পড়াশোনা

প্রভা কাকে বলে? প্রভা কত প্রকার ও কি কি?

1 min read

কোনো বস্তু কর্তৃক নির্দিষ্ট তরঙ্গ দৈর্ঘ্যের আলো শোষণ এবং অন্যান্য তরঙ্গ দৈর্ঘ্যের আলো বিকিরণ করার ঘটনাকে প্রভা বলে। প্রভা তিন প্রকার। যথা : –
ক. প্রতিপ্রভা (Flourescence)
খ. অনুপ্রভা (Phosphorescence) এবং
গ. তাপাপন (Calorescence)।

ক. প্রতিপ্রভা (Flourescence) : এমন কতকগুলো বস্তু আছে, যেগুলোর ওপর এক বর্ণের আলো পড়লে ভিন্ন জাতীয় আলো বিকিরণ করে। কোনো প্রতিপ্রভা বস্তুর ওপর যতক্ষণ আলো ফেলা হয় প্রতিপ্রভা ততক্ষণ দেখা যায়। কুইনাইন, ইউরেনিয়াম, সালফেট ইত্যাদি প্রতিপ্রভা বস্তুর উদাহরণ।

খ. অনুপ্রভা (Phosphorescence) : এমন কতকগুলো বস্তু আছে, যাদের সাদা আলোয় কিছুক্ষণ উন্মুক্ত রেখে আলো সরিয়ে নিলেও অন্ধকারে কিছুক্ষণ আলো দেয়। একে অনুপ্রভা বলে এবং বস্তুগুলোকে অনুপ্ৰভ বস্তু বলে। ক্যালসিয়াম সালফাইড, ফসফরাস, বেরিয়াম সালফাইড প্রভৃতি অনুপ্ৰভ বস্তু।

গ. তাপাপন (Calorescence) : কতগুলো বস্তু আছে যেগুলো দীর্ঘ তরঙ্গদৈর্ঘ্যের আলো শোষণ করে এবং ক্ষুদ্র তরঙ্গদৈর্ঘ্যের আলো বিকিরণ করে। এ ধরনের ঘটনাকে তাপাপন বলে। এক্ষেত্রে সাধারণত অবলোহিত আলো শোষিত হয় এবং দৃশ্যমান আলো নির্গত হয়। কার্বন ডাই-সালফাইডে আয়োডিন দ্রবণ তাপাপন প্রদর্শন করে।

5/5 - (19 votes)
Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.

Leave a Comment