কোনাে ওয়েব পেজ এর ভিতরে লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও, ডকুমেন্ট অন্য ওয়েব পেজ বা ওয়েব সাইটের সাথে সংযােগ স্থাপন করাকে হাইপারলিংক (Hyperlink) বলে। সাধারণত লিংকে মাউস পয়েন্টার নিলে এটির আকৃতি পরিবর্তিত হয়ে হাতের আইকনে পরিণত হয়। সাধারণভাবে লিংক করা টেক্সট আন্ডারলাইন করা থাকে এবং নীল রঙের হয়ে থাকে। ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব (World Wide Web) সহ সব হাইপারটেক্সট সিস্টেমে হাইপারলিংক হলো একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান (ingredient)।

হাইপারলিংক কত প্রকার ও কী কী?
হাইপারলিংক ২ প্রকার। যথাঃ
১) ইন্টারনাল হাইপারলিংক (Internal Hyperlink) এবং
২) এক্সটারনাল হাইপারলিংক (External Hyperlink)

হাইপারলিংকের সুবিধা
হাইপারলিংকের সুবিধাসমূহ নিচে দেওয়া হলাে–

  • অতিদ্রুত যেকোনাে ওয়েবসাইট বা ওয়েব পেজ দেখা যায়।
  • ভিজিটের সময় বাঁচে।
  • দ্রুত এক পেজ বা ডকুমেন্ট হতে অন্য পেজ বা ডকুমেন্টে যাওয়া যায়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x