Islamic
1 min read

রিসালাত কাকে বলে? রিসালাতের গুরুত্ব এবং বিশ্বাস।

Updated On :

ইমানের সাতটি মৌলিক বিষয়ের অন্যতম হলো রিসালাত। রিসালাত আরবি শব্দ। এর অর্থ বার্তা, চিঠি পৌছানো, পয়গাম, সংবাদ বা কোনো ভালো কাজের দায়িত্ব বহন করা। ইসলামি পরিভাষায় আল্লাহ তায়ালার বাণী মানুষের কাছে পৌছে দেওয়ার দায়িত্বকে রিসালাত বলে। নবি-রাসুলগণ এ দায়িত্ব পালন করেছেন। তাই বলা যায়, তাদের দায়িত্বই হলো রিসালাত।

রিসালাতের গুরুত্ব
আল্লাহ তায়ালার একত্বের প্রতি বিশ্বাস স্থাপন করা যেমনি আবশ্যক তেমনিভাবে রিসালাতের প্রতিও ঈমান আনা অপরিহার্য।

আমরা আল্লাহর একত্ব, তাঁর অস্তিত্ব এবং পরিচয় নবী-রাসূলগণের মাধ্যমেই জানতে পেরেছি। নবী-রাসূল ও রিসালাতের প্রতি অবিশ্বাস করলে আল্লাহর প্রতিই অবিশ্বাস করা হয়। তাই আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস স্থাপনের পাশাপাশি রিসালাতের প্রতিও বিশ্বাস স্থাপন করতে হবে। রিসালাতে বিশ্বাস ঈমানের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। রিসালাতের প্রতি ঈমান আনা তাওহীদের প্রতি ঈমান আনার মতোই অপরিহার্য।

রিসালাতে বিশ্বাসের অর্থ
রিসালাতের প্রতি বিশ্বাসের মানে হচ্ছে এ বিশ্বাস স্থাপন করা যে, নবী-রাসূলগণ আল্লাহর পক্ষ থেকে মানুষকে পথ প্রদর্শন করার জন্যে প্রেরিত; আরও বিশ্বাস করা যে, তাঁরা আল্লাহর পক্ষ থেকে যে বাণী ও জীবন বিধান নিয়ে এসেছেন তা তাঁরা রচনা করেননি; আল্লাহই তা রচনা করেছেন। তাঁদের প্রচারিত জীবনব্যবস্থা মানবজীবনে ও সমাজে বাস্তবায়িত হলে সত্যিকার কল্যাণ প্রতিষ্ঠিত হবে, তা মনে প্রাণে বিশ্বাস করা, তাঁদের প্রচারিত জীবনব্যবস্থাকে রক্ষা করা, তাঁদের পরিপূর্ণ আনুগত্য করা, সমাজে তা বাস্তাবায়ন করার জন্যে চেষ্টা ও সংগ্রাম করা।

 

শেষ কথা:
আশা করি আপনাদের এই আর্টিকেলটি পছন্দ হয়েছে। আমি সর্বদা চেষ্টা করি যেন আপনারা সঠিক তথ্যটি খুজে পান। যদি আপনাদের এই “রিসালাত কাকে বলে? ” আর্টিকেলটি পছন্দ হয়ে থাকলে, অবশ্যই ৫ স্টার রেটিং দিবেন।

4.7/5 - (58 votes)