হিসাববিজ্ঞান
1 min read

অপরিচালন আয় কাকে বলে? অপরিচালন আয়ের উদাহরণ

Updated On :

অপরিচালন আয় কাকে বলে?

ব্যবসায়ের স্বাভাবিক কার্যক্রমের বাইরে অন্যান্য যেসব উৎস থেকে আয় আসে তাকে অপরিচালন আয় বলে। এই ধরনের আয় ব্যবসায় পরিচালনের বাইরে হয়। যেমনঃ স্থায়ী সম্পদ বিক্রয়ের মুনাফা, বিনোয়োগের সুদ, সঞ্চয়পত্রের সুদ, লগ্নির সুদ, সরকারি বন্ডের সুদ, উত্তোলনের সুদ, প্রদত্ত ঋণের সুদ, ব্যাংক জমার সুদ, ভাড়া প্রাপ্তির সুদ, ভাড়া প্রাপ্তি, শিক্ষানবিশ সেলামি, উপভাড়া, প্রাপ্ত লভ্যাংশ, অনাদায়ী পাওনা আদায় ইত্যাদি।

অপরিচালন আয়ের উদাহরণ

স্থায়ী সম্পদ বিক্রয়ের মুনাফা, বিনোয়োগের সুদ, সঞ্চয়পত্রের সুদ, লগ্নির সুদ, সরকারি বন্ডের সুদ, উত্তোলনের সুদ, প্রদত্ত ঋণের সুদ, ব্যাংক জমার সুদ, ভাড়া প্রাপ্তির সুদ, ভাড়া প্রাপ্তি, শিক্ষানবিশ সেলামি, উপভাড়া, প্রাপ্ত লভ্যাংশ, অনাদায়ী পাওনা আদায় ইত্যাদি।

 

শেষ কথা:

আশা করি আপনাদের এই আর্টিকেলটি পছন্দ হয়েছে। আমি সর্বদা চেষ্টা করি যেন আপনারা সঠিক তথ্যটি খুজে পান। যদি আপনাদের এই “অপরিচালন আয় কাকে বলে? অপরিচালন আয়ের উদাহরণ” আর্টিকেলটি পছন্দ হয়ে থাকলে, অবশ্যই ৫ স্টার রেটিং দিবেন।

5/5 - (31 votes)