পদার্থ বিজ্ঞান
1 min read

দ্রুতি ও বেগের পার্থক্য

পদার্থ বিজ্ঞানে দ্রুতি এবং বেগ উভয়ই একটি বস্তুর গতির হার পরিমাপ করে। দ্রুতি ও বেগের মধ্যে মূল পার্থক্য হল- কোন বস্তু কত দ্রুত চলছে বা কত দূরত্ব অতিক্রম করছে, তার পরিমাপকে দ্রুতি বলে। বিপরীতে, কোন বস্তু কত দ্রুত চলছে এবং কোন দিকে চলছে, বেগ তা নির্দেশ করে। নিম্মে দ্রুতি ও বেগের সংজ্ঞা, পার্থক্য ও উদাহরণ বর্ণনা করা হল।

দ্রুতি কি?

সময়ের সাথে কোন বস্তুর অবস্থানের পরিবর্তনের হারকে দ্রুতি (Speed) বলে। অর্থাৎ, কোন বস্তু কত দ্রুত চলছে বা কত দূরত্ব অতিক্রম করছে তার পরিমাপকে দ্রুতি বলে। বস্তুর একক সময়ে অতিক্রান্ত দূরত্ব দ্বারা দ্রুতি পরিমাপ করা হয়। দ্রুতি একটি স্কেলার রাশি, অর্থাৎ যার শুধু মান আছে। কোন শতিশীল বস্তু যদি t সময়ে d দূরত্ব অতিক্রম করে, তাহলে দ্রুতি হবে- V= d/t

উদাহরণস্বরূপ- একটি গাড়ি কতটা দ্রুত গতিতে চলছে দ্রুতি তার মাত্রা নির্ধারণ করে। যেমন, আমি একটি গাড়ি ঘন্টায় ৫০ কিলোমিটার গতিতে চালাচ্ছি।

বেগ কি?

সময়ের সাথে কোন বস্তুর সরণের হারকে বেগ (Velocity) বলে। অর্থাৎ, কোন বস্তু নির্দিষ্ট দিকে একক সময়ে যে পথ অতিক্রম করে, তাকে বেগ বলে। বেগ দূরত্বের পরিবর্তনের হারের পাশাপাশি কোন দিকে সে পরিবর্তন ঘটে, তাও নির্দেশ করে। বেগের মান ও দিক উভয়ই আছে, তাই বেগ একটি ভেক্টর রাশি। কোন বস্তু t সময়ে নির্দিষ্ট দিকে s দূরত্ব অতিক্রম করলে তার বেগ হবে- V= s/t

উদাহরণস্বরূপ, বেগ একটি গাড়ি কতটা দ্রুত গতিতে চলছে এবং গাড়িটি কোন দিকে চলছে তা নির্ধারণ করে। যেমন, আমি নোয়াখালীর পশ্চিমে ৭৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় একটি গাড়ি চালানোর পরিকল্পনা করছি।

দ্রুতি ও বেগের মধ্যে পার্থক্য

পার্থক্য দ্রুতি  বেগ
অর্থ দ্রুতি হল একক সময়ে অতিক্রান্ত দূরত্ব। সময়ের সাথে কোন বস্তুর সরণের হারকে বেগ বলে।
রাশি দ্রুতি একটি স্কেলার রাশি। তাই শুধু মান আছে। বেগ একটি ভেক্টর রাশি। এর মান ও দিক উভয়ই আছে।
মাত্রা দ্রুতির মাত্রা [LT-1] এবং একক ms-1 বেগের মাত্রা [LT-1] এবং একক ms-1
গাণিতিক দ্রুতির যোগ বা বিয়োগ সাধারণ গাণিতিক নিয়মে করা যায় | বেগের যোগ বা বিয়োগ সাধারণ গাণিতিক নিয়মে করা যায় না।
সূত্র দ্রুতি = দূরত্ব \ সময় বা V= d/t বেগ = স্থানচ্যুতি/সময় বা V= s/t
পরিবর্তন শুধু মানের পরিবর্তনে দ্রুতির পরিবর্তন ঘটে। মান ও দিক উভয়ের পরিবর্তনে বেগের পরিবর্তন ঘটে।
মান দ্রুতি কখনই ঋণাত্মক বা শূন্য হতে পারে না। বেগ শূন্য, ঋণাত্মক বা ধনাত্মক হতে পারে।
বস্তুর বেগের মানই দ্রুতি। নির্দিষ্ট দিকে দ্রতিই বেগ।
উদাহরণ দ্রুতি একটি গাড়ি কতটা দ্রুত গতিতে চলছে তার মাত্রা নির্ধারণ করে। বেগ একটি গাড়ি কতটা দ্রুত গতিতে চলছে এবং গাড়িটি কোন দিকে চলছে তা নির্ধারণ।
5/5 - (14 votes)