পড়াশোনা

পদার্থবিজ্ঞান প্রশ্ন ও উত্তর (পর্ব-৩৫)

1 min read

প্রশ্ন-১। কেলভিন স্কেলে বরফের গলনাংক কত?
উত্তরঃ কেলভিন স্কেলে বরফের গলনাংক 273K।

প্রশ্ন-২। রোধ কী?
উত্তরঃ কোনো বস্তুর মধ্য দিয়ে তড়িৎ প্রবাহকালে বস্তুর যে ধর্মের কারণে তড়িৎ প্রবাহের বাধার সৃষ্টি হয় তাকে ঐ বস্তুর রোধ বলে।

প্রশ্ন-৩। তাপমাত্রা বাড়ালে পরিবাহীর রোধ বৃদ্ধি পায় কেন?
উত্তরঃ তাপমাত্রা বাড়ালে পরিবাহীর রোধ বৃদ্ধি পায় কিন্তু রোধ তাপমাত্রার সমানুপাতিক নয়। যেহেতু তাপমাত্রা বাড়ালে পদার্থের দৈর্ঘ্য, প্রস্থ ও ক্ষেত্রফলের পরিবর্তন হয় তাই রোধ বৃদ্ধি পায়।

প্রশ্ন-৪। আর্কিমিডিস কবে মৃত্যুবরণ করেন?
উত্তরঃ আর্কিমিডিস খ্রিষ্টপূর্ব ২১২ সালে মৃত্যুবরণ করেন।

প্রশ্ন-৫। এক ডিগ্রী সেলসিয়াস কাকে বলে?
উত্তরঃ স্বাভাবিক চাপে গলন্ত বরফ এবং ফুটন্ত পানির তাপমাত্রার ব্যবধানের একশত ভাগের এক ভাগকে 1°C বা এক ডিগ্রী সেলসিয়াস বলে।

প্রশ্ন-৬। “গড়বেগ শূন্য হলেও গড়দ্রুতি কখন শূন্য হয় না”- ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ একটি বস্তু কোনো এক বিন্দু থেকে যাত্রা শুরু করে কিছুটা পথ ঘুরে ফিরে পুনরায় পূর্বের অবস্থানে ফিরে এলে বস্তুর সরণ শূন্য হয় কিন্তু অতিক্রান্ত দূরত্ব শূন্য হয় না। যেহেতু মোট সরণকে মোট সময় দ্বারা ভাগ করলে গড় বেগ এবং মোট দূরত্বকে সময় দ্বারা ভাগ করলে গড় দ্রুতি পাওয়া যায়। তাই গড় বেগে শূন্য হলেও গড় দ্রুতি শূন্য হয় না।

প্রশ্ন-৭। কোনো বস্তুকে কখন কালো দেখায়?
উত্তরঃ যখন ঐ বস্তু সমস্ত আলো শোষণ করে।

প্রশ্ন-৮। আলোক ফ্লাক্সের এককের নাম কি?
উত্তরঃ আলোক ফ্লাক্সের এককের নাম লুমেন।

প্রশ্ন-৯। ক্ষমতার সংকেত কি?
উত্তরঃ ক্ষমতার সংকেত P।

প্রশ্ন-১০। চূড়ান্ত ত্রুটি কী?
উত্তরঃ কোনো রাশি পরিমাপ করার সময় সম্ভাব্য সর্বোচ্চ ত্রুটিকে চূড়ান্ত ত্রুটি বলে।

প্রশ্ন-১১। আলোর গতি প্রতি সেকেন্ডে প্রায় কত?
উত্তরঃ আলোর গতি সেকেন্ডে তিন লক্ষ কিলোমিটার।

প্রশ্ন-১২। এক অশ্ব ক্ষমতা কাকে বলে?
উত্তরঃ কোনো ব্যক্তি বা যন্ত্র যদি প্রতি সেকেন্ডে 746 জুল পরিমাণ কাজ করতে পারে বা শক্তি ব্যয় করতে পারে তবে প্রযুক্ত ক্ষমতাকে এক অশ্ব ক্ষমতা বলে।

প্রশ্ন-১৩। আলোক ফ্লাক্সের এককের নাম কি?
উত্তরঃ আলোক ফ্লাক্সের এককের নাম লুমেন।

প্রশ্ন-১৪। ওয়াট, কিলোওয়াট এবং হর্স পাওয়ার কি?
উত্তরঃ ওয়াট : ওয়াট হলো ক্ষমতার আন্তর্জাতিক একক। এক সেকেন্ডে এক জুল (j) কাজ করার ক্ষমতাকে এক ওয়াট (W) বলে।
কিলোওয়াট : ক্ষমতার বড় একককে কিলোওয়াট বলে। ১০০০ ওয়াট সমান এক কিলোওয়াট।
হর্স পাওয়ার : EPS পদ্ধতিতে প্রতি সেকেন্ডে 550 ফুট-পাউন্ড কাজ করার ক্ষমতাকে হর্স পাওয়ার বলে।

প্রশ্ন-১৫। মেটিওরোলজি কাকে বলে?
উত্তরঃ আবহাওয়া সম্পর্কিত বিজ্ঞানকে মেটিওরোলজি বলে।

প্রশ্ন-১৬। রেবিস রোগের টিকা কে আবিষ্কার করেন?
উত্তরঃ লুই পাস্তুর রেবিস রোগের টিকা আবিষ্কার করেন। তিনি ১৮৮৬ সালে এটি আবিষ্কার করেন।

প্রশ্ন-১৭। ইনটেনসিটি কাকে বলে?
উত্তরঃ মহাকর্ষীয় ক্ষেত্রের কোনো বিন্দুতে একক ভরের একটি বস্তু স্থাপন করলে তার উপর যে মহাকর্ষীয় বল প্রযুক্ত হয় তাকে ঐ বিন্দুর ইনটেনসিটি বা প্রাবল্য বলে।

প্রশ্ন-১৮। এফিসিয়েন্সি কাকে বলে?
উত্তরঃ কোনো ব্যবস্থা বা যন্ত্র থেকে প্রাপ্ত মোট কার্যকর শক্তি এবং ব্যবস্থায় বা যন্ত্রে প্রদত্ত মোট শক্তি অনুপাতকে ঐ ব্যবস্থার বা যন্ত্রের এফিসিয়েন্সি বা কর্মদক্ষতা বলে।

প্রশ্ন-১৯। রিজোন্যান্স কাকে বলে?
উত্তরঃ কোনো বস্তুর নিজস্ব কম্পাঙ্ক আর তার উপর আরোপিত পর্যাবৃত্ত স্পন্দনের কম্পাঙ্ক সমান হলে বস্তুটি সর্বোচ্চ বিস্তার সহকারে কম্পিত হতে থাকে। এ ধরণের কম্পনকে রিজোন্যান্স বলে।

প্রশ্ন-২০। Node কাকে বলে?
উত্তরঃ স্থির তরঙ্গের উপরস্থ যে সকল বিন্দুতে কণার কোনো বিস্তার নেই অর্থাৎ কণার সরণ শূন্য হয় সেই সকল বিন্দুকে Node বলে।

Rate this post
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment