C-কে Mid Leve Language বলা হয়। কারণ এতে উচ্চ স্তরের ভাষার সুবিধার সাথে সাথে Assemble ভাষার সংযোগ ঘটানো যায়। মধ্য পর্যায়ের ভাষা হিসেবে C-তে Assemble ভাষার মতাে Bit, Byte, Memory ও Address নিয়ে ইচ্ছামতো কাজ করা যায়। আবার উচ্চস্তরের ভাষার মতো এতে বিভিন্ন ডেটা টাইপ নিয়ে কাজ করা যায়। তাছাড়া ডেটা টাইপ বিভিন্ন ধরনের হলেও C-তে এগুলোকে সহজে রূপান্তর ও মিশ্রণ করা যায়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x