পড়াশোনা
1 min read

প্রতিবিম্ব কাকে বলে? প্রতিবিম্ব কত প্রকার ও কি কি?

Updated On :

কোনো বিন্দু হতে নিঃসৃত আলোক রশ্মিগুচ্ছ কোনো তলে প্রতিফলিত বা প্রতিসরিত হওয়ার পর দ্বিতীয় কোনো বিন্দুতে মিলিত হয় বা দ্বিতীয় কোনো বিন্দু হতে অপসারিত হচ্ছে বলে মনে হয়। তখন ঐ দ্বিতীয় বিন্দুটিকে প্রথম বিন্দুর প্রতিবিম্ব বলে। একটি বস্তু হলো অসংখ্য বিন্দুর সমষ্টি। ফলে বিন্দুর মতো বস্তুরও প্রতিবিম্ব গঠিত হয়। অথবা

কোন বিন্দু থেকে আগত আলোক রশ্মি গুচ্ছ প্রতিফলিত বা প্রতিসৃত হয়ে যদি অন্য কোন বিন্দুতে মিলিত হয় বা অন্য কোন বিন্দু থেকে অপসৃত হচ্ছে বলে মনে হয় তবে দ্বিতীয় বিন্দুকে প্রথম বিন্দুর উৎসের প্রতিবিম্ব বলে।
প্রতিবিম্ব উদাহরণ: ক্যামেরার ফটোগ্রাফিক প্লেট, সিনেমার পর্দা, , মরুভূমির মরীচিকা, আয়নায় গঠিত প্রবিবিম্ব, স্থির জল গঠিত প্রতিবিম্ব, মধ্যে প্রতিবিম্ব গঠিত হয়।

প্রতিবিম্ব দুই প্রকার। যথা–
  1. বাস্তব বা সদ প্রতিবিম্ব
  2. অবাস্তব বা অসদ প্রতিবিম্ব
কোনো বিন্দু হতে নিঃসৃত আলোকরশ্মিগুচ্ছ কোনো তলে প্রতিফলিত বা প্রতিসরিত হয়ে দ্বিতীয় কোনো বিন্দুতে প্রকৃতপক্ষে মিলিত হলে দ্বিতীয় বিন্দুটি প্রথম বিন্দুর বাস্তব বা সদ প্রতিবিম্ব। আর প্রকৃতপক্ষে মিলিত না হলে তা অবাস্তব বা অসদ প্রতিবিম্ব।

সৎ প্রতিবিম্ব বা সদবিম্ব কাকে বলে? উদাহরণ দাও।

আলোক রশ্মি যখন প্রতিফলিত বা প্রতিসৃত হয়ে অন্য একটি বিন্দুতে মিলিত হচ্ছে বলে মনে হয়, তখন তাকে সদবিম্ব বলে।
কোন বিন্দু উৎস থেকে আগত অপসারী আলোক রশ্মি গুচ্ছ প্রতিফলিত বা প্রতিসৃত হয়ে যদি অন্য কোন বিন্দুতে মিলিত হয়, তখন দ্বিতীয় বিন্দুকে প্রথম বিন্দু উৎসের সদবিম্ব বলে।

সদবিম্বের বৈশিষ্ট্য:-
১) সদ বিম্বকে চোখে দেখা যায়।
২) সদ বিম্বকে পর্দায় ফেলা যায়।

অসদ প্রতিবিম্ব বা অসদবিম্ব কাকে বলে? উদাহরণ দাও।

আলোক রশ্মি যখন প্রতিফলিত বা প্রতিসৃত হয়ে অন্য কোন বিন্দু থেকে অপসৃত হচ্ছে বলে মনে হয়। তখন তাকে অসৎ বিম্ব বলে।
কোন বিন্দু উৎস থেকে আগত আলোক রশ্মি গুচ্ছ প্রতিফলন বা প্রতিসরণের পর যদি অন্য কোন বিন্দুতে মিলিত না হয়ে অন্য কোন বিন্দু থেকে অপ্রসৃত হচ্ছে বলে মনে হয়, তবে দ্বিতীয় বিন্দুকে প্রথম বিন্দু উৎসের অসৎ বিম্ব বলে।

অসদ বিম্বের বৈশিষ্ট্য:-
১) অসদবিম্ব কে চোখে দেখা যায়।
২) অসদবিম্ব কে পর্দায় ফেলা যায় না।

সমতল দর্পণে গঠিত প্রতিবিম্বের বৈশিষ্ট্য

১) প্রতিবিম্বটি অসদ হবে।

২) দর্পণ থেকে বস্তুর দূরত্ব এবং প্রতিবিম্বের দূরত্ব পরস্পর সমান হবে।

৩) প্রতিবিম্বটির আকার বস্তুর আকারের সমান হবে।
৪) প্রতিবিম্ব টি সমশীর্ষ হবে।
৫) বস্তুটি প্রতিসম না হলে প্রতিবিম্বের পার্শ্বীয় পরিবর্তন ঘটবে।
৬) বস্তু বিন্দু ও তার প্রতিবিম্ব একই লম্বর রেখায় অবস্থান করবে।

প্রতিফলিত আলোর পরিমাণ কি কি বিষয়ের উপর নির্ভর করে?

প্রতিফলিত আলোর পরিমাণ
১) মাধ্যম দুটির বিভেদ তলের ওপর আলো যে কোনে আপতিত হয়, তার উপর নির্ভর করে।
২) মাধ্যম দুটির প্রকৃতির ওপর।

যেমন, আলো থেকে কাচের ফলকের উপর আপতিত হলে আপতিত আলোর খুব কম অংশই প্রতিফলিত হয়। কিন্তু, আলো বায়ু থেকে তীর্যকভাবে আয়নার ওপর আপতিত হলে আপতিত আলোর বেশিরভাগ অংশই প্রতিফলিত হয়ে বায়ুতে ফিরে আসে।
আলো যত তীর্যকভাবে আপতিত হয়, প্রতিফলিত আলোর পরিমাণ তত বেশি হয়।

সদবিম্ব ও অসদবিম্ব এর পার্থক্য

সদবিম্ব:-
1) কোন বিন্দু উৎস থেকে আগত অপসারী আলোক রশ্মি গুচ্ছ প্রতিফলিত বা প্রতিসৃত হয়ে যদি অন্য কোন বিন্দুতে মিলিত হয় তবে সেই বিন্দুতে প্রথম বিন্দুর সদবিম্ব গঠিত হয়।
2) সদবিম্বকে চোখে দেখা যায় এবং পর্দায় ফেলা যায়।
3) সদবিম্ব বস্তুর সাপেক্ষে অবশীর্ষ বা উল্টো হয়।

অসদবিম্ব:-
1) কোন বিন্দু উৎস থেকে আগত অপসারী আলোক রশ্মি গুচ্ছ প্রতিফলিত বা প্রতিশ্রিত হয়ে যদি অন্য কোন বিন্দু থেকে অপসৃত হচ্ছে বলে মনে হয়, তবে সেই বিন্দুতে প্রথম বিন্দুর অসদ বিম্ব গঠিত হয়।
2) অসদবিম্বকে চোখে দেখা যায় কিন্তু পর্দায় ফেলা যায় না।
3) অসদবিম্ব বস্তুর সাপেক্ষে সমশীর্ষ বা সোজা হয়।

শেষ কথা:
আশা করি আপনাদের এই আর্টিকেলটি পছন্দ হয়েছে। আমি সর্বদা চেষ্টা করি যেন আপনারা সঠিক তথ্যটি খুজে পান। যদি আপনাদের এই “প্রতিবিম্ব কাকে বলে? প্রতিবিম্ব কত প্রকার ও কি কি?” আর্টিকেল পছন্দ হয়ে থাকে, তাহলে অবশ্যই ৫ স্টার রেটিং দিবেন।
5/5 - (33 votes)