অন্যান্য
1 min read

বর্গক্ষেত্র ও রম্বসের মধ্যে পার্থক্য

বর্গক্ষেত্র ও রম্বস উভয়ই চতুর্ভূজ যাদের কোণের সমষ্টি ৩৬০ ডিগ্রি বা চার সমকোণ।বর্গক্ষেত্র ও রম্বসের মধ্যে কিছু মিল থাকলেও উভয়ের মধ্যে বেশকিছু উল্লেখযোগ্য পার্থক্য রয়েছে। নিম্মে বর্গক্ষেত্র ও রম্বসের সংজ্ঞা, এবং পার্থক্য বর্ণনা করা হলো।

বর্গক্ষেত্র কি?

বর্গ এমন একটি চতুর্ভূজ যার বাহুগুলো সব সমান। সুতারাং বর্গ দ্বারা আবদ্ধ ক্ষেত্রকে বর্গক্ষেত্র বলে। বর্গক্ষেত্র একটি সমবাহু চতুর্ভুজ কারণ এর চারটি বাহু পরস্পর সমান। আবার এটি একটি সমকোণী চতুর্ভুজ কারণ এর সবগুলো কোণ পরস্পর সমান এবং প্রত্যেকটি কোণের পরিমাপ সমকোণ। বর্গক্ষেত্রের কর্ণ বর্গক্ষেত্রটিকে দুইটি সর্বসম ত্রিভুজে বিভক্ত করে।

রম্বস কি?

যে সামান্তরিকের দুইটি সন্নিহিত বাহু সমান, তাকে রম্বস বলে। অর্থাৎ রম্বস এমন একটি সামান্তরিক যার বাহুগুলো পরস্পর সমান। এটিকে সমবাহু চতুর্ভুজও বলা হয়। রম্বসের একটি কোণও সমকোণ নয়। রম্বসের বিপরীত কোণগুলো পরস্পর সমান এবং কর্নদ্বয় কোণগুলোকে সমদ্বিখন্ডিত করে।

বর্গক্ষেত্র ও রম্বসের পার্থক্য

নিম্নে বর্গক্ষেত্র ও রম্বসের মধ্যে পার্থক্য দেখানো হলো-

বর্গক্ষেত্র রম্বস 
১. যে চতুর্ভুজের চারটি বাহু পরস্পর সমান ও সমান্তরাল এবং কোণগুলো প্রত্যেকটি সমকোণ, তাকে বর্গক্ষেত্র বলে। রম্বস এমন একটি সামান্তরিক যার বাহুগুলো পরস্পর সমান এবং যার একটি কোণও সমকোণ নয়।
২.  বর্গক্ষেত্রের প্রত্যেকটি কোণ সমকোণ। অর্থাৎ প্রত্যেক কোণের পরিমান ৯০ ডিগ্রি। রম্বসের একটি কোণও সমকোণ নয়।
৩.  বর্গক্ষেত্রের বাহুগুলো একে অপরের উপর লম্ব। রম্বসের বাহুগুলো পরস্পরের উপর লম্ব নয়।
৪.  বর্গক্ষেত্রের কর্ণদ্বয়ের দৈর্ঘ্য পরস্পর সমান। রম্বসের কর্ণদ্বয়ের দৈর্ঘ্য পরস্পর সমান নয়।
৫.  বর্গক্ষেত্রের ক্ষেত্রফল নির্ণয়ের সূত্র = (১ বাহু)² রম্বসের ক্ষেত্রফল নির্ণয়ের সূত্র = ½ X কর্ণদ্বয়ের গুণফল।
৬. বর্গক্ষেত্রের পরিসীমা সূত্র, s = 4a একক রম্বসের পরিসীমা সূত্র, = 4 X (এক বাহু) একক
৭. বর্গক্ষেত্রের চিত্র


 

রম্বসের চিত্র

 

5/5 - (11 votes)