে এখন একটি সফটওয়্যার দিয়ে Duplicate check করবেন। সফটওয়্যারটির নাম হচ্ছে DUPEFREEPRO।
dupefree সফটওয়্যারটির মাধ্যমে আপনার লেখা আর্টিকল ও মূল বা অরিজিনাল আর্টিকলের মধ্যে কতটুকু পার্থক্য তা জানতে পারবেন। লক্ষ করুন, এই সফটওয়্যারটির নিচে একটি (%) রয়েছে। আপনি মূল আর্টিকলটি (যেটি আপনি ezine থেকে কপি করেছেন) dupefree সফটওয়্যারের প্রথম ঘরে ও আপনার লেখা আর্টিকলটি দ্বিতীয় ঘরে দিয়ে নিচের Compare-এ ক্লিক করলে আপনার লেখা আর্টিকলটি মূল ইজাইন আর্টিকল থেকে কতটুকু ডুপ্লিকেট করেছে তা ওই (%) ঘরে দেখা যাবে।
এর অর্থ হচ্ছে আপনার লেখা আর্টিকলটি মূল আর্টিকলের সাথে তুলনা করলেন। আপনার (%) যদি সর্বোচ্চ ২০ দেখায়, তাহলে আপনার লেখা আর্টিকলটি ক্লায়েন্টকে দিতে পারবেন। কারণ, শতকরা ২০ ভাগের বেশি হলে আর্টিকলটি গুগল ডুপ্লিকেট হিসেবে চিহ্নিত করবে।

এছাড়া একটি সাইট থেকেও আর্টিকল চেক করতে পারবেন। যেমন- http://searchenginereports.net/আর্টিকল check.aspx এই সাইটে আপনার লেখা আর্টিকল ইনসার্ট করলে আর্টিকলের ডুপ্লিকেট বাক্যগুলোকে হাইলাইট করবে।
ছবিতে চিহ্নিত স্থানে আপনার আর্টিকলটি পেস্ট করে create report-এ ক্লিক করলে ডুপ্লিকেট বাক্যগুলো নিচে চলে আসবে। সেগুলো পরিবর্তন করুন।
সুতরাং, কোনো বিষয়ের ওপর লিখতে চাইলে সেই বিষয়ের ওপর ভালো ধারণা না থাকে, তবে যে ধাপগুলোর মাধ্যমে আপনার লেখা পূর্ণাঙ্গ করতে পারেন তা হলো:
* ezine.com * ehow.com * readbud.com
* আর্টিকেল bases.com থেকে নির্দিষ্ট বিষয়ের ওপর তিনটি আর্টিকল নিন।
* এই তিনটি থেকে আর্টিকল থেকে একটি আর্টিকল তৈরি করুন।
* এই আর্টিকলটিকে এমনভাবে পরিবর্তন করবেন যাতে সোর্স আর্টিকলগুলোর সাথে ডুপ্লিকেট না হয়। আর্টিকল লেখা সহজ করার জন্য ওয়ার্ড ফ্লাড সফটওয়্যারটি ব্যবহার করতে পারেন। আর্টিকলটির গ্রামার ও স্পেলিং মিসটেক চেক করে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঠিক করার জন্য জিনজার সফটওয়্যারটি ব্যবহার শুরু করুন।
* এবার DupeFreePro সফটওয়্যার দিয়ে সোর্স আর্টিকলগুলোর সাথে আপনার লেখা আর্টিকলগুলোর সাথে ডুপ্লিকেট চেক করুন।
* Duplicate থাকলে Modify করুন।
* এবার Online-এ Duplicate Check করার জন্য http://searchenginereports.net/ সাইট ব্যবহার করুন।
আমরা এতক্ষণ শিখলাম কীভাবে পূর্ব অভিজ্ঞতা না থাকলেও আর্টিকল লেখা যায়। এবার দেখা যাক, আর্টিকল রাইটার হিসেবে কোথায় কাজ করবেন:

  1. www.textbroker.com
  2. Jobs.problogger.net
  3. jobs.uhaul.com
  4. create.demandstudios.com/writer
  5. crowdsource.com
  6. elance.com
  7. odesk.com (Now: upwork.com)
  8. freelancer.com
  9. getacoder.com
Rate this post
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment

x