প্রশ্ন-১. পরিসংখ্যান কি?
উত্তর : পরিসংখ্যান হলো সংখ্যাভিত্তিক কোনো তথ্য বা ঘটনা।

প্রশ্ন-২. উপাত্ত কি?
উত্তর : ইনফরমেশন বা তথ্যের ক্ষুদ্রতম এককই হচ্ছে উপাত্ত।

প্রশ্ন-৩. প্রচুরক কী?
উত্তর : উপাত্ত সমূহে যে মানটি সবচেয়ে বেশি বার থাকে তাই প্রচুরক।

প্রশ্ন-৪. কেন্দ্রীয় প্রবণতার পরিমাপগুলো কি কি?
উত্তর : কেন্দ্রীয় প্রবণতার পরিমাপগুলো হলো গাণিতিক গড়, মধ্যক, প্রচুরক।

প্রশ্ন-৫. মধ্যক কী?
উত্তর : উপাত্তের মানগুলো ঊর্ধ্বক্রম অনুসারে সাজানো হলে মধ্যম মানকে মধ্যক বলে।

প্রশ্ন-৬. শ্রেণি মধ্যমান কি?
উত্তর : কোন শ্রেণীর ঊর্ধ্বমান ও নিম্নমানের গড় হলো শ্রেণি মধ্যমান।

প্রশ্ন-৭. বিচ্ছিন্ন চলক কাকে বলে?
উত্তর : যে চলকের মান শুধুমাত্র পূর্ণ সংখ্যা হতে পারে তাকে বিচ্ছিন্ন চলক বলে।

প্রশ্ন-৮. উদাহরণসহ কেন্দ্রিয় প্রবণতার সংজ্ঞা দাও।
উত্তর : কোনো পরিসংখ্যানে উপাত্তসমূহ মাঝামাঝি বা কেন্দ্রের মানের দিকে পুঞ্জিভূত হয়। মাঝামাঝি বা কেন্দ্রের মানের দিকে উপাত্তসমূহের পুঞ্জিভূত হওয়ার প্রবণতাকে কেন্দ্রিয় প্রবণতা বলে।
উদাহরণ : কোনো একটি শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বয়সের গড় হলো কেন্দ্রিয় প্রবণতার উদাহরণ।

প্রশ্ন-৯. অবিন্যস্ত উপাত্ত কাকে বলে?
উত্তর : উপাত্তগুলো মানের ক্রম অনুসারে সাজানো না থাকলে তাকে বলে অবিন্যস্ত উপাত্ত।

প্রশ্ন-১০. গণসংখ্যা কি?
উত্তর : কোনো শ্রেণীর ট্যালি হলো ঐ শ্রেণীর গণসংখ্যা।

প্রশ্ন-১১. অবিচ্ছিন্ন চলক কাকে বলে?
উত্তর : যে চলকের মান যে কোনো বাস্তব সংখ্যা হতে পারে তাকে অবিচ্ছিন্ন চলক বলে।

প্রশ্ন-১২. কেন্দ্রীয় প্রবণতা কী?
উত্তর : উপাত্ত সমূহের কেন্দ্রের দিকে পুঞ্জীভূত হওয়াকে কেন্দ্রীয় প্রবণতা বলে।

প্রশ্ন-১৩. বিন্যস্ত উপাত্ত কাকে বলে?
উত্তর : উপাত্তগুলো মানের ক্রম অনুসারে সাজানো থাকলে তাকে বলে বিন্যস্ত উপাত্ত।

প্রশ্ন-১৪. কেন্দ্রীয় প্রবণতার পরিমাপ কয়টি?
উত্তর : কেন্দ্রীয় প্রবণতার পরিমাপ তিনটি।

প্রশ্ন-১৫. প্রাথমিক উপাত্ত ও মাধ্যমিক উপাত্ত কি?
উত্তর : সরাসরি উৎস থেকে সংগৃহীত উপাত্ত হলো প্রাথমিক উপাত্ত ও পরোক্ষ উৎস থেকে সংগৃহীত উপাত্ত হলো মাধ্যমিক উপাত্ত।

প্রশ্ন-১৬. পরিসংখ্যানের উপাত্ত কি?
উত্তর : তথ্য বা ঘটনা নির্দেশক সংখ্যাগুলো হলো পরিসংখ্যানের উপাত্ত।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x