যেসব রাসায়নিক পদার্থ বিশুদ্ধ ও শুষ্ক অবস্থায় পাওয়া যায়, যারা পানিগ্রাহী বা পানিত্যাগী নয় কিংবা বায়ুর উপাদান বা কোনো জীবাণু দ্বারা আক্রান্ত হয় না এবং যাদের সরাসরি রাসায়নিক নিক্তিতে ওজন করে প্রমাণ দ্রবণ প্রস্তুত করা হলে দ্রবণের ঘনমাত্রা দীর্ঘদিন অপরিবর্তিত থাকে সেসব পদার্থকে প্রাইমারি স্ট্যান্ডার্ড পদার্থ বলে। যেমন : সােডিয়াম কার্বনেট (Na2CO3) পটাসিয়াম ডাইক্রোমেট (K2Cr2O7) ইত্যাদি।

প্রাইমারি স্ট্যান্ডার্ড পদার্থের বৈশিষ্ট্য

  • প্রাইমারি স্ট্যান্ডার্ড পদার্থগুলোকে বিশুদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়;
  • এগুলো বায়ুতে থাকা CO2, O2 ও জলীয় বাষ্প দ্বারা আক্রান্ত হয় না;
  • রাসায়নিক নিক্তিতে সঠিকভাবে ভর মেপে প্রমাণ দ্রবণ প্রস্তুত করা যায়;
  • পানিত্যাগী, পানিগ্রাহী ও পানিগ্রাসী নয়।

এ সম্পর্কিত প্রশ্ন ও উত্তর

গাঢ় H2SO4 প্রাইমারি স্ট্যান্ডার্ড পদার্থ নয় কেন? ব্যাখ্যা কর।

উত্তরঃ গাঢ় H2SO4 এর দ্রবণ বিশুদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায় না। বায়ুর সংস্পর্শে পরিবর্তিত হয়ে যায়, রাসায়নিক নিক্তিতে সঠিকভাবে ভর মেপে প্রমাণ দ্রবণ প্রস্তুত করা যায় না এবং প্রস্তুতকৃত প্রমাণ দ্রবণের ঘনমাত্রা অনেকদিন পর্যন্ত অপরিবর্তিত থাকে না। ফলে গাঢ় H2SO4 একটি প্রাইমারি স্ট্যান্ডার্ড পদার্থ নয় বরং এটি একটি সেকেন্ডারি স্ট্যান্ডার্ড পদার্থ।

 

Na2CO3 কে প্রাইমারি স্ট্যান্ডার্ড পদার্থ বলা হয় কেন?

উত্তরঃ Na2CO3 কে প্রাইমারি স্ট্যান্ডার্ড পদার্থ বলা হয়। কারণ Na2CO3 কে প্রকৃতিতে শুষ্ক ও বিশুদ্ধ অবস্থায় নির্দিষ্ট সংযুতিতে পাওয়া যায়, রাসায়নিক নিক্তিতে সরাসরি ওজন করা যায় এবং Na2CO3 এর দ্রবণকে দীর্ঘদিন রেখে দিলেও দ্রবণের ঘনমাত্রার কোনাে পরিবর্তন হয় না। তাই Na2CO3 কে প্রাইমারি স্ট্যান্ডার্ড পদার্থ বলা হয়।

 

বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তরঃ–

১। নিচের কোনটি সেকেন্ডারি স্ট্যান্ডার্ড পদার্থ?

ক) সোডিয়াম অক্সালেট

খ) পটাশিয়াম ডাইক্রোমেট

গ) অক্সালিক এসিড

ঘ) সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড

সঠিক উত্তর : ঘ) সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x