পড়াশোনা

পঞ্চম অধ্যায় : শৈবাল ও ছত্রাক, একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির জীববিজ্ঞান ১ম পত্র

1 min read

প্রশ্ন-১। শৈবাল কাকে বলে?
উত্তরঃ এককোষী বা বহুকোষী সমাঙ্গদেহী ক্লোরোফিলযুক্ত সরল প্রকৃতির উদ্ভিদগোষ্ঠীকে শৈবাল বলে।

প্রশ্ন-২। শৈবাল কেন স্বভোজী?
উত্তরঃ শৈবাল কোষে ক্লোরোফিল থাকায় এরা স্বভোজী।

প্রশ্ন-৩। সমাঙ্গদেহী কাকে বলে?
উত্তরঃ যেসব উদ্ভিদের দেহকে মূল, কাণ্ড ও পাতায় ভাগ করা যায় না তাদেরকে সমাঙ্গদেহী বলে। এরা Thallophyta বিভাগের অন্তর্ভুক্ত। ক্লোরোফিলের উপস্থিতি ও অনুপস্থিতির ভিত্তিতে এদের দুটি শ্রেণিতে ভাগ করা হয়েছে। ক্লোরোফিলযুক্ত Algae এবং ক্লোরোফিলবিহীন Fungi।

প্রশ্ন-৪। শৈবালে কত ধরনের জনন দেখা যায়?
উত্তরঃ শৈবালে তিন ধরনের জনন দেখা যায়। যথাঃ- ক. অঙ্গজ, খ. অযৌন এবং গ. যৌন।

প্রশ্ন-৫। Ulothrix কি?
উত্তরঃ Ulothrix একটি অশাখ, সুত্রবৎ, সবুজ শৈবাল। সাধারণত স্রোত বিশিষ্ট জলাশয়ে নিমজ্জিত কোন শক্ত বস্তুর সাথে সংলগ্ন হয়ে জন্মায়। Ulothrix এর অধিকাংশ প্রজাতি স্বাদু পানিতে জন্মে এবং কিছু প্রজাতি সামুদ্রিক।

হোল্ডফাস্ট কী?
উত্তরঃ এর সুতার পশ্চাৎ অংশের সর্বশেষ অর্থাৎ পাদদেশের কোষটি বর্ণহীন, সরু ও লম্বাটে। এর নামই হোল্ডফাস্ট।

জুওস্পোর কি?
উত্তরঃ জুওস্পোর হচ্ছে নগ্ন, সচল ও ফ্লাজেলাযুক্ত স্পোর।

আইসোগ্যামেট কাকে বলে?
উত্তরঃ একই প্রকার গঠন ও আকৃতি বিশিষ্ট দুটি গ্যামেটকে আইসোগ্যামেট বলে।

দাঁদের লক্ষণ কী?
উত্তরঃ দাঁদের লক্ষণ– চামড়ায় ছোট ছোট লাল ফুসকুড়ি দেখা যায়। আক্রান্ত স্থানে এটি প্রায়শই রিং এর মত গঠন সৃষ্টি করে। মাঝে মাঝে লাল ক্ষতের সৃষ্টি হয়। ক্ষতের সুনির্দিষ্ট প্রান্তসীমা থাকে।

লাইকেন কি?
উত্তরঃ লাইকেন হচ্ছে একটি শৈবাল ও একটি ছত্রাকের সবঅবস্থান। শৈবাল ও ছত্রাক পরস্পর এমনভাবে সংযুক্ত থাকে যে দেখে মনে হয় যেন এরা একটি উদ্ভিদ। একটি নির্দিষ্ট প্রজাতির ছত্রাক ও একটি সালোকসংশ্লেষণকারি নির্দিষ্ট প্রজাতির শৈবাল যখন একসাথে বসবাস করে একটি থ্যালাস সৃষ্টি করে তখন তাকে লাইকেন বলে।

Malvaceae গোত্রের শনাক্তকারী বৈশিষ্ট্য কি কি?
উত্তরঃ Malvaceae গোত্রের শনাক্তকারী বৈশিষ্ট্য হচ্ছে–

  • উদ্ভিদের কচি অংশে রোম ও মিউসিলেজপূর্ণ (পিচ্ছিল) রস বিদ্যমান থাকে।
  • পাতা সরল, একান্তর, মুক্ত-পার্শ্বীয় উপপত্রযুক্ত হয়।
  • পুষ্প সাধারণত উপবৃত্তিযুক্ত এবং পাপড়িগুলো কু্ঞ্চিত ও মিউসিলেজপূর্ণ রসযুক্ত।
  • পরাগধানী একপ্রকোষ্ঠী ও বৃক্কাকার হয়।
  • পুংকেশর বহু, একগুচ্ছ ও দললগ্ন; পুংকেশরীয় নালিকা গর্ভদন্ডের চারিদিকে বেষ্টিত থাকে।
  • পরাগরেণু বৃহৎ ও কন্টকিত হয়।

ছত্রাক এর বৈশিষ্ট্য লিখ।

নিচে এর বৈশিষ্ট্য দেওয়া হলো—

  • ছত্রাক সমাঙ্গদেহী অসবুজ উদ্ভিদ।
  • ক্লোরোফিল না থাকায় এরা সালোকসংশ্লেষণে অক্ষম। তাই খাদ্যের জন্য অন্যের ওপর নির্ভর করতে হয় অর্থাৎ পরভোজী।
  • এদের দেহ এককোষী বা বহুকোষী, সূত্রাকার।
  • এরা দ্বিবিভাজন, বাডিং ইত্যাদি প্রক্রিয়ায় বংশবিস্তার করে।
  • পরভোজী বা মৃতভোজী হওয়ায় এরা বাসি, পচা খাদ্যদ্রব্যে বা জৈব পদার্থ পূর্ণ মাটিতে জন্মায়।
Rate this post
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment