‘সবাই সাফল্য দেখছে, আমার যুদ্ধের গল্প কেউ জানে না’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে শূন্যে ভেসে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছেন জয়িতা আফরিন নামে একজন ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার। গত মঙ্গলবার সকালে তিনি ফটোগ্রাফি করতে মডেল মোবাশ্বিরা কামাল ইরাকে নিয়ে টিএসসিতে যান।

এ সময় চোখে পড়ে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনের প্ল্যাকার্ড সাঁটানো। সেখানেই তুললেন তার শূন্যে ভেসে বেড়ানো ছবি। পরে বিকেল ৪টার দিকে ফেসবুকে নিজের ওয়ালে আপলোড করার মুহূর্তে ভাইরাল হয়েছে ছবিগুলো। অসংখ্য মানুষ শেয়ার করেছেন ছবিগুলো।

বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের ওয়ালে ফের স্ট্যাটাস দিয়েছেন ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার জয়িতা আফরিন। তিনি লিখেছেন, সবাই যখন শুধু সাফল্য দেখছে ও অভিনন্দন জানাচ্ছে আমাকে। কিন্তু এর পেছনে আমার যুদ্ধের গল্প হয়তো অনেকেই জানেন না। ভাইরাল হওয়া ছবি নিয়ে অনেক গল্প, প্রশংসা, মিম সবকিছুতে ফেসবুক এ অনেক পোস্ট।

তিনি লিখেন, আমি এই সাফল্য উৎসর্গ করলাম সব ক্যান্সার এ আক্রান্তদের জন্য। কারণ আমি নিজে গত বছর থেকে এই ক্যান্সারের সাথেই যুদ্ধ করছি। কেমোথেরাপি নিয়ে কাজ চালিয়ে গেছি। এমনকি এখনো আমার ইমিউনোথেরাপি চলছে। ক্যান্সার মানেই জীবন শেষ হয়ে যাওয়া না বরং নতুন একটা জীবনের শুরুও।

এর আগে মঙ্গলবার ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ছবি প্রসঙ্গে জয়িত জনিয়েছেন, তিনি টিএসসিতে সকালে ছবি তুলতে গিয়েছিলেন। তারপর রাজু ভাস্কর্যের ওখানে ছবি তুলতে গেলে, দেখেন, শাবিপ্রবির আন্দোলনের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে অনেকগুলো প্লাকার্ড সাঁটানো। এর পরেই তিনি পরিকল্পনা করে, ওই প্ল্যাকার্ডের সামনে ছবি তুলে আন্দোলনের একটা আলাদা ভাষা তৈরি করতে চেয়েছেন।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x