শরিয়তের তৃতীয় উৎস হলো ইজমা। ইজমা আরবি শব্দ। এর আভিধানিক অর্থ- একমত হওয়া, ঐক্যবদ্ধ হওয়া, মতৈক্য প্রতিষ্ঠা করা ইত্যাদি। ব্যবহারিক অর্থে কোনো বিষয় বা কথায় ঐকমত্য পোষণ করাকে ইজমা বলে। ইসলামি পরিভাষায়, শরিয়তের কোনো বিষয়ে একই যুগের মুসলিম উম্মতের পুণ্যবান মুজতাহিদগণের (গবেষক) ঐকমত্য পোষণ করাকে ইজমা বলা হয়। ইজমা মহানবি (স.)-এর পরবর্তী যেকোনো যুগে হতে পারে। সাহাবিগণ থেকে শুরু করে কিয়ামত পর্যন্ত প্রতিটি যুগেই ইজমা প্রতিষ্ঠিত হতে পারে। ইজমা কুরআন-সুন্নাহ সমর্থিত হওয়া আবশ্যক। কুরআন-সুন্নাহর মূলনীতি বিরোধী কিংবা কোনো অন্যায় ও পাপ কাজে ইজমা হয় না। ইজমা আল্লাহ তায়ালা প্রদত্ত মুসলমানদের জন্য এক বিশেষ মর্যাদা ও নিয়ামত।

এ সম্পর্কিত বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তরঃ–
১। শরিয়তের তৃতীয় উৎস কোনটি?
ক) ইজমা    খ) কিয়াস
গ) কুরআন    ঘ) হাদিস
সঠিক উত্তর : ক) ইজমা

২। কোনো সমস্যার জবাব কুরআন-হাদিসে না খুঁজে পেলে পরহেজগার মুজতাহিদগণের ঐকমত্য পোষণ করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করাকে কী বলা হয়?
ক) ওয়াজিব    খ) ইজমা
গ) কিয়াস    ঘ) সুন্নত
সঠিক উত্তর : খ) ইজমা

৩। ইজমা অর্থ কী?
ক) একমত হওয়া    খ) অনুমান করা
গ) দ্বিমত হওয়া    ঘ) দলবদ্ধ হওয়া
সঠিক উত্তর : ক) একমত হওয়া

৪। ব্যবহারিক অর্থে ইজমা কী?
ক) প্রতিষ্ঠিত
খ) ঐক্যবদ্ধ হওয়া
গ) ঐক্যমত পোষণ করা
ঘ) দলবদ্ধ হওয়া
সঠিক উত্তর : ক) প্রতিষ্ঠিত

৫। যারা ইজমা করেন তাদের কী বলে?
ক) আলেম    খ) সুফি
গ) ইমাম    ঘ) মুজতাহিদ
সঠিক উত্তর : ঘ) মুজতাহিদ

৬। মহানবি (স)-এর পরবর্তী কোন যুগে ইজমা হতে পারে?
ক) সাহাবিদের    খ) তাবিঈদের
গ) উমাইয়াদের    ঘ) যেকোনো যুগে
সঠিক উত্তর : ঘ) যেকোনো যুগে

৭। ইজমা কেমন হওয়া আবশ্যক?
ক) কুরআন ও সুন্নাহ সমর্থিত
খ) খোলাফায়ে রাশেদিনদের সমর্থিত
গ) ওলিগণের সমর্থিত
ঘ) হাদিস বিশারদগণের সমর্থিত
সঠিক উত্তর : ক) কুরআন ও সুন্নাহ সমর্থিত

৮। ইজমা আল্লাহর পক্ষ থেকে মুসলমানদের জন্য কী?
ক) নিয়ামত    খ) সম্পদ
গ) আমানত    ঘ) ওয়াজিব
সঠিক উত্তর : ক) নিয়ামত

৯। কোন যুগে ইজমার পূর্ণাঙ্গ প্রচলন ঘটে?
ক) মহানবী (স)-এর যুগে
খ) সাহাবিগণের যুগে
গ) তাবেঈগণের যুগে
ঘ) তাবে তাবেঈগণের যুগে
সঠিক উত্তর :খ) সাহাবিগণের যুগে

১০। মহানবি (স) কাদের পরামর্শ ও মতামতের আলোকে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতেন?
ক) মুহাজিরদের    খ) আনসারদের
গ) সাহাবিদের    ঘ) প্রবীণদের
সঠিক উত্তর : গ) সাহাবিদের

১১। বিধি-বিধান নির্ধারণে ইজমা কী হিসেবে সাব্যস্ত?
ক) অকাট্য দলিল
খ) সাধারণ দলিল
গ) সুন্নাহ দলিল
ঘ) মুস্তাহাব দলিল
সঠিক উত্তর : ক) অকাট্য দলিল

১২। ইজমার ওপর আমল করা কী?
ক) ফরজ    খ) ওয়াজিব
গ) সুন্নত    ঘ) মুস্তাহাব
সঠিক উত্তর : খ) ওয়াজিব

১৩। পবিত্র কুরআনে মুসলিম জাতিকে কেমন উম্মত হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে?
ক) উত্তরপন্থী    খ) মধ্যপন্থী
গ) ডানপন্থী    ঘ) বামপন্থী
সঠিক উত্তর : খ) মধ্যপন্থী

১৪। আল্লাহ উম্মতে মুহাম্মাদিকে কেন মধ্যম পন্থী জাতিরূপে সৃষ্টি করেছেন?
ক) মানবজাতির সাক্ষ্য দানের জন্য
খ) আল্লাহ তায়ালার ইবাদাতের জন্য
গ) মানবজাতিকে হেদায়েত দানের জন্য
ঘ) মানবজাতির নেতৃত্ব দানের জন্য
সঠিক উত্তর : ক) মানবজাতির সাক্ষ্য দানের জন্য

১৫। রমযান মাসে তারাবির নামায বিশ রাকাত হওয়ার তথ্যসূত্র কোনটি?
ক) কুরআন    খ) সুন্নত
গ) ইজমা    ঘ) কিয়াস
সঠিক উত্তর : গ) ইজমা

১৬। ‘মুসলমানগণ যা ভালো মনে করে তা আল্লাহর কাছেও ভালো।’ আয়াতটিতে কীসের প্রতি ইঙ্গিত করা হয়েছে?
ক) ফরজের    খ) ওয়াজিবের
গ) ইজমার    ঘ) কিয়াসের
সঠিক উত্তর : গ) ইজমার

১৭। জামাআত থেকে বিচ্ছিন্ন ব্যক্তির স্থান কোথায় হবে?
ক) অন্ধকারে
খ) আরশে
গ) চরম দুঃখে
ঘ) জাহান্নামে
সঠিক উত্তর : ঘ) জাহান্নামে

১৮। ফজল শরিয়তের অকাট্য দলিল হওয়া সত্ত্বেও ইজমাকে অস্বীকার করে । তাকে ইসলামের দৃষ্টিতে কী বলা হবে?
ক) মুশরিক    খ) ফাসিক
গ) মুনাফিক    ঘ) কাফির
সঠিক উত্তর : খ) ফাসিক

১৯। কীসের দ্বারা ইজমার বৈধতা প্রমাণিত?
ক) কুরআন ও হাদিস
খ) আকাইদ শাস্ত্র
গ) তাসাউফ শাস্ত্র
ঘ) হাদিস ও কিয়াস
সঠিক উত্তর : ক) কুরআন ও হাদিস

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x