পড়াশোনা
1 min read

রাজতন্ত্র কাকে বলে?

Updated On :

যে সরকার ব্যবস্থায় রাষ্ট্রপ্রধান উত্তরাধিকারসূত্রে ক্ষমতা লাভ করেন তাকে রাজতন্ত্র বলে। রাজতন্ত্রে রাজার ছেলে বা মেয়ে উত্তরাধিকার সূত্রে রাষ্ট্রের রাজা বা রানি হয়ে থাকে। রাজতন্ত্র দুই ধরনের, যথা- নিরঙ্কুশ রাজতন্ত্র ও নিয়মতান্ত্রিক রাজতন্ত্র।

রাজতন্ত্র কত প্রকার

রাজতন্ত্র প্রধানত দুই প্রকার। যেমন,
১. নিরঙ্কুশ রাজতন্ত্র (Absolute Monarchy)
এ ধরনের রাষ্ট্রে রাজা বা রানী রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ ক্ষমতার অধিকারী। একাধারে তিনি রাষ্ট্র ও সরকার প্রধান। উদাহরণস্বরুপ: সৌদি আরব ,ওমান ,ব্রুনাই কাতার ইত্যাদি।
এই ধরনের সরকারে, রাজা বা রানীর ক্ষমতা নিরঙ্কুশ। তাদের কথাই আইন, আর তাদের লোকদের কোন কথা নেই।
সৌদি আরবে নিরঙ্কুশ রাজতন্ত্রের উৎকৃষ্ট উদাহরণ। সরকার সৌদি আরবের মৌলিক আইন অনুসরণ করলেও এর কোনো সংবিধান নেই। সরকারের নির্বাহী ক্ষমতা বংশগত, এবং বিচার বিভাগীয় ও আইন প্রশাখা রাজকীয় ডিক্রি বা ফরমান দ্বারা নিযুক্ত হয়। সম্রাট কর্তৃক নিযুক্ত যে কেউ কেবল রাজা কর্তৃক বরখাস্ত হতে পারে।
২. নিয়মতান্ত্রিক বা সাংবিধানিক রাজতন্ত্র (Constitutional Monarchy)
এ ধরনের রাষ্ট্রব্যবস্থায় রাষ্ট্রের রাজা বা রানী উত্তরাধিকার সূত্রে বা নিয়মতান্ত্রিকভাবে রাষ্ট্রপ্রধান হন। এতে রাজা বা রানীর শাসনতান্ত্রিক তেমন কোনো ক্ষমতা থাকেনা। কানাডা, যুক্তরাজ্য ,ডেনমার্ক, বেলজিয়াম , লুক্সেমবার্গ, স্পেন, মরক্কো, বাহারাইন, জর্ডান, কুয়েত ,ভুটান, কম্বোডিয়া , থাইল্যান্ড মালয়েশিয়া, জাপান।
সাংবিধানিক রাজতন্ত্র দেশেরএকটি লিখিত বা অন্তর্নিহিত সংবিধান এবং সংসদের মতো কেন্দ্রীয় সরকারী সংস্থা রয়েছে। যদিও প্রদান নেতা রাজা এবং তাদের রাজত্ব উত্তরাধিকারের মধ্য দিয়ে চলে। তবে, তারা যা খুশি তা করতে পারে না। পরিবর্তে, তাদের অবশ্যই আইনের একটি নির্দিষ্ট সংবিধানের মধ্যে শাসন করতে হয়। অনেক সময় নিয়মতান্ত্রিক রাজতন্ত্রে, রাজা কেবলমাত্র নামে প্রধান হন, যেখানে সংসদ এবং প্রধানমন্ত্রী দ্বারা দেশ পরিচালিত হয়।
গ্রেট ব্রিটেনে সাংবিধানিক রাজতন্ত্রের একটি উদাহরণ। রানী এলিজাবেথ একজন আনুষ্ঠানিক ব্যক্তিত্ব। সরকার সংসদ দ্বারা শাসিত হয়। সংসদ এবং প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত নেওয়ার এবং আইন প্রণয়নের ক্ষমতা রয়েছে।
5/5 - (51 votes)