সমাজকর্ম
1 min read

সমাজকর্মের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সমূহের ব্যাখ্যা

সমাজকর্ম বলতে এমন একটি প্রাতিষ্ঠানিক ও পেশাদার সমাজসেবামূলক কর্মতৎপরতাকে বুঝায়, যা ব্যক্তি, দল, সমষ্টিকে এমনভাবে সাহায্য করে, যাতে তারা নিজেরাই নিজেদের সম্পদ, সামর্থ্য ও বুদ্ধিমত্তার দ্বারা নিজেদের সমস্যার সমাধান করতে সক্ষম হয়। সমাজের সকল মানুষের সার্বিক কল্যাণ নিশ্চিত করাই সমাজকর্মের মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

সমাজকর্মের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

সমাজকর্মের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে Skidmore and Thackary বলেছেন, “The aim of social work is to improve and enhance social functioning.” National Association of Social Worker (NASW) সমাজকর্মের ৪টি লক্ষ্য নির্দিষ্ট করেছে। এগুলো হলো,

  • ১। সমস্যা সমাধান, উপযোজন ও ক্ষমতার উন্নয়ন
  • ২। সম্পদ, সেবা ও সুযোগের সাথে মানুষের সংযোগ ঘটান।
  • ৩। কার্যকরী ও মানবীয় সেবা ব্যবস্থা ত্বরান্বিত করা।
  • ৪। সামাজিক নীতির বিকাশ ও উন্নয়ন।

সার্বিকভাবে সমাজকর্মের ১৭টি লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যগুলো নিম্নরূপ,

  • ১। সমাজের সকল মানুষের সার্বিক কল্যাণ সাধন নিশ্চিত করা।
  • ২। মানুষকে পরিবর্তনশীলতার সাথে সামঞ্জস্য বিধানে সক্ষম করে তোলা।
  • ৩। মানুষকে সামাজিক ভূমিকা পালনে সক্ষম করে তোলা।
  • ৪। জনসাধারণের মৌল মানবিক চাহিদা পূরণের নিশ্চয়তা বিধান করা।
  • ৫। মানবসম্পদের যথাযথ ব্যবহারের মাধ্যমে দেশ ও জাতির উন্নয়ন সাধন করা।
  • ৬। সামাজিক বৈষম্য দূর করা।
  • ৭। সমাজের সকল মানুষের আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটানো।
  • ৮। মানুষকে স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলা ।
  • ৯। উপযুক্ত নীতি ও পরিকল্পনা প্রণয়ন ও তা বাস্তবায়নের মাধ্যমে সমাজের বাঞ্ছিত পরিবর্তন সাধন করা।
  • ১০। সমাজে বিদ্যমান কুসংস্কার, অন্ধবিশ্বাস ও গোঁড়ামি দূর করা।
  • ১১। সকল প্রকার বস্তুগত, অবস্তুগত, সম্পদের সদ্ব্যবহার করা।
  • ১২। শোষণ, বঞ্চনা এবং অন্যায়ের অবসান ঘটিয়ে সাম্য ও ন্যায়বিচার ভিত্তিক সমাজব্যবস্থা গড়ে তোলা।
  • ১৩। সরকারি বেসরকারি, স্থানীয়, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থাসমূহের কর্মসূচিগুলোর মধ্যে সমন্বয় সাধন করা।
  • ১৪। বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে মানুষের আর্থিক বা সামাজিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা।
  • ১৫। মানুষের সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ সাধন করা।
  • ১৬। প্রতিকার, প্রতিরোধ ও উন্নয়নমূলক কর্মসূচির মাধ্যমে সমস্যার স্থায়ী সমাধান করা।
  • ১৭। মানুষকে তাদের অধিকার ও দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন করে তোলা।

সবশেষে বলা যায় যে, সমাজের সকল মানুষের সার্বিক কল্যাণের পথ প্রশস্ত করাই সমাজকর্মের মূল লক্ষ্য। এ লক্ষ্য অর্জনের জন্য সমাজকর্ম বিভিন্ন সামাজিক সমস্যার সমাধান, মানুষের মৌল মানবিক চাহিদা পূরণ এবং বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে থাকে।

Rate this post