b

Garments শব্দের অর্থ কি? Apprals অর্থ কি?

গার্মেন্টস (Garments) শব্দের অর্থ পোশাক। এ্যাপারেলস (Apprals) শব্দের অর্থ পোশাকের ফ্যাশান বা ডিজাইন।

কোয়ালিটি (Quality) অর্থ কি? এর কাজ কি?

কোয়ালিটি অর্থ কোন জিনিসের গুণগত মান। Buyer এর নির্দেশ অনুসারে এবং Style অনুযায়ী পোশাকের গুণগত মান উন্নয়ন করাই কোয়ালিটি ইন্সপেক্টরের কাজ।

ফিনিশিং বলতে কি বুঝ?

উত্তরঃ ফিনিশিং বলতে পোশাকের সেলাইয়ের মান, নকশার উপযুক্ততা, ফিটিং ইত্যাদির সমন্বিত অবস্থাকে বোঝায়। ফিনিশিং মূল্যায়নের জন্য তৈরি পোশাকের লেবেল পর্যবেক্ষণ করতে হয়।

ব্যাক টু ব্যাক এল, সি (Back to back L/C) কি?

উত্তরঃ যে কাঁচামাল বিদেশ হতে আমদানি করে উহা পণ্য উৎপাদন করে আবার বিদেশে রপ্তানী করা হয়, ঐরূপ পন্য আমদানীর জন্য যে এল,সি খোলা হয় তাকে ব্যাক টু ব্যাক এল, সি বলে। ব্যাক টু ব্যাক এল, সি এর মাধ্যমে আমদানী করা পণ্য খোলা বাজারে বিক্রি করা যায় না।

বাটন আই/চক্ষু কত প্রকার ও কি কি?

উত্তরঃ বাটনের মাঝে বোতামের ছিদ্রকে বাটন আই বলে। বাটন আই/চক্ষুর ছিদ্র অনুযায়ী তিন ভাগে ভাগ করা যায়। যেমনঃ–
১। ওয়ান আই বাটন
২। টু আই বাটন
৩। ফোর আই বাটন
১। ওয়ান আই বাটন : যে সব বাটনে একটি মাত্র ছিদ্র থাকে তাকে ওয়ান আই বাটন বলে।
২। টু আই বাটন : যে সব বাটনে দুইটি ছিদ্র থাকে তাকে টু আই বাটন বলে।
৩। ফোর আই বাটন : যে সব বাটনে চারটি ছিদ্র থাকে তাকে ফোর আই বাটন বলে।

পকেট কত প্রকার ও কি কি?

উত্তরঃ পকেট বিভিন্ন প্রকার আছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ৫ (পাঁচ) প্রকার নিচে দেওয়া হলোঃ-
১। প্লেইন পকেট (Plain Pocket)
২। রাউন্ড পকেট (Round Pocket)
৩। স্কয়ার্ড পকেট (Squared Pocket)
৪। নোছ পকেট (Nosr Pocket)
৫। বন পকেট (Bon Pocket)

কলার কত প্রকার ও কি কি?

উত্তরঃ কলার তিন প্রকার যথাঃ-
১) ওয়ান পিচ ব্যান্ড কলার (One pice band collar)
২) টু পিচ ব্যান্ড কলার (Two pice band collar)
৩) ওপেন/রাউন্ড কলার (Open/Round collar)

একটি সার্টের পিছনের অংশ কত প্রকার ও কি কি?

উত্তরঃ একটি সার্টের পিছনের অংশ তিন প্রকার হতে পারে। যেমন– ১) ব্যাক প্লেট (Back Plate), ২) ব্যাক টেকেন (Back Taken) এবং ৩) ব্যাক ডাট (Back Dat)।

কাপড় কত প্রকার ও কি কি?

উত্তরঃ কাপড়কে প্রধানত ২টি ভাগে ভাগ করা যায়।
(১) কালার বা রঙের দিক দিয়ে।
(২) সুতার উপর নির্ভর করতে।
(১) কালার বা রঙের দিক দিয়ে কাপড়কে চার ভাগে ভাগ করা যায়।
(ক) সলিড কালার
(খ) চেক কালার
(গ) প্রিন্ট কালার
(ঘ) ষ্ট্রাইপ কালার।

পোশাক তৈরির সময় দেহের কোন কোন অংশের মাপ নিতে হয়?

উত্তরঃ পোশাক তৈরিতে দেহের যেসব অংশের মাপ নিতে হয় সেগুলো হলো– দেহের ঝুল, পুট, হাতা, মুহরি, বুক, কোমর, হিপ, মৌরি অংশের মাপ নিতে হয়।

কাফ কি? কত প্রকার ও কি কি?

উত্তরঃ স্লিভ এর শেষ প্রান্তে আলাদা কাপড় দিয়ে যা করা হয় তাকে কাফ বলে। কাফ প্রধানত চার প্রকার। যথাঃ-
১। স্কয়ার কাফ (Square cuff)
২। রাউন্ড কাফ (Round cuff)
৩। নোছ কাফ (Nose cuff)
৪। পয়েন্ট কাফ (Point cuff)

গার্মেন্টস মেশিনে কি ধরনের নিডেল ব্যবহার করা হয়?

উত্তরঃ নিডেল (Needle) অর্থ সুই। এই নিডেল বা সুই সমন্ধে প্রত্যেক অপারেটর, সুপারভাইজার, পি. এম, এমনকি মালিক পর্যন্ত জ্ঞান থাকা উচিৎ। কোন মেশিনে কি ধরনের নিডেল ব্যবহার হয় তা নির্ভর করে একমাত্র কাজের উপর। কারণ পোশাকের কাপড় চিকন হলে নিডেল নাম্বার কম লাগে এবং কাপড় যত মোটা হবে নিডেল নাম্বার তত বেশি লাগবে।

ফোল্ডিং করার সময় কোন কোন বিষয়ের প্রতি লক্ষ্য রেখে ফোল্ডিং করা উচিৎ?

উত্তরঃ ফোল্ডিং করার সময় নিচের বিষয়গুলোর প্রতি লক্ষ্য রাখা দরকার–

(১) বায়ারের (Buyer) নির্দেশ অনুযায়ী সব ম্যাটেরিয়াল সঠিক স্থানে আছে কিনা লক্ষ্য রাখা উচিৎ।

(২) আয়রন করার সময় বা ফোল্ডিং করার সময় দেখতে হবে ইয়ক দুই পার্শ্বে সমান আছে কিনা।

(৩) পিনগুলো এমনভাবে ভেতরে আটকাতে হবে যাতে বাহির থেকে দেখা না যায়।

(৪) কোন ভাবেই যেন লুজ (Loose) সুতা মানে আগলা সুতা পলিব্যাগে না যায়।

(৫) পোশাকের সাইজ অনুযায়ী পলিব্যাগের সাইজ ঠিক রেখে পলি করা উচিৎ।

(৬) কার্টুনের ভেতর ত্রুটিযুক্ত, স্পট পোশাক যেন পলি না হয় এই সব দিকগুলো বিশেষ নজর রাখা উচিৎ।

গার্মেন্টস প্রতিষ্ঠানে ফিনিশিং সেকশনে কি কি সাব ম্যাটেরিয়াল দরকার হয়?

উত্তরঃ ফিনিশিং সেকশনে কাজ করতে হলে বিভিন্ন ধরনের জিনিস পত্র দরকার হয়। তার মধ্যে উল্লেখযােগ্য–
(১) আয়রন (Iron)
(২) নেক বাের্ড (Nack Board)
(৩) ব্যাক বাের্ড/টি বাের্ড (Back Board/T-Board)
(৪) ফুল বাের্ড (Full Board)
(৫) হ্যাঙ্গ ট্যাগ (Hang Tag)
(৬) ট্যাগ গান (Tag Gan)
(৭) ট্যাগ পিন (Tag Pin)
(৮) টিসু পেপার (Tissu Paper)
(৯) আল পিন (All pin)
(১০) বল পিন (Ball pin)
(১১) ইলাষ্টিক ক্লিপ (Elastic Clip)
(১২) হ্যাঙ্গার (Hanger)
(১৩) পলি ব্যাগ (Poli bag)
(১৪) সাইজ ষ্টিকার (Size sticker)
(১৫) জোকার/লােড ষ্টিকার (Zoker/Load sticker)
(১৬) গাম ট্যাপ (Gum Tap)
(১৭) এস. আর. ট্যাপ/ইনার ট্যাপ (S. R. Tap/Inner Tap)
(১৮) ইনার বক্স (Inner Box)
(১৯) মাষ্টার কার্টন (Muster Carton Box)
(২০) পি. পি. বেল্ট (P. P. Belt)
(২১) বিলিষ্টার (Belister)
এছাড়াও Buyer এর ইচ্ছা অনুযায়ী বা গার্মেন্টস অনুযায়ী আরাে বিভিন্ন প্রকার সাব ম্যাটেরিয়াল দরকার হয়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x