বাংলা
1 min read

ছোট গল্প কাকে বলে? ছোট গল্পের বৈশিষ্ট্য

Updated On :

ছোট গল্প কাকে বলে?

যে গল্প অর্ধ হতে এক বা দুই ঘণ্টার মধ্যে এক নিশ্বাসে পড়ে শেষ করা যায়, তাকে ছোট গল্প বলে।

আবার এইচ জি ওয়েলস বলেছেন, ছোট গল্প সাধারণত ১০ থেকে ৫০ মিনিটের মধ্যে শেষ হওয়া বাঞ্ছনীয়।

ছোট গল্পে জীবনের সামগ্রিক দিকটি উপন্যাসের মতো বিস্তারিতভাবে বর্নিত না হয়ে বরং এর খণ্ডাংশকে পরিবেশিত হয়। এজন্য ছোট গল্প যথাসম্ভব বাহুল্যবর্জিত, রস ঘন ও নিবিড় হয়ে থাকে। সংগত কারণেই এতে পাত্র পাত্রী বা চরিত্রের সংখ্যা খুবই সীমিত হয়।

ছোট গল্পের প্রারম্ভ ও প্রাক্কাল সাধারণত খানিকটা নাটকীয় হয়।

একটি কাহিনী বা গল্পকে ছোট গল্পে উত্তীর্ণ হওয়ার জন্য কিছু নান্দনিক ও শিল্পশর্ত পূরণ করতে হয়। ছোট গল্পের সংজ্ঞার্থ কী সে নিয়ে সাহিত্যিক মহলে বিতর্ক ব্যাপক।

এককথায় বলা যায়, যা আকারে ছোট, প্রকারে গল্প তাকে ছোট গল্প বলে।

ছোট গল্পের বৈশিষ্ট্য

১) ছোট গল্প তাকেই বলা যায় যা একেবারে বসে পড়া শেষ করে ফেলা যাবে। অর্থাৎ এর আয়তন হবে ছোট। অবশ্য এই একবারে বসে পড়াটা এক পৃষ্ঠারও হতে পারে আবার একশো পৃষ্ঠারও হতে পারে।

 

২) ছোট গল্প আবর্তিত হয় একটি মাত্র ভাবকে কেন্দ্র করে।

৩) ছোট গল্প পূর্ণাঙ্গ জীবনকে ধরে না ধরে জীবনের খন্ডাংশকে। এইজন্য ছোটগল্প কোনো শাখাকাহিনী বা উপকাহিনী স্থান পায় না।

৪) ছোট গল্পের চরিত্র সংখ্যা একদম প্রয়োজনমতো হয়ে থাকে। কখনও কখনও গল্পে মাত্র দুটি, এমনকী একটি মাত্র চরিত্র নিয়েও গড়ে ওঠে। চরিত্রের পূর্ণাঙ্গ বিকাশ ও বিস্তার এখানে ঘটে না।

৫) ছোট গল্প ঋজু টানটান তীব্র গতিবেগ সম্পন্ন।

৬) ছোট গল্পের সমাপ্তিতে নাটকীয় হতে পারে। রবীন্দ্রনাথ বলেছেন, “সাঙ্গ করি মনে হবে। শেষ হয়েও হইল না শেষ”।

৭) ছোট গল্পের ভাষা ইঙ্গিতময়। প্রতীক সংকেতের মাধ্যমে গভীর ব্যাঞ্জনার প্রকাশ ঘটে। শব্দচয়ন ও অলংকার প্রয়োগ ছোটগল্প বিশেষ তাৎপর্যবাহী হয়ে ওঠে।

৮) ছোট গল্পে বিষয় বৈচিত্র্যের প্রাধান্য দেখা যায়। যেকোনো বিষয় নিয়েই ছোট গল্প উড়তে পারে।

 

শেষ কথা:

আশা করি আপনাদের এই আর্টিকেলটি পছন্দ হয়েছে। আমি সর্বদা চেষ্টা করি যেন আপনারা সঠিক তথ্যটি খুজে পান। যদি আপনাদের এই “ছোট গল্প কাকে বলে? ছোট গল্পের বৈশিষ্ট্য” আর্টিকেলটি পছন্দ হয়ে থাকলে, অবশ্যই ৫ স্টার রেটিং দিবেন।

5/5 - (130 votes)