পড়াশোনা
1 min read

ডকুমেন্ট প্রসেসিং কি? Document Processing?

Updated On :

কম্পিউটারের মাধমে কোন ডকুমেন্ট তৈরি করার জন্য টাইপ করা, বানান শুদ্ধ করা, ফর্মেটিং করা, এডিটিং করা, প্রয়ােজন অনুযায়ি বিভিন্ন অবজেক্ট সন্নিবেশিত করা, সংরক্ষণ করা, মুদ্রণ করা ইত্যাদির সমন্বিত প্রক্রিয়াকে ডকুমেন্ট প্রসেসিং (Document Processing) বলে।

 

ওয়ার্ড প্রসেসিং কি? ওয়ার্ড প্রসেসিং এর ব্যবহার

ওয়ার্ড প্রসেসিং কিঃ ওয়ার্ড শব্দের অর্থ হচ্ছে শব্দ এবং প্রসেসিং শব্দের অর্থ হচ্ছে প্রক্রিয়াকরণ। ওয়ার্ড প্রসেসিং শব্দের অর্থ হচ্ছে শব্দ প্রক্রিয়াকরণ।

লিখিত শব্দকে কম্পিউটারের মাধ্যমে প্রসেস করে ডকুমেন্ট বা দলিল তৈরি করার পদ্ধতিকে ওয়ার্ড প্রসেসিং বলে। আর যে প্রোগ্রাম দিয়ে ওয়ার্ড প্রসেসিং এর কাজ করা হয় তাকে ওয়ার্ড প্রসেসর বলে।

যে যন্ত্র বা উপকরণ এর সাহায্যে কোন লেখাকে ব্যবহারকারীর চাহিদা অনুযায়ী বিশেষ আঙ্গিকে তৈরি করে মুদ্রণ উপযোগী করা হয় তাকে ওয়ার্ড প্রসেসর বলে। সাধারণত কম্পিউটারে যে ওয়ার্ড প্রসেসিং এর সফটওয়্যার গুলি বেশি ব্যবহৃত হয় তাদের মধ্যে কয়েকটি হচ্ছে-

  • মাইক্রোসফট ওয়ার্ড
  • ওয়ার্ড পারফেক্ট
  • ল্যাটেক্স
  • নোড প্যাড
  • ওয়ার্ড প্যাড

ওয়ার্ড প্রসেসরের বৈশিষ্ট্য বা সুবিধাগুলো কি

একটি স্ট্যান্ডার্ড ওয়ার্ড প্রসেসরে যে সব সুযোগ সুবিধা থাকে তাহা নিম্নরূপঃ

  • সহজে ও অল্প সময়ে ডকুমেন্ট প্রস্তুত করা যায়।
  • ওয়ার্ড প্রসেসরের মাধ্যমে ডকুমেন্ট শব্দ, বাক্য, প্যারা সংযোজন ও অপ্রয়োজনীয় অংশ মুছে ফেলা যায়।
  • ডকুমেন্টে এর মধ্যে কাট-পেস্ট, কপি-পেস্ট এর মাধ্যমে অতি দ্রুত এক স্থান থেকে অন্য স্থানে স্থানান্তর করা যায়
  • এক ফাইলের এক অংশ অন্য ফাইলে স্থানান্তর করা যায়।
  • কোন শব্দের পরিবর্তে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অন্য কোন নতুন শব্দ বসানো যায়।
  • বানান, ভুল নির্ণয় ও সংশোধন করা যায়।
  • ব্যাকারণগত ভুল নির্ণয় করা যায়।
  • টেবিলের মধ্যে হিসাব-নিকাশ করা, বিভিন্ন ফন্ট স্টাইলে লেখা টাইপ করা যায়।
  • ওয়েবপেজ এর কাজগুলি করা যায় অতি সহজেই।
  • বিভিন্ন আকারের কাগজে স্থায়ী লিপি প্রস্তুতলিপি সংরক্ষণ এবং প্রয়োজনে সংরক্ষিত লিপির অনুলিপি প্রস্তুত করা যায়।

 

মাইক্রোসফট অফিসে কীভাবে ডকুমেন্ট তৈরি করা যায়

প্রথমে উইন্ডোজ চালু করে পরে Microsoft word চালু করতে হবে। Microsoft word খোলার জন্য নিচের কমান্ডগুলি প্রয়োগ করতে হবে।

১. কম্পিউটার চালু করে উইন্ডোজের ডেস্কটপ আনি।

২. ডেস্কটপ থেকে Start>Programs>Microsoft Office>Microsoft word ক্লিক করি। তাহলে Microsoft word খুলবে। এখানে যথারীতি Microsoft word এর স্ক্রীন আসবে। এখানে প্রয়োজনীয় লেখা টাইপ করা যাবে।

যদি Microsoft word খোলা থাকে তাহলে নিম্নোক্ত ভাবে নতুন ডকুম্নেট খোলা যাবে।

Quick Access টুলবার থেকে Office বাটনে ক্লিক করি। এখান থেকে New কমান্ড দিই।

New Document ডায়ালগ বক্স আসবে এবং Blank Document আইকন লিলেক্ট থাকবে Create বাটনে ক্লিক করি।

সম্পূর্ণ ফাঁকা একটি নতুন ডকুমেন্ট আসবে এবং স্ক্রীনের উপরের দিকে বামে লম্বা একটি রেখা জ্বলবে এবং নিভবে অর্থাৎ কার্সর দেখা যাবে। এখানে ইচ্ছামত টেক্সট টাইপ করা যায়।

 

ডকুমেন্ট ফরমেটিং কি

ডকুমেন্টকে বিভিন্ন আঙ্গিকে সাজানোর পদ্ধতিকে ডকুমেন্ট ফরমেটিং বলে। কাজের উপর ভিত্তি করে ফরমেটিং তিন ধরনের হতে পারে যথা-

১. অক্ষর ফরমেটিংঃ একটি ডকুমেন্টের লেখার আকার, আকৃতি, রং ফন্ট স্টাইল, সুপার স্ক্রিপ্ট, সাবস্ক্রিপ্ট ইত্যাদি কেমন হবে তা অক্ষর ফরমেটিং এর মাধ্যমে নিরুপন হয়।

২. প্যারাগ্রাফ বা অনুচ্ছেদ ফরমেটিংঃ প্যারা সাজানোকে প্যারাগ্রাফ ফরমেটিং বলে। প্যারাগ্রাফ ফরমেটিং এর মাধ্যমে যে সকল কাজ করা হয় তা নিম্নরূপঃ

  • লাইন স্পেসিং
  • প্যারাগ্রাফ স্পেসিং
  • প্যারাগ্রাফের প্রথম অক্ষর কি রকম হবে
  • ইনডেক্স
  • বিন্যাস ইত্যাদি

৩. পেজ ফরমেটিংঃ পেজ ফরমেটিং এর মধ্যে রয়েছে কাগজের আকার, মার্জিন, হেডার বা শীর্ষচরণ, ফুটার বা পাদচরণ, ফুটনোট বা পাদটিকা, প্রষ্ঠা নম্বর সংযোজন ইত্যাদি।

 

ব্লব অপারেশন কী?

ডকুমেন্ট সম্পাদনার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশী যে কাজটি করতে হয় তা হচ্ছে ব্লক অপারেশনের কাজ। ব্লক অপারেশন হচ্ছে ডকুমেন্টের নির্বাচিত কিছু অংশকে চিহ্নিত করে তার উপর বিভিন্ন ধরনের কাজ প্রয়োগ করা।

প্রয়োজনীয় অংশকে ব্লক করে নির্বাচন করার পর সুনির্দিষ্ট কোন কাজ প্রয়োগ করলে সেটি শুধুমাত্র ব্লককৃত লেখার উপর কার্যকরী হবে। ডকুমেন্টের অন্য কোন লেখার উপর তার কোন প্রভাব ফেলবে না।

ব্লক অপারেশন সাধারণত কাট, কপি, বানান পরীক্ষণ, ভিন্ন আঙ্গিকে সজ্জা যেমন অক্ষর, শব্দ, বাক্য, প্যারা বা যে কোন অংশের অক্ষর মোটা করা, গাঢ় করা, বাঁকানো, ফন্ট এর ধরণ ও সাইজ পরিবর্তন করা ইত্যাদিতে ব্যবহার করা হয়।

 

স্প্রেডশিট বলতে কী বোঝ? কয়েকটি স্প্রেডশিট বিশ্লেষণ প্রোগ্রামের না

Spread অর্থ ছাড়ানো এবং Sheet অর্থ পাতা অর্থাৎ স্প্রেডশিট শব্দটির আভিধানিক অর্থ হলো ছড়ানো পাতা। গ্রাফ কাগজের ন্যায় X অক্ষ এবং Y অক্ষ বরাবর ছোট ছোট ঘরের ন্যায় অনেক ঘর সম্বলিত বড় শিটকে স্প্রেডশিট বলা হয়।

আয়াতকার ছোট ছোট ঘরগুলোকে বলা হয় সেল। এরূপ অসংখ্য সেলের সমন্বয়ে তৈরি হয় স্প্রেডশিট। সুবিশাল স্প্রেডশিটের যে অংশে কাজ করা হয় তাকে ওয়ার্কশিট বলে। মূলত স্প্রেডশিটই হলো ওয়ার্কশিট। একাধিক ওয়ার্কশিটের সমন্বয়ে তৈরি হয় ওয়ার্কবুক।

কয়েকটি স্প্রেডশিট প্রোগ্রামঃ

  • মাইক্রোসফট এক্সেল (Microsoft Excel)
  • লোটাস (Lotus)
  • কোয়াট্রো প্রো (Quartto Pro)
  • মাল্টিপ্লান (Multiplan)
  • সুপার ক্যাল্ক (Super Cale)
  • ভিসিক্যাল্ক (VisiCale)

শেষ কথা:
আশা করি আপনাদের এই আর্টিকেলটি পছন্দ হয়েছে। আমি সর্বদা চেষ্টা করি যেন আপনারা সঠিক তথ্যটি খুজে পান। যদি আপনাদের এই “ডকুমেন্ট প্রসেসিং কি? Document Processing?” আর্টিকেলটি পছন্দ হয়ে থাকলে, অবশ্যই ৫ স্টার রেটিং দিবেন।

5/5 - (39 votes)