পড়াশোনা
1 min read

এইচএসসি (HSC) পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র ৫ম অধ্যায় প্রশ্ন ও উত্তর

শক্তির সবচেয়ে সাধারণ রূপ কোনটি?

উত্তরঃ শক্তির সবচেয়ে সাধারণ রূপ হলো যান্ত্রিক শক্তি।

কাজ কাকে বলে?

উত্তর : কোনো বস্তুর ওপর বল প্রয়োগে বস্তুর সরণ ঘটলে প্রযুক্ত বল ও বলের অভিমুখে সরণের উপাংশের গুণফলকে কাজ বলে।

এক জুল কী?

উত্তর : কোনো বস্তুর ওপর এক নিউটন বল প্রয়োগের ফলে যদি বস্তুটির বলের দিকে এক মিটার (m) সরণ হয়, তবে সম্পন্ন কাজের পরিমাণকে এক জুল (J) বলে।

গতিশক্তি কী?

উত্তরঃ কোনো বস্তু গতিশীল থাকার কারণে তার মধ্যে যে পরিমাণ শক্তি সঞ্চারিত হয় তাকে ঐ বস্তুর গতিশক্তি বলা হয়।

ঋণাত্মক কাজ কাকে বলে?

উত্তরঃ কোনো বস্তুর ওপর বল প্রয়োগের ফলে বলের বিপরীত দিকে বস্তুর সরণ ঘটলে বা বলের বিপরীত দিকে সরণের উপাংশ থাকলে তাহলে বল ও সরণের উপাংশের গুণফলকে ঋণাত্মক কাজ বলে।

কাজ শক্তি উপপাদ্য কি?

উত্তরঃ কাজ শক্তি উপপাদ্য হচ্ছে– “কোনো বস্তুর ওপর প্রযুক্ত বল দ্বারা কৃতকাজ বস্তুর গতি শক্তির পরিবর্তনের সমান।”

কর্মদক্ষতা কাকে বলে?

উত্তরঃ কোনো যন্ত্র দ্বারা কাজে রূপান্তরিত শক্তি এবং যন্ত্রে প্রদত্ত শক্তির অনুপাতকে ওই যন্ত্রের কর্মদক্ষতা বলে।

কোনো যন্ত্রের কর্মদক্ষতা 40% বলতে কি বুঝায়?

উত্তরঃ কোনো যন্ত্রের কর্ম দক্ষতা 40% বলতে বুঝায় যন্ত্রটি 100J শক্তি ব্যবহার করে 40J শক্তি কাজে পরিণত করে।

বলের দ্বারা কাজ বলতে কী বুঝায়?

উত্তরঃ কোনো বস্তুর ওপর বল প্রয়োগের ফলে বলের দিকে সরণের উপাংশ থাকলে বলের দ্বারা কাজ বা ধনাত্মক কাজ হয়। বলের দ্বারা কাজের ফলে বস্তুর গতিশক্তি বৃদ্ধি পায়। কোনো বস্তু অভিকর্ষের প্রভাবে নিচে নেমে আসা-বলের দ্বারা কাজের উদাহরণ।

বলের বিরুদ্ধে কাজ বলতে কী বোঝায়?

উত্তর : যদি বল প্রয়োগের ফলে বস্তু বলের বিপরীত দিকে সরে যায় তাহলে সেই কাজকে বলের বিরুদ্ধে কাজ বলে।

শক্তির নিত্যতা বিধি কাকে বলে?

উত্তরঃ বস্তু যে পরিমাণ শক্তি হারায় তার সমপরিমাণ শক্তিই অন্যরূপে আবির্ভূত হয়। প্রকৃতপক্ষে শক্তি সৃষ্টি বা ধ্বংস করা যায় না, একে কেবল একরূপ থেকে অন্যরূপে পরিবর্তিত করা যায়। একে শক্তির নিত্যতা বিধি বলে।

Rate this post