b

Vitamin E একটি পুষ্টি উপাদান যা আপনার শরীরের আপনার ইমিউন সিস্টেমকে সমর্থন করতে এবং আপনার কোষগুলিকে পুনরুজ্জীবিত করতে সাহায্য করে। এটিতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট (Antioxidant) এবং প্রদাহবিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা আপনার দৈনন্দিন স্বাস্থ্যের জন্য যথেষ্ট প্রয়োজনীয়। Vitamin E ত্বকের স্বাস্থ্য এবং চেহারার উপকারিতার জন্য সর্বাধিক পরিচিত। প্রদাহ কমাতে এবং আপনার ত্বককে তরুণ দেখানোর জন্য এটি আপনার মুখে সাময়িকভাবে প্রয়োগ করা যেতে পারে। ই-ক্যাপ ক্যাপসুল এর দাম কাজ খাওয়ার নিয়ম–

ই-ক্যাপ ক্যাপসুলের দাম (Price of E-cap capsule)
প্রতিটি ই-ক্যাপ ক্যাপসুলের দাম ৮ টাকা 

ভিটামিন-ই ক্যাপসুলের দাম (Price of Vitamin E-capsule)
প্রতিটি  ভিটামিন ই ক্যাপসুলের দাম ৮ টাকা 

ই-ক্যাপ ২০০ এর দাম ৪.৫০ টাকা
ভিটামিন ই ক্যাপসুলের কাজ (Application of Vitamin E-capsule)

  • Vitamin E এর অভাব পূরণ করে।
  • ত্বক ও চুলের রূপচর্চায় ব্যহার করা হয়।
  • Antioxidant হিসেবে কাজ করে
  • হার্টের রোগে ব্যবহার করা হয়।
  • অক্সিজেন থেরাপি।
  • রক্তাল্পতা কমাতে।

 

ই-ক্যাপ এর উপকারিতা ও অপকারিতা
Vitamin E-capsule ব্যবহারে অনেক ধরণের উপকারিতা আছে। তবে নিয়ম মেনে না ব্যবহার করলে উপকারের চেয়ে বেশি অপকারিতা হয়। নিচে ই-ক্যাপ ক্যাপসুলের উপকারিতা ও অপকারিতা দেয়া হল–

উপকারিতা (Benefits)

 

  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।
  • চুল ও ত্বকের স্বাস্থ্য ভাল রাখে।
  • ক্ষত সাড়ায়।
  • বয়সের ছাপ দূর করে।
  • অল্প বয়সে চুল পাকা রোধ করে।

 

অপকারিতা (Disadvantages)
এলার্জিক রিয়াকশন।

ভিটামিন ই তেল।
ভিটামিন ই তেল চুল ও ত্বকের রূপচর্চার পাশাপাশি, শীতে ঠোঁট ফাটাতেও ব্যবহার করা যায়। এছাড়া চোখের চারপাশের ডার্ক সার্কেল দূর করতে ভিটামিন ই তেল এর ব্যবহার হচ্ছে।

ই-ক্যাপ এর ডোজ
কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্যের উন্নতি: প্রতিদিন 400 IU-800 IU
প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে অভাব সিন্ড্রোম: প্রতিদিন 200 IU-400 IU
শিশুদের মধ্যে অভাব সিন্ড্রোম: প্রতিদিন 200 IU
থ্যালাসেমিয়া: প্রতিদিন 800 IU
সিকেল-সেল অ্যানিমিয়া: প্রতিদিন 400 IU
ত্বক ও চুলের উন্নতি: প্রতিদিন 200 IU-400 IU
প্রাপ্তবয়স্কদের দীর্ঘস্থায়ী ঠান্ডা: প্রতিদিন 200 IU

মিথষ্ক্রিয়া
ভিটামিন ই, ভিটামিন এ এবং ভিটামিন কে এর কার্যকারিতা ব্যাহত করতে পারে এবং ওয়ারফারিনের প্রভাবকে শক্তিশালী করে।

গর্ভাবস্থায় ই-ক্যাপ এর ব্যবহার
ভিটামিন ই গর্ভাবস্থায় এবং স্তন্যদানকালে ব্যবহারের কোন বিধি নিষেধ নেই। ভিটামিন ই বাচ্চাদের জন্য নিরাপদ।

ই-ক্যাপ ক্যাপসুলের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

  • বমি বমি ভাব
  • বমি
  • ডায়রিয়া
  • পেট ব্যাথা
  • র‍্যাশ
  • এলার্জি
  • মারাত্নক পর্যায়ে শ্বাসকষ্ট

সংরক্ষণ
আলো এবং তাপ থেকে দূরে একটি শুষ্ক জায়গায় রাখুন। শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x