গ্যাসের মোল সংখ্যা, আয়তন, চাপ ও তাপমাত্রা প্রভৃতির উপর মাত্রিকভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বিজ্ঞানীগণ গ্যাসের ভৌত ধর্ম ভিত্তিক বিভিন্ন সূত্র আবিষ্কার করেন। এ সূত্রগুলোকে গ্যাসের সূত্র বলে।

এই সূত্রগুলো হলো–

  • বয়েলের সূত্র (Boyle’s law)
  • চার্লসের সূত্র (Charles’s law)
  • গে-লুসাকের চাপীয় সূত্র (Gay-Lussac’s law)
  • অ্যাভোগাড্রোর সূত্র (Avogadro’s law)
  • ডাল্টনের আংশিক চাপ সূত্র (Dalton’s law of partial pressure)
  • গ্রাহামের ব্যাপন সূত্র (Graham’s law of diffusion)।
চার্লসের সূত্রঃ স্থির চাপে নির্দিষ্ট ভরের যেকোনো গ্যাসের আয়তন প্রতি ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বৃদ্ধি বা হ্রাসের ফলে 0°C তাপমাত্রায় গ্যাসের আয়তন 1/273 অংশ বৃদ্ধি বা হ্রাস ঘটবে।
গে-লুসাকের চাপীয় সূত্রঃ “স্থির আয়তনে নির্দিষ্ট ভরবিশিষ্ট কোনো গ্যাসের চাপ তার পরম তাপমাত্রার সমানুপাতিক”
ডাল্টনের আংশিক চাপ সূত্রঃ কোনো নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় পরস্পর বিক্রিয়াবিহীন দুই বা ততোধিক গ্যাস মিশ্রণের মোট চাপ ঐ তাপমাত্রায় তার উপাদান গ্যাসমূহের আংশিক চাপসমূহের যোগফলের সমান।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x