গণতন্ত্র এবং প্রজাতন্ত্র সরকার ব্যবস্থার দুটি রুপ। বর্তমানে, পৃথিবীর অধিকাংশ রাষ্ট্র এই দুটি সরকার ব্যবস্থার সাথে দেশ পরিচালনা করছে। গণতন্ত্র এবং প্রজাতন্ত্রের মধ্যে একটি মিল হল যে, জনগণ প্রতিনিধিত্ব করে এবং সরকারী কার্যাবলীতে তাদের স্বার্থ রক্ষার জন্য লোকদের নির্বাচন করে। যদিও এ-দুটির মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। নিম্মে আমরা প্রজাতন্ত্র এবং গণতন্ত্রের মধ্যে পার্থক্য আলোচনা করব।

প্রজাতন্ত্র কি?

প্রজাতন্ত্র (Republic) হল এমন একটি রাষ্ট্র ব্যবস্থা যেখানে সর্বোচ্চ ক্ষমতার মালিক জনগণ এবং তাদের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের হাতে থাকে এবং যেখানে রাজার পরিবর্তে একজন নির্বাচিত বা মনোনীত রাষ্ট্রপতি থাকে।

প্রজাতন্ত্র, সরকারের একটি প্রকার যেখানে একটি রাষ্ট্র নাগরিক প্রতিনিধিদের দ্বারা শাসিত হয়।

প্রজাতন্ত্র হল এমন একটি শাসন ব্যবস্থা যেখানে ক্ষমতা জনগণ বা তাদের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের হাতে থাকে। প্রজাতন্ত্রে রাজা বা রাণীদের পরিবর্তে নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি বা প্রধানমন্ত্রি থাকে।

কোন দেশে প্রজাতন্ত্র সরকার আছে?

একবিংশ শতাব্দীতে, বিশ্বের অনেক দেশ রয়েছে যেখানে প্রজাতন্ত্র সরকার রয়েছে। কিছু প্রজাতান্ত্রিক দেশের উদাহরণ,

আফগানিস্তান, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, চিলি, কলম্বিয়া, কোস্টারিকা, ক্রোয়েশিয়া, গুয়াতেমালা

হাইতি, মালদ্বীপ, ইরাক, ইজরায়েল, ইতালি, মেক্সিকো, ফিলিপাইন, পোল্যান্ড, তুরস্ক, উগান্ড।

গণতন্ত্র কি?

গণতন্ত্র (Democracy) হল একটি সরকার ব্যবস্থা যেখানে আইন, নীতি, নেতৃত্ব এবং একটি রাষ্ট্র বা অন্যান্য রাষ্ট্রের প্রধান উদ্যোগগুলো “জনগণ” দ্বারা প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

গণতন্ত্র, আক্ষরিক অর্থে, ‘জনগণের দ্বারা শাসন’। শব্দটি গ্রীক ডেমোক্র্যাটিয়া থেকে উদ্ভূত হয়েছে, যা Demos (“মানুষ”) এবং Kratos (“শাসন”) সমন্বয়ে গঠিত।

গণতন্ত্র হলো এক ধরনের সরকার বা রাজনৈতিক ব্যবস্থা যা সেই দেশের নাগরিকদের দ্বারা শাসিত হয়। গণতন্ত্রে, নাগরিকদের কিছু স্তরের ক্ষমতা এবং কর্তৃত্ব থাকে এবং তারা তাদের সরকারের সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করে।

যেমন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি, সরকারের অন্যন্য শাখাগুলোর মধ্যে ক্ষমতা এবং দায়িত্বগুলোর পৃথকীকরণের একটি ব্যবস্থা রয়েছে। ফলে, জনগণের প্রাকৃতিক অধিকার এবং নাগরিক স্বাধীনতা রক্ষা সম্ভব হচ্ছে।

কোন দেশে গণতান্ত্রিক সরকার আছে?

গণতান্ত্রিক দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে। যেমন, নরওয়ে, আইসল্যান্ড, সুইডেন, নিউজিল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, কানাডা,

ডেনমার্ক, অস্ট্রেলিয়া, সুইজারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, যুক্তরাষ্ট্র।

প্রজাতন্ত্র ও গণপ্রজাতন্ত্রের মধ্যে পার্থক্য

প্রজাতন্ত্র গণতন্ত্র
সংজ্ঞা প্রজাতন্ত্র হল এমন একটি শাসন ব্যবস্থা যেখানে ক্ষমতা জনগণ বা তাদের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের হাতে থাকে। গণতন্ত্র হলো এক ধরনের সরকার বা রাজনৈতিক ব্যবস্থা যা সেই দেশের নাগরিকদের দ্বারা শাসিত হয়।
উদাহরণ প্রজাতন্ত্রের প্রাথমিক উদাহরণ হল রোমান প্রজাতন্ত্র (510 BC -27 BC)। গণতন্ত্রের প্রাথমিক উদাহরণ হল গ্রীসের এথেনিয়ান গণতন্ত্র।
প্রকার প্রজাতন্ত্রের ৫টি প্রকার রয়েছে-যেমন,  সাংবিধানিক প্রজাতন্ত্র, সংসদীয় প্রজাতন্ত্র, রাষ্ট্রপতি প্রজাতন্ত্র, ফেডারেল প্রজাতন্ত্র,থিওক্রেটিক প্রজাতন্ত্র। গণতন্ত্রের ৩ টি প্রধান প্রকার রয়েছে -যেমন, প্রত্যক্ষ গণতন্ত্র, প্রতিনিধিত্বমূলক গণতন্ত্র, এবং সাংবিধানিক গণতন্ত্র।
ক্ষমতা প্রজাতন্ত্রে ক্ষমতা ব্যক্তি বা নাগরিকদের হাতে থাকে গণতন্ত্রে ক্ষমতা জনগণের হাতে।
ফোকাস প্রজাতন্ত্রে, প্রধান ফোকাস থাকে সংবিধানের উপর। গণতন্ত্রে, প্রধান ফোকাস থাকে জনগণের সাধারণ ইচ্ছার উপর।
সীমাবদ্ধতা প্রজাতন্ত্রে, সরকারের কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। গণতন্ত্রে সরকারের ওপর কোনো বাধা নেই।
অধিকার প্রজাতন্ত্র ব্যবস্থায়, সংখ্যাগরিষ্ঠের ইচ্ছাকে অগ্রাহ্য করা যায় না যেহেতু সংবিধান সেই অধিকারগুলো রক্ষা করবে। গণতন্ত্রে, সংখ্যাগরিষ্ঠের ইচ্ছার অধিকারগুলোকে অগ্রাহ্য করার অধিকার রয়েছে।
আইন প্রণয়ন প্রজাতন্ত্র ব্যবস্থায় আইন প্রণয়ন করে জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধিরা। গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় আইন প্রণীত হয় সংখ্যাগরিষ্ঠদের দ্বারা।
5/5 - (11 votes)

By Mithu Khan

I am a blogger and educator with a passion for sharing knowledge and insights with others. I am currently studying for my honors degree in mathematics at Govt. Edward College, Pabna.