কটি শব্দের একই অর্থ বুঝাবার জন্য বাংলা ভাষায় একাধিক শব্দ রয়েছে, এদেরকে প্রতিশব্দ বলে। প্রতিশব্দকে সমার্থক শব্দও বলা হয়। যেমন— আকাশের প্রতিশব্দ হচ্ছে- গগন, অম্বর, আসমান ইত্যাদি।

প্রতিশব্দের প্রয়োজনীয়তা

১। ভাষার সৌন্দর্য ও যথার্থ অর্থ প্রকাশের ক্ষেত্রে প্রতিশব্দের ব্যবহার একান্ত জরুরি।

২। শব্দের অর্থ এবং বাক্যাদির ব্যাখ্যার সময় প্রতিশব্দের প্রয়োজন হয়।

৩। ভাষাকে সুন্দর, মার্জিত ও বৈচিত্র্যপূর্ণ করে তুলতে প্রতিশব্দ ব্যবহার করা হয়।

৪। বার বার একই শব্দ ব্যবহার না করে তার প্রতিশব্দ ব্যবহার করলে রচনা সরল ও সুন্দর হয়।

৫। প্রতিশব্দগুলো উত্তমরূপে জানা থাকলে রচনার পুনরাবৃত্তি দোষ ঘটে না এবং ইচ্ছে ভাব প্রকাশ করা সম্ভব হয়।

নিচে কিছু শব্দের প্রতিশব্দ দেওয়া হলো :

অকস্মাৎ : আচমকা, হঠাৎ, সহসা, অতর্কিত, দৈবাৎ।

অকাল : অসময়, অবেলা, দুর্দিন, অশুভ সময়, কুক্ষণ, দুঃসময়।

অক্ষয় : চিরন্তন, ক্ষয়হীন, অশেষ, অনন্ত, অনিঃশেষ, অন্তহীন, অন্তবিহীন, অবিনাশী।

অতিথি : মেহমান, অভ্যাগত, আগন্তুক, নিমন্ত্রিত, আমন্ত্রিত, কুটুম।

অদ্ভুত : উদ্ভট, আজব, আজগুবি, তাজ্জব, বিস্ময়কর, আশ্চর্য, অভিনব, অস্বাভাবিক।

অনেক : বেশি, বহু, প্রচুর, প্রভৃত, পর্যাপ্ত, অধিক, অত্যন্ত, অতিশয়, অতিরিক্ত, অত্যধিক, বাড়তি, দেদার।

অন্ধকার : আঁধার, তিমির, তমসা।

অবকাশ : সময়, ফুরসত, অবসর, ছুটি, সুযোগ।

অভাব : অনটন, দারিদ্র্য, দৈন্য, দীনতা, দুরবস্থা, গরিবি, অসচ্ছলতা, অপ্রাচুর্য।

অলস : আলসে, নিষ্ক্রিয়, নিষ্কর্মা, অকর্মা, শ্রমকাতর, অকেজো, অকর্মণ্য, শ্রমবিমুখ, নিরুদ্যম, জড়প্রকৃতি।

অশ্ব : ঘোড়া, ঘোটক, হয়, তুরগ, তুরঙ্গম।

আইন : বিধান, কানুন, ধারা, নিয়ম।

আকাশ : গগন, আসমান, অম্বর, ব্যোম, নভ, অন্তরীক্ষ, দ্যুলোক, নীলিমা।

আগুন : অগ্নি , অনল, বহ্নি, পাবক, হুতাশন।

আনন্দ : খুশি, আমোদ, মজা, পুলক, হর্ষ, আহ্লাদ, ফুর্তি, সন্তোষ, পরিতোষ, প্রমোদ, উল্লাস, উচ্ছ্বাস।

ইচ্ছা : আকাঙ্ক্ষা, আশা, অভিলাষ, প্রার্থনা, চাওয়া, স্পৃহা, অভিপ্রায়, সাধ, অভিরুচি, প্রবৃত্তি,মনোরথ, ঈপ্সা, অভীপ্সা, বাসনা, কামনা, বাঞ্ছা।

উত্তম : শ্রেষ্ঠ, সর্বশ্রেষ্ঠ, ভালো, উদ্ধৃষ্ট, প্রকৃষ্ট, সেরা, অতুলনীয়, প্রধান।

একতা : ঐক্য, মিলন, একত্ব, অভেদ, অভিন্নতা।

কঠিন : শক্ত, দৃঢ়, কঠোর, কড়া, জটিল, রুক্ষ।

কথা : উক্তি, বাক্য, বচন, কথন, বাণী, ভাষণ, বিবৃতি, জবান, বুলি, বোল, বাক।

কন্যা : মেয়ে, দুহিতা, আত্মজা, নন্দিনী, তনয়া, পুত্রী, ঝি।

কপাল : ললাট, রাত, ভাল, অদৃষ্ট, ভাগ্য, নিয়তি, নসিব।

কবুতর : কপোত, পায়রা, পারাবত, নোটন।

কষ্ট : যন্ত্রণা, দুঃখ, ক্লেশ, আয়াস, পরিশ্রম, মেহনত।

কান : কর্ণ, শ্রবণ, সুতি, শ্রবণেন্দ্রিয়।

কান্না : ক্রন্দন, কাঁদা, রোদন, অশ্রুপাত।কিরণ : রশ্মি, শিখা, আলোকচ্ছটা, কর, প্রভা, দীপ্তি, জ্যোতি, অংশু।

কুল : বংশ, গোত্র, গোষ্ঠী, জাত, বর্ণ।

কূল : তীর, তট, বেলাভূমি, সৈকত, ধার, বালুকাবেলা, কিনারা, পুলিন, পাড়।

খবর : সংবাদ, বার্তা, তথ্য, সমাচার, বিবরণ, সন্ধান, বৃত্তান্ত, খোঁজখবর।

খাদ্য : খাবার, খানা, ভোজ্য, ভক্ষ্য, আহার্য, অন্ন, রসদ।

খারাপ : মন্দ, নিকৃষ্ট, দুষ্ট, নষ্ট, অভদ্র, অশ্লীল।

খোঁজ : সন্ধান, অন্বেষণ, অনুসন্ধান, খোঁজা, তালাশ।

গভীর : অগাধ, অতল, গহন, প্রগাঢ়, নিবিড়।

গৃহ : বাড়ি, ঘর, আলয়, ভবন, নিলয়, নিকেতন, সদন, আগার, আবাস, বাটি, কুটির।

চাঁদ : চন্দ্র, শশী, শশধর, শশাঙ্ক, বিধু, সোম, নিশাকর, সুধাংশু, সুধাকর, ইন্দু, সিতাংশু, হিমাংশু, মৃগাঙ্ক।

চুল : কেশ, অলক, চিকুর, কুন্তল, কবরী।

চোখ : চক্ষু, নয়ন, আঁখি, অক্ষি, নেত্র, লোচন।

জন্ম : উৎপত্তি, উদ্ভব, সৃষ্টি, ভূমিষ্ঠ, জনম, আবির্ভাব।

ঝড় : ঝঞা, তুফান, সাইক্লোন, ঝটিকা, টর্নেডো, ঘূর্ণিঝড়।

ঝোঁক : টান, প্রবণতা, আকর্ষণ।

ঠিক : যথাযথ, সত্য, সঠিক, যথার্থ, উপযুক্ত, নির্ভুল, ন্যায্য, ভালো।

ঢেউ : তরঙ্গ, কল্লোল, উর্মি, বীচি, হিল্লোল, লহরী।

তৃষ্ণা : পিপাসা, তিয়াসা, তেষ্টা, আকাঙ্ক্ষা।

তৈরি : গঠন, নির্মাণ, গড়া, বানানো, প্রস্তুত।

দয়া : অনুগ্রহ, করুণা, কৃপা, অনুকম্পা, মায়া।

দলিল : নথি, চুক্তিপত্র, কাগজপত্র, পাট্টা, দস্তাবেজ।

দিন : দিবস, দিবা, অহ, অহ্ন, বার, রোজ, বাসর, অষ্টপ্রহর।

দেহ : শরীর, গা, গাত্র, বপু, তনু, অঙ্গ, অবয়ব, কাঠামো, আকৃতি।

নতুন : নবীন, আনকোরা, আধুনিক, অধুনা, অবচিীন।

নদী : নদ, গাঙ, স্রোতস্বিনী, তটিনী, প্রবাহিনী, নিঝরিণী, কল্লোলিনী।

নারী : মানবী, মহিলা, স্ত্রী, স্ত্রীলোক, মেয়ে, ললনা, অঙ্গানা, বনিতা।

নিত্য : সতত, সর্বদা, প্রত্যহ, নিয়মিত, চির, চিরস্থায়ী, অক্ষয়, অনন্ত, রোজ।

পদ্ম : কমল, উৎপল, পঙ্কজ, কুমুদ, কুবলয়, শতদল, অরবিন্দ, রাজীব, নলিনী, সরোজ।

পর্বত : পাহাড়, অদ্রি, ভূধর, গিরি, শৈল, অচল।

পাখি : পক্ষী, বিহগ, বিহঙ্গ, খগ, খেচর, চিড়িয়া, পাখপাখালি।

পাথর : পাষাণ, প্রস্তর, শিলা, উপল, অশ্ম, কঙ্কর।

পানি : জল, সলিল, নীর, পয়ঃ, বারি, অপ, উদক, জীবন, অম্বু।

পুত্র : ছেলে, আত্মজ, নন্দন, দুলাল, সুত, তনয়, খোকা, কুমার।

পৃথিবী : জগৎ, ভুবন, সংসার, বিশ্ব, ধরা, ধরণী, ধরিত্রী, বসুমতী, বসুন্ধরা, পৃথ্বী, দুনিয়া, ভূ, ভূমণ্ডল, মর্ত্য, বসুধা, অবনী, মহী, মেদিনী, ক্ষিতি।

বন : অরণ্য, জঙ্গল, কানন, বনানী, বনবাদাড়, কুঞ্জ, কান্তার, বিপিন, অটবী।

বাতাস : বায়ু, হাওয়া, পবন, সমীর, সমীরণ, অনিল, মরুৎ, প্রভঞ্জন।

বিদ্যুৎ : তড়িৎ, বিজলি, বিজুরি, অশনি, ক্ষণপ্রভা, সৌদামিনী, দামিনী, চপলা।

বিবাহ : বিয়ে, পরিণয়, পাণিগ্রহণ, উদ্বাহ, নিকা, শাদি।

বৃক্ষ : গাছ, তরু, দুম, শাখী, পাদপ, মহীরুহ, উদ্ভিদ।

ব্যবধান : ফাঁক, ছিদ্র, অন্তর, তফাত, ভেদ, পার্থক্য।

মন : অন্তর, দিল, পরান, চিত্ত, হৃদয়, অঃকরণ, প্রাণ, অন্তরাত্মা।

মা : জননী, মাতা, মাতৃ, মাতৃকা, আম্মা, গর্ভধারিণী, জন্মদাত্রী, প্রসূতি।

মৃত্যু : মরণ, ইন্তেকাল, বিনাশ, নিপাত, পরলোকগমন, লোকান্তর, চিরবিদায়, দেহত্যাগ, শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ, ইহলীলা-সংবরণ, পঞ্চত্বপ্রাপ্তি।

মেঘ : জলদ, জলধর, নীরদ, বারিদ, ঘন, জীমূত, অভ্র, অম্বুবাহ।

যুদ্ধ : লড়াই, সংঘর্ষ, সংগ্রাম, সমর, যুদ্ধবিগ্রহ, রণ, সংঘাত।

রাজা : নৃপতি, নৃপ, সম্রাট, বাদশাহ্, নৃপেন্দ্র, নরপতি, ভূপতি, ভূপাল।

রাত : রাত্রি, রজনী, নিশি, নিশা, নিশীথ, নিশীথিনী, যামিনী, শর্বরী, বিভাবরী।

রানি : মহিষী, সম্রাজ্ঞী, বেগম, রাজ্ঞী, রাজপত্নী।

সমুদ্র : সাগর, সিন্ধু, সায়র, দরিয়া, জলধি, অকূল, পাথার, বারিধি, রত্নাকর, নীলাম্বু, পয়োধি, বারীন্দ্র, অর্ণব, পারাবার।

সাপ : সর্প, অহি, ফণী, নাগ, ভুজগ, ভুজঙ্গ, আশীবিষ, উরগ, বিষধর, পন্নগ।

সিংহ : কেশরী, পশুরাজ, মৃগেন্দ্র, মৃগরাজ।

সুন্দর : মনোরম, মনোহর, শোভন, সুদৃশ, চারু, রমণীয়, রম্য, কমনীয়, কান্তিমান, লাবণ্যময়, সুদর্শন, ললিত।

সূর্য : রবি, তপন, ভানু, ভাস্কর, আদিত্য, সবিতা, প্রভাকর, দিবাকর, বিভাবসু, দিনমণি, মার্তণ্ড, অংশুমালী, অরুণ।

স্ত্রী : পত্নী, ভার্যা, সহধর্মিণী, অর্ধাঙ্গিনী, দারা, জায়া, বধূ, বউ, বিবি, বেগম, গৃহিণী।

স্বর্ণ : সােনা, সুবর্ণ, কাঞ্চন, কনক, হিরণ, হিরণ্য, হেম।

স্বামী : পতি, কান্ত, নাথ, বল্লভ, দয়িত।

হাত : হস্ত, কর, বাহু, ভুজ, পাণি।

হাতি : গজ, হস্তী, করী, দ্বিপ, বারণ, মাতঙ্গ, কুঞ্জর, দন্তী, দ্বিরদ, পিল।

হীন : নীচ, অধম, নিন্দনীয়, অবনত, গরিব, অক্ষম, শূন্য, ক্ষীণ।

 

বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর

১। ‘অগ্নি’ শব্দের প্রতিশব্দ কোনগুলো?

ক) অংশু, জ্যোতি

খ) অতি, অতীব

গ) অংশু, কর

ঘ) বহ্নি, হুতাশন

উত্তরঃ- ঘ) বহ্নি, হুতাশন

 

২। ‘আশীবিষ’ অর্থ কী?

ক) ভুজঙ্গ  খ) মার্তণ্ড

গ) হুতাশন  ঘ) মাতঙ্গ

উত্তরঃ- ক) ভুজঙ্গ 

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x