নির্দেশনা বাস্তবায়নকর্মীদের সাথে পরামর্শ করে নির্দেশনার বিষয়বস্তু ঠিক করার প্রক্রিয়া হলো পরামর্শমূলক নির্দেশনা।

এ ধরনের নির্দেশনা পদ্ধতিকে কর্মীরা আনন্দের সাথে নিয়ে থাকেন। ফলে তাদের কাজে উৎসাহ উদ্দীপনা বাড়ে। এছাড়া পরামর্শমূলক নির্দেশনা কর্মীদের সাথে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে তৈরি করা হয়। তাই এটি বেশি কার্যকর ও বাস্তবসম্মত হয়। কারণ এ ধরনের নির্দেশনা পদ্ধতি কর্মীদের কাজের প্রতি আগ্রহী করে তোলে। ফলে প্রতিষ্ঠানের কাজ সুষ্ঠুভাবে করা সহজ হয়। তাই প্রতিষ্ঠানের জন্য পরামর্শমূলক নির্দেশনা বেশি কার্যকার হয়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x