পড়াশোনা

দ্রাব্যতা ও দ্রাব্যতা গুণফল কাকে বলে? দ্রাব্যতা ও দ্রাব্যতা গুণফলের তুলনা লিখ।

1 min read
দ্রাব্যতা (Solubility) : কোনো নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় প্রতি ১০০ গ্রাম দ্রাবকে দ্রবের যে সর্বোচ্চ পরিমাণ দ্রবীভূত হয় তাকে ঐ তাপমাত্রায় দ্রবটির দ্রাব্যতা বলে।
দ্রাব্যতা গুণফল (Solubility Product) : কোনো নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় কোনো স্বল্প দ্রবণীয় তড়িৎ বিশ্লেষ্য লবণের সম্পৃক্ত দ্রবণে উৎপন্ন আয়নসমূহ যখন অদ্রবীভূত তড়িৎ বিশ্লেষ্যের সাথে সাম্যাবস্থায় থাকে তখন এর ধনাত্মক ও ঋণাত্মক আয়নদ্বয়ের যথোপযুক্ত ঘাতসহ ঘনমাত্রার গুণফলকে সংশ্লিষ্ট লবণের দ্রাব্যতা গুণফল বলে।

দ্রাব্যতা ও দ্রাব্যতা গুণফলের তুলনা লিখ।

  • প্রতি ১০০ গ্রাম পানিতে বা কোনো দ্রাব্যকে গ্রামে প্রকাশিত ওজনে সর্বোচ্চ যে পরিমাণ কোনো দ্রব্য দ্রবীভূত করা যায়, তাকে ঐ দ্রব্যের দ্রাব্যতা (S) বলে। কিন্তু কোনো স্বল্প দ্রবণীয় পদার্থ হতে উৎপন্ন সকল আয়নের ঘনমাত্রা (উপযুক্ত ঘাত বিশিষ্ট) সর্বোচ্চ গুণফলকে দ্রাব্যতা গুনফল (Ks) বলা হয়।
  • দ্রাব্যতা সকল প্রকার পদার্থের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। কিন্তু দ্রাব্যতা গুণফল কেবল স্বল্প দ্রবণীয় তড়িৎ বিশ্লেষ্যের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।
  • দ্রাব্যতা সমআয়নের (Common ion) প্রভাবে পরিবর্তিত হয়। কিন্তু দ্রাব্যতা গুণফল সমআয়নের প্রভাবে পরিবর্তিত হয় না।
  • উভয় রাশিই তাপমাত্রার দ্বারা সমানভাবে প্রভাবিত হয়।
Rate this post
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment