পড়াশোনা
1 min read

ত্রয়োদশ অধ্যায় : জীবের পরিবেশ, জীববিজ্ঞান (নবম ও দশম শ্রেণি)

প্রশ্ন-১। উদ্ভিদ ও প্রাণীর মৃতদেহ পচে কী তৈরি হয়?
উত্তরঃ ইউরিয়া ও হিউমাস।

প্রশ্ন-২। ভাসমান ক্ষুদ্র প্রাণীদের কী বলে?
উত্তরঃ জুয়োপ্ল্যাংকটন।

প্রশ্ন-৩। বিয়োজক কাকে বলে?
উত্তরঃ পরভোজী বা মৃতজীবী যে সকল অণুজীব জীবের মৃতদেহ থেকে বিশোষণের মাধ্যমে খাদ্য গ্রহণ করে এবং মৃতদেহকে বিয়োজিত করে সরল জৈব যৌগে পরিণত করে তাদের বিয়োজক বলে।

প্রশ্ন-৪। জীববৈচিত্র কাকে বলে?
উত্তরঃ পৃথিবীতে বিরাজমান জীবসমূহের প্রাচুর্য ও ভিন্নতাকে জীববৈচিত্র বলে।

প্রশ্ন-৫। বাস্তুসংস্থান কী?
উত্তরঃ জীব সম্প্রদায়ের সাথে পরিবেশের জড় উপাদানের আন্তঃসম্পর্ক ও পারস্পরিক ক্রিয়াই হলো বাস্তুসংস্থান।

প্রশ্ন-৬। জলজ বাস্তুতন্ত্র কি?
উত্তরঃ জলজ বাস্তুতন্ত্র হলো নির্দিষ্ট একটি জলজস্থান, যেখানে জড় উপাদান খাদ্য উৎপাদনকারী সবুজ উদ্ভিদ,খাদ্যের জন্য উদ্ভিদের ওপর নির্ভরশীল কিছু প্রাণী এবং এসব উপাদানের মধ্যে যথাযথ আন্তঃসম্পর্ক বিদ্যমান।

প্রশ্ন-৭। প্ল্যাংকটন কী?
উত্তরঃ পানিতে ভাসমান ক্ষুদ্র জীবদের বলা হয় প্লাংকটন।

প্রশ্ন-৮। খাদ্য শৃঙ্খল কাকে বলে?
উত্তরঃ খাদ্যের উৎপাদক থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ খাদক পর্যন্ত শৃঙ্খল আকারে খাদ্য ও খাদকের যে সরল ধারাবাহিকতা দেখা যায়, তাকে খাদ্য শৃঙ্খল বলে।

প্রশ্ন-৯। বাস্তুতন্ত্র কাকে বলে?
উত্তরঃ কোন একটি নির্দিষ্ট অঞ্চলের নির্দিষ্ট পরিবেশে সজীব এবং নির্জীব উপাদানের সম্পর্ক ও পারস্পরিক ক্রিয়াকে বাস্তুতন্ত্র বলে।

প্রশ্ন-১০। জীব সম্প্রদায় কি?
উত্তরঃ একটি নির্দিষ্ট বাস্তুতন্ত্রে যেসব জীব জন্মায় ও বাস করে, এদের একত্রে বলা হয় জীব সম্প্রদায়।

প্রশ্ন-১১। মৃতজীবী শৃঙ্খল কী?
উত্তরঃ উদ্ভিদ ও প্রাণীর মৃতদেহের সঙ্গে বিভিন্ন অণুজীবের এবং প্রাণীর মধ্যে যে খাদ্য শৃঙ্খল গড়ে উঠে তাকে বলা হয় মৃতজীবী শৃঙ্খল।

প্রশ্ন-১২। পরজীবী খাদ্য শৃঙ্খল কাকে বলে?
উত্তরঃ বড় জীব থেকে শুরু করে ক্রমে ছোট জীবের মধ্যে পরজীবী ধরনের যে খাদ্য শৃঙ্খল গড়ে উঠে তাকে পরজীবী শৃঙ্খল বলে।

প্রশ্ন-১৩। উৎপাদক কাকে বলে?
উত্তরঃ যে সরল জীব (সবুজ উদ্ভিদ) সূর্যালোকের উপস্থিতিতে কার্বন ডাই-অক্সাইড ও পানির সমন্বয়ে শর্করা জাতীয় খাদ্য তৈরি করতে পারে তাদেরকে উৎপাদক বলে।

প্রশ্ন-১৪। খাদক কাকে বলে?
উত্তরঃ বাস্তুসংস্থানের যে সব জীব নিজেদের খাদ্য নিজেরা তৈরি করতে পারে না এবং খাদ্যের জন্য প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে উৎপাদকের উপর নির্ভরশীল তাদেরকে খাদক বলে।

প্রশ্ন-১৫। শক্তি পিরামিড কাকে বলে?
উত্তরঃ খাদ্য শিকলে যুক্ত প্রতিটি পুষ্টিস্তরে শক্তি সঞ্চয় ও স্থানান্তরের বিন্যাস ছককে শক্তি পিরামিড বলে।

প্রশ্ন-১৬। সহ অবস্থান বা symbiosis কী?
উত্তরঃ জীবজগতে অবস্থানকারী বিভিন্ন প্রকার গাছপালা ও প্রাণীদের মধ্যে বিদ্যমান জৈবিক সম্পর্কগুলোকে সহ অবস্থান বা সিমবায়োসিস বলে।

প্রশ্ন-১৭। ট্রফিক লেভেল কী?
উত্তরঃ খাদ্য শিকলের প্রতিটি স্তরকে ট্রফিক লেভেল বলা হয়।

প্রশ্ন-১৮। গৌণ খাদক কাকে বলে?
উত্তরঃ যেসব প্রাণী তৃণভোজী প্রাণীদের খাদ্য হিসাবে গ্রহণ করে তাদেরকে গৌণ খাদক বলে।

প্রশ্ন-১৯। মিথস্ক্রিয়া কী?
উত্তরঃ প্রাকৃতিক পরিবেশে উদ্ভিদ ও প্রাণী উভয় প্রকার জীব ও জড় পদার্থের মধ্যে শক্তি ও বস্তুর আদান-প্রদানকে বলা হয় মিথস্ক্রিয়া।

প্রশ্ন-২০। উৎপাদক উদ্ভিদকে স্বভোজী বলা হয় কেন?
উত্তরঃ উদ্ভিদ নিজের খাবার নিজেই তৈরি করতে পারে, অন্য কোনো জীবের ওপর খাদ্যের জন্য নির্ভর করতে হয় না তাই এদের স্বভোজী বলে।

প্রশ্ন-২১। ধনাত্মক আন্তঃক্রিয়া কাকে বলে?
উত্তরঃ যে আন্তঃসম্পর্ক দুটি জীবের একটি অন্যটিকে সহায়তা করে তাকে ধনাত্মক আন্তঃক্রিয়া বলে।

Rate this post