শরীরের কোনো হাড় ভেঙ্গে গেলে একে হাড়ভাঙ্গা বলে। হাড়ভাঙ্গা নানা প্রকার হতে পারে। যথা-
ক. সাধারণ হাড়ভাঙ্গা
খ. কম্পাউন্ড হাড়ভাঙ্গা
গ. জটিল হাড়ভাঙ্গা
সাধারণ হাড়ভাঙ্গা বা অস্থিভঙ্গ (Simple Fracture)
যে ধরনের অস্থিভঙ্গে ভঙ্গ অস্থি চামড়া বিদীর্ণ করে বের হয় না তাকে সাধারণ অস্থিভঙ্গ বলে। এ ধরনের অস্থিভঙ্গে হাড় শুধু দুই টুকরা হয়ে যায়, এর বেশি কিছু নয়। হাড় ভেঙে বাইরে বেরিয়ে আসে না বলে এ ধরনের অস্থিভঙ্গের আরেক নাম বদ্ধ অস্থিভঙ্গ।
সাধারণ অস্থিভঙ্গের লক্ষণ (Symptoms of Simple Fracture) সাধারণ অস্থিভঙ্গের যে সব লক্ষণ প্রকাশ পায় তাতে দুশ্চিন্তাগ্রস্থ হওয়ার কারণ নেই, ধীরে সুস্থে চিকিৎসকের কাছে গেলেই হবে। লক্ষণগুলো হচ্ছে ফুলে যাওয়া; কালশিরা পড়া; থেকে থেকে প্রচন্ড ব্যথা হওয়া, কিন্তু ব্যথা সারতে দেরি হওয়া; কাঁটা ফোটানোর অনুভূতি জাগা, অসাঢ় বোধ হওয়া; সামান্য ওজনের জিনিসও বহনে কষ্ট পাওয়া ইত্যাদি।
হাড় ভেঙ্গে গেলে করণীয় কী?
১। সাথে সাথে রোগীর চিকিৎসা শুরু করতে হবে। কারণ রোগীকে তৎক্ষণাৎ স্থানান্তর করা সম্ভব হয় না।
২। আঘাতপ্রাপ্ত স্থানকে অনড় করতে হবে যাতে নড়াচড়া করতে না পারে।
৩। স্প্রিল্ট ব্যবহার করে আহত অঙ্গ অনড় করতে হবে।
৪। রোগীকে যত দ্রুত সম্ভব হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করতে হবে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x