পড়াশোনা
1 min read

অর্থনীতি বিষয়ক প্রশ্ন ও উত্তর (পর্ব-১)

প্রশ্ন-১. মূলধন কাকে বলে?
উত্তর :
 মানুষের শ্রমের দ্বারা উৎপন্ন সম্পদের যে অংশ সরাসরি ভোগের জন্য ব্যবহার না হয়ে পুনরায় অধিকতর উৎপাদন কাজে লাগে তাকেই অর্থনীতিতে মূলধন বলে।

প্রশ্ন-২. নিমজ্জমান মূলধন কাকে বলে?
উত্তর :
 যে মূলধন কেবল এক জাতীয় উৎপাদন কাজে ব্যবহৃত হয় এবং অন্য ক্ষেত্রে বা অন্য উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত হতে পারে না তাকে নিমজ্জমান মূলধন বলে। যেমন- কাঠের লাঙল।

প্রশ্ন-৩. ভাসমান মূলধন কাকে বলে?
উত্তর :
 যেসব মূলধন একাধিক উৎপাদন কাজে ব্যবহার করা যায় এবং প্রয়োজনবোধে একস্থান হতে অন্যস্থানে স্থানান্তর করা যায় তাকে ভাসমান মূলধন বলে।

প্রশ্ন-৪. প্রকৃত মজুরি কি?
উত্তর :
 দৈনন্দিন জীবনের বিভিন্ন প্রকার অভাব পূরণের জন্য শ্রমিক তার আর্থিক মজুরি দিয়ে যে পরিমাণ দ্রব্য ও সেবা ক্রয় করে এবং কর্মস্থল থেকে যেসব সুযোগ-সুবিধা লাভ করে এ দুয়ের সমষ্টি হলো প্রকৃত মজুরি।

প্রশ্ন-৫. সরকারি ঋণ কাকে বলে?
উত্তর :
 সরকার দেশের অভ্যন্তরে বিভিন্ন ব্যক্তি সংস্থার নিকট থেকে অথবা বিদেশি সরকার বা প্রতিষ্ঠানের নিকট হতে যে ঋণ গ্রহণ করে তাকে সরকারি ঋণ বলে।

প্রশ্ন-৬. সম্পূরক শুল্ক কাকে বলে?
উত্তর :
 অনেক দ্রব্য সামগ্রীর উপর আমদানি শুল্ক বা আবগারি শুল্ক বা ভ্যাট আরোপের পরও অতিরিক্ত যে শুল্ক আরোপ করা হয়, তাকে সম্পূরক শুল্ক বলে। এটি বাংলাদেশ সরকারের আয়ের অন্যতম প্রধান উৎস।

প্রশ্ন-৭. বিহিত মুদ্রা কাকে বলে?
উত্তর :
 যে মুদ্রা সরকার বা কেন্দ্রীয় ব্যাংক হতে ইস্যু করা এবং যা সবাই আইনগত গ্রহণ করতে বাধ্য থাকে তাকে বিহিত মুদ্রা বলে।

প্রশ্ন-৮. বিহিত মুদ্রাকে কত ভাগে ভাগ করা যায়?
উত্তর :
 বিহিত মুদ্রাকে ২ (দুই) ভাগে ভাগ করা যায়।

প্রশ্ন-৯. কর রাজস্ব কাকে বলে?
উত্তর :
 সরকার দেশের নিবাসী বা অনিবাসী ব্যক্তি, বিভিন্ন ব্যবসা ও শিল্পপ্রতিষ্ঠান এবং পণ্যের ওপর যে কর ধার্য করে তা থেকে পাওয়া আয়কে কর রাজস্ব বলে।

প্রশ্ন-১০. আয়কর কাকে বলে?
উত্তর :
 কোনো ব্যক্তির ব্যক্তিগত আয়ের ওপর যে কর ধার্য করা হয়, তাকে আয়কর বলে। বাংলাদেশ সরকারের আয়ের একটি অন্যতম উৎস হলো আয়কর।

প্রশ্ন-১২. শ্রমের দক্ষতা কাকে বলে?
উত্তর :
 শ্রমিকের কাজ করার ক্ষমতা বা উৎপাদন ক্ষমতাকে শ্রমের দক্ষতা (Efficiency of Labour) বলে।

প্রশ্ন-১৪. অর্থনৈতিক ব্যবস্থা কাকে বলে?
উত্তর :
 যে সব প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো ও অর্থনৈতিক পরিবেশ দ্বারা মানুষের অর্থনৈতিক কার্যকলাপ পরিচালিত হয়, তাকে অর্থনৈতিক ব্যবস্থা বলে।

প্রশ্ন-১৫. ক্ষুদ্রঋণ কি?
উত্তর :
 ক্ষুদ্রঋণ হচ্ছে এমন এক ধরনের ঋণ যা দরিদ্রের, বিশেষ করে মহিলাদের দেওয়া হয় যারা প্রচলিত ব্যাংক থেকে ঋণ পাবার যোগ্য নয়।

প্রশ্ন-১৬. মোট জাতীয় উৎপাদন কাকে বলে?
উত্তর :
 কোনো নির্দিষ্ট সময়ে, সাধারণত এক বছরে কোনো দেশের জনগণ মোট যে পরিমাণ চূড়ান্ত দ্রব্য ও সেবা উৎপাদন করে তার অর্থমূল্যকে মোট জাতীয় উৎপাদন (GNP) বলে।

প্রশ্ন-১৭. চাহিদার আয় স্থিতিস্থাপকতা কাকে বলে?
উত্তর :
 দ্রব্যের দামের পরিবর্তন ছাড়াই ক্রেতার আর্থিক আয়ের শতকরা পরিবর্তনের ফলে চাহিদার যে শতকরা পরিবর্তন ঘটে, এ দুয়ের অনুপাতকে চাহিদার আয় স্থিতিস্থাপকতা বলে।

প্রশ্ন-১৮. মানবীয় সম্পদ কাকে বলে?
উত্তর :
 যে সম্পদগুলো দেখা যায় না বা পরিমাপ করা যায় না সেগুলোকে মানবীয় সম্পদ বলে। মানুষের জ্ঞান, বুদ্ধি, দক্ষতা, শক্তি, আগ্রহ, মনোভাব ইত্যাদি গুণগুলো মানবীয় সম্পদ। এই সম্পদগুলো অনুশীলন বা চর্চার মাধ্যমে বৃদ্ধি করা যায়।

প্রশ্ন-১৯. সামষ্টিক অর্থনীতি কাকে বলে?
উত্তর :
 অর্থনীতির যে শাখায় অর্থনীতির বিভিন্ন ধারণা বা ঘটনাকে সামগ্রিকভাবে তথা জাতীয় পর্যায়ে বিশ্লেষণ করা হয়, তাকে সামষ্টিক অর্থনীতি বলে।

প্রশ্ন-২০. উৎপাদন সম্ভাবনা রেখা কি?
উত্তর :
 উৎপাদন সম্ভাবনা রেখা হলো এমন একটি রেখা, যে রেখার বিভিন্ন বিন্দুতে নির্দিষ্ট পরিমাণ সম্পদ ও চলতি প্রযুক্তি সাপেক্ষে দুটি উৎপন্ন দ্রব্যের সম্ভাব্য বিভিন্ন সংমিশ্রণ নির্দেশ করে।

Rate this post